কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ভূমিদস্যুদের ভয়ে নিজ ক্ষেতের আলু তুলতে পারছে না প্রবাসীর স্ত্রী

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ টঙ্গীবাড়ি উপজেলার বালিগাঁও গ্রামের ভূমিদস্যুর ভয়ে নিজ জমির আলু উত্তোলন করতে পারছে না। এতে ৪১ শতাংশ জমিতে রোপণকৃত আলু নষ্ট হওয়ার শঙ্কায় দিশেহারা নূরজাহান বেগম।

আলু উত্তোলন করতে গেলে প্রবাসীর পরিবারটিকে মেরে এলাকাছাড়া করবে বলে হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। নূরজাহান বেগম বাদী হয়ে টঙ্গীবাড়ি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আলু উত্তোলন মৌসুম পার হয়ে যাওয়ায় জমির মধ্যে উৎপাদিত হওয়া আলুগুলো অর্ধেকেরও বেশি নষ্ট হয়ে গেছে। পাশ্ববর্তী জমির কৃষকরা জানান, জমিতে উৎপাদিত হওয়া ১ শত মনের বেশি আলু নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ।

বালিগাঁও মৌজার আরএস ৭৩৩নং দাগের ৪১ শতাংশ নাল জমি যুগযুগ ধরে ভোগ দখল করে আসছিল বালিগাঁও গ্রামের হামিদ সর্দারের পরিবার । তার মৃত্যূর পর ওই জমিতে তার একমাত্র ছেলে বাচ্চু সর্দার মালিক হয়ে ভোগদখল করে আসছে। বাচ্চু সর্দার সৌদি আরব প্রবাসী হওয়ায় ওই জমিতে আলু চাষ করে আসছে তার স্ত্রী নূরজাহান বেগম। এবছর আলু চাষ করার পর বর্তমানে উত্তোলন করতে গেলে একই গ্রামের ভূমিদস্যু সন্ত্রাসী নজরুল ইসলাম বেপারিগং ওই সম্পত্তি তাদের দাবি করে নূরজাহানকে হুমকি দিচ্ছে। আড়িয়ল বালিগাঁও ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য ওয়াহিদ হাওলাদার জানান, আমার জন্মের পর হতেই দেখছি এই জমিটি নূরজাহানের শ্বশুর হামিদ সর্দার ভোগ দখল করে আসছে। আমি পার্শ্ববর্তী জমির মালিক। এ বছরও নূরজাহানকে এই জমিতে আলু রোপণ করতে আমি নিজে দেখেছি। এর আগে নূরজাহানের কাছ হতে জমা নিয়ে আমি কয়েক বছর ওই সম্পত্তিতে চাষাবাদ করেছি। স্থানীয়রা জানান, বালিগাঁও গ্রামের মৃত ইমানউদ্দিন বেপারির নজরুল ইসলামদের এই জমির ওপর তাদের দৃষ্টি পড়েছে। এ ব্যাপারে নজরুল ইসলাম বেপারির সঙ্গে চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫

০৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: