আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আশেকুর আইএসে যোগ দিয়েছেন কিনা নিশ্চিত নয় সরকার

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেটে (আইএস) বাংলাদেশী তরুণ আশেকুর রহমান যোগ দিয়েছেন কিনা সে বিষয়ে নিশ্চিত নয় সরকার। আঙ্কারার বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে তুরস্ক সরকারের কাছে এ বিষয়ে জানতে চিঠি দেয়া হলেও দেশটি এখনও কোন জবাব দেয়নি। তাই আশেকুর রহমান আইএসে যোগ দিয়েছেন কিনা সে বিষয়ে এখনও জানতে পারেনি সরকার। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ঢাকার মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজির (এমআইএসটি) প্রকৌশল বিভাগের ছাত্র আশেকুর রহমান গত ২১ ফেব্রুয়ারি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে একটি সম্মেলনে অংশগ্রহণের কথা বলে ঢাকা ছাড়েন। সম্মেলন শেষ করে ২৭ ফেব্রুয়ারি তাঁর ঢাকায় ফেরার কথা ছিল। কিন্তু দেশে না ফিরে তিনি ইস্তাম্বুল থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে যান।

তুরস্কে একটি সম্মেলনে অংশগ্রহণের কথা বলে ঢাকার তুরস্ক দূতাবাস থেকে আশেকুর ভিসা নিয়েছিলেন। ভিসা আবেদনের সঙ্গে দেয়া কথিত সম্মেলনের সব কাগজপত্র ছিল ভুয়া। তবে নির্ধারিত সময়ে দেশে ফিরে না আসায় তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অবহিত করা হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আশেকুর রহমানের বিষয়ে খোঁজ নেয়ার জন্য তুরস্কের বাংলাদেশ মিশনে চিঠি দেয়। এরপর আঙ্কারায় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে তুরস্ক সরকারের কাছে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেয়া হয়। তবে চিঠি দেয়ার এক মাস পরও তুরস্ক সরকারের কাছ থেকে কোন উত্তর মেলেনি। এছাড়া এক সপ্তাহ আগেও বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস তুরস্ক সরকারের কাছে পুনরায় এ বিষয়ে তাগিদ দেয়। তবে তুরস্ক প্রশাসন এ বিষয়ে কোন তথ্যই এখনও দিতে পারেনি।

তুরস্কে বাংলাদেশ দূতাবাস জানিয়েছে, আশেকুর রহমান প্রকৃতপক্ষেই আইএসে যোগ দিয়েছেন কিনা সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। এ বিষয়ে তুরস্ক প্রশাসন এখন খোঁজখবর নিচ্ছে। এছাড়া দূতাবাসের পক্ষ থেকে সে দেশের প্রশাসনের সঙ্গে এ বিষয়ে সর্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, আশেকুর রহমানের বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েও একটি চিঠি দেয়া হয়েছে। আশেকুর রহমান কোন জঙ্গী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন কিনা এ বিষয়ে খতিয়ে দেখার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করা হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে পুলিশ প্রশাসন থেকে আশেকুরের বিষয়ে এখন খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।

সূত্র জানায়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে তরুণরা তুরস্কে গিয়ে পাশের দেশ সিরিয়ায় জঙ্গী সংগঠন আইএসে যোগ দিয়ে থাকেন। সে কারণে আশেকুর রহমানও এই জঙ্গী সংগঠনে যোগ দেয়ার জন্য তুরস্কে পাড়ি জমাতে পারেন। তবে এ বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নয় সরকার।

এর আগে যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত দুই কিশোরী আইএসে যোগ দিয়ে তুরস্কে পাড়ি জমিয়েছে বলে জানিয়েছিল দেশটির পুলিশ বিভাগ। ওই দুই কিশোরীকে খুঁজতে ইতোমধ্যেই তুরস্কে গেছে ব্রিটিশ পুলিশের একটি দল। তবে বাংলাদেশ থেকে কোন তরুণ আইএসে যোগ দিয়েছেন কিনা সে বিষয়ে এখনও কোন তথ্য নেই সরকারের হাতে। আশেকুর রহমানের আইএসে যোগ দেয়ার বিষয়ে খোঁজখবর চলছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যেই জানিয়েছে, ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নেতৃত্বধীন অভিযানে বাংলাদেশ যোগ দেবে না। তবে ওই অঞ্চলে মানবিক সহায়তা কার্যক্রমে জাতিসংঘের নেতৃত্বে কোন কর্মসূচী গ্রহণ করা হলে তাতে অংশ নিতে বাংলাদেশের আপত্তি নেই।

আইএস জঙ্গীগোষ্ঠী ২০১৩ সালের এপ্রিল থেকে লড়াই শুরুর পর ইরাক ও সিরিয়ার কিছু অংশ নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। ইতোমধ্যেই এই জঙ্গীগোষ্ঠী কয়েক হাজার মানুষকে হত্যাও করেছে। সে কারণে আইএস ঠেকাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বে অভিযান চলছে। এতে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশও যোগ দিয়েছে।

প্রকাশিত : ৪ এপ্রিল ২০১৫

০৪/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: