রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সিদ্ধিরগঞ্জে জালকুড়ি পাগলা সড়কের বেহাল দশা

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, ৪ এপ্রিল ॥ সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি-বিশ্বরোড-পাগলা সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। মেরামত কিংবা সংস্কারের অভাবে সড়কটির বিভিন্ন জায়গায় ইট-সুরকি বের হয়ে এসেছে। বিভিন্ন স্থানে পানি জমে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের দ্বিগুণ ভাড়া দিয়ে যানবাহনে করে চলাচল করতে হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দারা সড়কটি জরুরী ভিত্তিতে মেরামতের দাবি জানান। জানা যায়, জালকুড়ি-বিশ্বরোড-পাগলা সড়কটি কয়েক বছর ধরে মেরামত কিংবা সংস্কার করা হচ্ছে না।

প্রায় ৪ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সড়কটি দিয়ে জালকুড়ি পশ্চিমপাড়া, দেলপাড়া, নন্দলালপুর, শাহী বাজার, বৌ বাজার ও নিশ্চিতপুরসহ আশপাশের বহু এলাকার লোকজন চলাচল করছে। এ সড়কটির দু’পাশে রয়েছে সরকারী প্রতিষ্ঠান জালকুড়ি মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র, পরিবার পরিকল্পনা নারায়ণগঞ্জ জেলার উপ-পরিচালকের কার্যালয়, রাজমহল সিনেমা হল, কয়েকটি টেক্সটাইল মিলস, সাইজিং কারখানা, রুলিং মিলসসহ ছোট-বড় বহু শিল্পকারখানা।

এছাড়াও রয়েছে বহুতল বিশিষ্ট ভবনসহ অসংখ্য বাড়িঘর। যাত্রী সাইফুল ইসলাম জানায়, রাস্তাটির অবস্থা খারাপ থাকায় একজন যাত্রীকে ২০ টাকা দিয়ে অটো সিএনজিতে করে বিশ্বরোড থেকে পাগলা যাতায়াত করতে হয়। রাস্তাটি খানাখন্দে ভরপুর থাকায় প্রতিটি যাত্রীকে দ্বিগুণ-তিনগুণ ভাড়া দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

রূপগঞ্জে পৌর কাউন্সিলরসহ নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, রূপগঞ্জ, ৪ এপ্রিল ॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কেরাব এলাকায় কাউসার মিয়া ও রাসেল মিয়া নামে দুই কাঠমিস্ত্রিকে চোর বানিয়ে রাতভর নির্যাতন ও গণপিটুনি দেয়ার অভিযোগে নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার দুপুরে নাজির হোসেন নামে অপর কাঠমিস্ত্রি বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর শফিকুর দেওয়ানসহ ৭ জনকে ও অজ্ঞাত ৪ থেকে ৫ জনকে আসামি করে মামলাটি করেন। কাউন্সিলরের কথামতো কাজ করতে রাজি না হওয়ায় নির্যাতনের শিকার হয় ওই দুই কাঠমিস্ত্রি। কাউন্সিলরসহ নির্যাতনকারীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। এ নিয়ে এলাকাবাসী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। নির্যাতিত কাঠমিস্ত্রি কাউসার মিয়া ও রাসেল মিয়ার বাড়ি চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার শিরচু এলাকায়। তারা কেরাব এলাকার হাজী ফজলুল হকের বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মহসিন মল্লিক জানান, কেরাব এলাকার মনিরা বেগম নামে এক স্কুলশিক্ষিকার বাড়িতে ফার্নিচারের কাজ হাতে নেন কাঠমিস্ত্রি রাসেল মিয়া ও কাউসার মিয়া। বকেয়া কয়েক দিনের কাজের মজুরির টাকা দাবি করলে মনিরা বেগম ওই দুই কাঠমিস্ত্রিকে গালিগালাজ করেন। এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে মনিরা বেগমের ভাই স্থানীয় কাউন্সিলর শফিকুর রহমানসহ তার লোকজন কাঠমিস্ত্রি রাসেল মিয়া ও কাউসার মিয়াকে বেঁধে রেখে রাতভর নির্যাতন চালায়।

প্রকাশিত : ৫ এপ্রিল ২০১৫

০৫/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: