মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

লড়াইয়ে প্রকম্পিত সমগ্র এডেন

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫
  • রাস্তায় রাস্তায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে মৃতদেহ

হুতি বিদ্রোহী ও প্রেসিডেন্ট আব্দ-রাব্বু মনসুর হাদির সমর্থকদের মধ্যে তীব্র লড়াইয়ে সমুদ্র উপকূলীয় শহর এডেন প্রকম্পিত হয়ে উঠেছে। হুতি যোদ্ধা ও তাদের মিত্ররা এডেন প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ দখল করে নেয়ার পর সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট শুক্রবার রাতে বিমান হামলা শুরু করে। এ হামলার মুখে শুক্রবার প্রথম দিকে বিদ্রোহীরা প্রাসাদ ত্যাগ করেছে। খবর বিবিসি, আল জাজিরা ও এএফপির।

এডেনে পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, হুতি মিলিশিয়া ও তাদের মিত্ররা আল মাশিক প্রাসাদ ত্যাগ করেছে। এর আগের খবরে বলা হয়েছে, বিদ্রোহীরা এডেনে তাদের হামলায় ট্যাঙ্ক ও সাঁজোয়া যান ব্যবহার করে বন্দর শহরটির কেন্দ্রস্থলের দিকে এগিয়ে যায়, যদিও সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলা অব্যাহত থাকে।

এক স্থানীয় সাংবাদিক বৃহস্পতিবার আল জাজিরাকে বলেছেন, পুরো এডেনে লড়াই ছড়িয়ে পড়ার পর শহরের বাসিন্দারা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে স্থানীয় সময় রাত তিনটা থেকে পালিয়ে যাচ্ছে এক এলাকা থেকে অন্য এক এলাকায়। রাস্তায় অসংখ্য মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। বাইরে বেরোনো সম্ভব হচ্ছে না বলে এগুলো সরানো যাচ্ছে না। সাংবাদিক বলেন, মাল্লা এলাকায় শেষ রাতে বোমাবর্ষণ চলেছে। এ এলাকায় মেশিনগান, রকেট চালিত গ্রেনেড ও অন্যান্য সামরিক সরঞ্জাম ব্যবহার করা হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরাও হুতিদের সংবাদ মাধ্যম জানায়, হুতিরা দিনের প্রথম দিকে প্রেসিডেন্টের একটি আবাস ভবনসহ ক্র্যাটরের কেন্দ্রস্থল দখল করেছে। হাদি সানায় হুতিদের গৃহবন্দী থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর অস্থায়ী রাজধানী প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এডেনে। শিয়া বিদ্রোহীদের অগ্রযাত্রার মুখে এক সপ্তাহ আগে সৌদি তত্ত্বাবধানে এডেন ত্যাগ করেন তিনি। ইয়েমেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ ইয়ামিন সৌদি রাজধানী থেকে আল জাজিরাকে বলেছেন, দেয়ায় এখানেও খাদ্যাভাব দেখা দিচ্ছে।

দোকানী রাসাম বলেছেন, শহরের বাসিন্দারা বেঁচে থাকার সংগ্রাম করছে প্রতিদিন। রাজধানী সানায় সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলায় বাসিন্দারা দৃশ্যত বন্দী অবস্থায় রয়েছে। শহরবাসীরা পালিয়ে যাচ্ছে। ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। সৌদি সরকার বলেছে, ইয়েমেনে তাদের সামরিক অভিযানের লক্ষ্য হচ্ছে ইয়েমেনী প্রেসিডেন্ট আব্দ-রাব্বু মনসুর হাদির বৈধ সরকারকে রক্ষা করা। তবে তাদের স্থল সৈন্য মোতায়েনের কোন পরিকল্পনা নেই।

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫

০৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: