মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তিন জেলায় ভাগ্নে, যুবকসহ তিন খুন

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ গাইবান্ধায় জমি নিয়ে সংঘর্ষে যুবক, নেত্রকোনায় তুচ্ছ ঘটনায় মামার হাতে ভাগ্নে খুন হয়েছেন। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় পান চুরির অভিযোগে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। খবর নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো-

গাইবান্ধা ॥ জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় জমি নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে হাতেম আলী (৪২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন ১০ জন।

শনিবার দুপুরে উপজেলার কাটাবাড়ি ইউনিয়নের ফুলহার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হাতেম আলী ফুলহার উত্তরপাড়া গ্রামের জানু মণ্ডলের ছেলে। গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম জাহিদুল ইসলাম জানান, ফুলহার গ্রামে করতোয়া নদীর তীরের একটি খাস জমি নিয়ে পার্শ্ববর্তী পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের হাঁসবাড়ি গ্রামের নুরুন্নবি মিয়ার বিরোধ চলে আসছিল। দুপুরে ওই জমির ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে প্রতিপক্ষের হামলায় ঘটনাস্থলেই নিহত হন হাতেম আলী। এ সময় আহত হয় কমপক্ষে ৬ জন।

নেত্রকোনা ॥ তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মামার ক্রিকেট ব্যাটের আঘাতে ভাগ্নে সাইদুর রহমান (৩১) খুন হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার কেন্দুয়া উপজেলার দলপা দক্ষিণপাড়া গ্রামে। নিহত সাইদুর রহমান ওই গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দিনের ছেলে।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে মামা নূর আলীর একটি মুরগি তার ভাগ্নে সাইদুর রহমানের ঘরের চাল খেয়ে ফেলে। তা দেখে সাইদুর রহমান মুরগিটিকে তাড়িয়ে দেন। এ নিয়ে মামা-ভাগ্নের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নূর আলী ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে সাইদুর রহমানের মাথায় আঘাত করেন। এতে সাইদুর রহমান গুরুতর আহত হলে তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। কেন্দুয়া থানার ওসি অভিরঞ্জন দেব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

চুয়াডাঙ্গা ॥ আলমডাঙ্গা উপজেলার বটিয়াপাড়া গ্রামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। শনিবার ভোর রাতে ঘটনাটি ঘটে। নিহতের নাম আবদুল হান্নান (৪৮)। আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার খাদিমপুর ইউনিয়নের শিয়ালমারি গ্রামের মৃত টগর মালিথার ছেলে আবদুল হান্নান পেশায় একজন কৃষক। সে পাশ্ববর্তী বটিয়াপাড়া গ্রামের শরিফুলের পান বরজে পান চুরি করার সময় হাতে নাতে ধরা পড়ে। এ সময় গ্রামবাসী তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে।

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

০৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: