আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উজানের ঢলে ভরপুর তিস্তা, সেচের পানি পেয়ে কৃষক খুশি

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ উজানের ঢলে তিস্তা নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। সেই পানি এখন সেচ কমান্ড এলাকার সাড়ে ২৮ হাজার হেক্টর ছাড়িয়ে ৬৫ হাজার হেক্টর জমি সেচ সুবিধা পেতে চলেছে।

প্রতিটি সেচ ক্যানেল পানিতে টইটম্বুরে পরিণত হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে উজানের ঢল বৃদ্ধি পায়। দেশের সর্ববৃহৎ সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারেজ কমান্ড এলাকায় চাহিদার চেয়ে অনেক বেশি পানি সরবরাহ পাওয়ায় কমান্ড এলাকার কৃষকরা আনন্দে আত্মহারা হয়ে উঠেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে তিন দিন ভারতের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বাংলাদেশ সফর শেষে ফিরে যাওয়ার পর তিস্তায় ধীরগতিতে পানি বৃদ্ধি পেতে থাকে, যা কখনও আটশ’ কিউসেক, কখনও ১২শ’ কিউসেকে সীমাবদ্ধ ছিল। সম্প্রতি বৃষ্টিপাত শুরু হওয়ায় তিস্তা নদীতে পানি বৃদ্ধি পায়। কিন্তু শুক্রবার রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত তিস্তা নদীতে প্রায় ৩ হাজার কিউসেক পানি পাওয়া যায়। যা বর্তমানে বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। শুষ্ক মৌসুম শুরুতেই তিস্তার পানি প্রবাহ বলতে কিছুই ছিল না। যা সর্বনিম্ন একশ’ কিউসেকে এসে দাঁড়িয়েছিল। তিস্তা পাড়ের ঝাড়শিঙ্গেরশ্বর চরের নৌকার মাঝি হারুন শেখ (৪০) জানায়, তিস্তা নদীতে যেন জোয়ার শুরু হয়েছে। এ জোয়ারে তিস্তা ফুলে ফেপে উঠছে। প্রধান খাল, শাখা খালে পানিতে ভরে গেছে। শনিবার দুপুরে দেখা যায় উজান থেকে তিস্তা নদী বাংলাদেশের প্রবেশপথ নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের কালিগঞ্জ জিরো পয়েন্টে দিয়ে স্রোতধারায় হু-হু করে পানি আসছে, যা দ্রুত প্রবাহে চলে যাচ্ছে ভাঁটির দিকে। গত কয়েকদিন আগেও নদীর বুকে যে ধু ধু বালুচর দেখা গেছিল, তা যেন নিমিষেই নদীর পানিতে চাপা পড়ে যাচ্ছে। নদীর কূলকিনারা ভরে উঠছে ধীরে ধীরে। এদিকে হঠাৎ করে তিস্তার পানি হু হু করে বৃদ্ধির বিষয়টি অবাক করে দিয়েছে তিস্তাপাড়ের মানুষকে। তিস্তার পাড়ের আবুল কাশেম জানান, তিস্তা নদীকে যখন দেখি শুকায়ে যায় তখন হারিয়ে যাওয়া জমিজিরাত বালুর চরে চোখে পড়ে বুকটা খাঁ খাঁ করে উঠে। পূর্ব ছাতনাই গ্রামের হারুন-অর রশিদ জানান, শুক্রবার ভোর থেকে হঠাৎ শুনতে পাই তিস্তা নদী থেকে স্রোতের শব্দ। অবাক হয়ে ছুটে যাই নদীর পাড়ে। দেখতে পাই উজান থেকে তিস্তার পানি শো শো শব্দে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। এখন তিস্তা নদী দেখে খুব ভাল লাগছে তিস্তায় পানি ভরে উঠছে।

তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সুরুতনজামান বলেন, উজানের ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। শনিবার দুপুর গড়িয়ে বিকেল পর্যন্ত তিস্তায় পানি প্রবাহ ছিল ৩ হাজার কিউসেক।

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

০৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: