কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

মেসির শুভকামনায় পিকে

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আবারও ইনজুরির গ্যাঁড়াকলে পড়েছেন লিওনেল মেসি। তারকা এই ফরোয়ার্ড চোটের কারণে নিজ দেশ আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বশেষ দুটি ম্যাচ খেলতে পারেননি। এখন শঙ্কা, স্প্যানিশ লা লিগায়ও বেশ কয়েকটি ম্যাচ মিস করতে পারেন। তবে মেসির বার্সিলোনা সতীর্থ জেরার্ড পিকে আশাবাদী, তাদের সেরা তারকা ঠিকই সেল্টা ডি ভিগোর বিরুদ্ধে ম্যাচ থেকেই খেলতে পারবেন। বুধবার সাক্ষাতকারে পিকে মেসির প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন।

দেশের জার্সি গায়ে না খেলতে পারায় এমনিতেই মেসিকে নিয়ে সমালোচনা চলছে! তবে বাস্তবতা হচ্ছে, চারবারের ফিফা সেরা ফুটবলারের চোটটা সত্যিকার অর্থেই গুরুত্বপূর্ণ। আর্জেন্টাইন কোচ জেরার্ডো মার্টিনো জানিয়েছেন, মেসির পায়ে প্রচ- ব্যথা। সে বুটই পড়তে পারছে না। তবে জাতীয় দলের হয়ে দুই ম্যাচ না খেলে বিশ্রামে থাকায় মেসি দ্রুত সুস্থ্য হয়ে উঠছেন। যে কারণে জেরার্ড পিকে আত্মবিশ্বাসী, আগামী রবিবার লা লিগায় সেল্টা ভিগোর বিরুদ্ধে ম্যাচ থেকেই মাঠে ফিরতে পারবেন মেসি। সাক্ষাতকারে পিকে বলেন, আমি মেসিকে নিয়ে আশাবাদী। আমি তার সঙ্গে কথা বলেছি। স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার আরও বলেন, আমি তার সুস্থতার বিষয়ে আশাবাদী। আমার মনে হয় সে সুস্থই আছে। তবে আগামী কয়েকদিন সে কি রকম অনুভব করে তার উপর নির্ভর করছে। আর এ বিষয়টি দলের চিকিৎসক সিদ্ধান্ত নেবে। তবে আমি বলতে পারি সে সুস্থ হয়ে উঠবে।

মেসি আর্জেন্টিনার হয়ে শেষ দুটি ম্যাচ খেলতে পারেননি। যুক্তরাষ্ট্রে এল সালভাদর ও ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে আলবেসেলিস্তাদের জয়ের ম্যাচ দুটিতে পায়ের ইনজুরির কারণে সাইড বেঞ্চে ছিলেন তিনি। পরে দলের কোচ জেরার্ডো মার্টিনো জানান, পুরোপুরি সুস্থ না হওয়ায় ২৭ বছর বয়সী এ তারকা মাঠে নামতে পারেনি। পায়ের পাতায় সমস্যা থাকায় বুট পড়লে আরও বেশি ব্যথা অনুভব করেন বলে জানিয়েছেন আর্জেন্টিনা দলের এক মুখপাত্র। এ কারণে সেল্টা ভিগোর বিরুদ্ধে বার্সার জার্সি গায়ে মেসির খেলাটা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। সেল্টা ভিগোর বিরুদ্ধে দারুণ এক জয়ের স্মৃতি নিয়ে মাঠে নামছে বার্সিলোনা। নিজেদের আগের ম্যাচেই এল ক্ল্যাসিকোতে রিয়াল মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে বার্সা। এই জয়ে ২৮ খেলা শেষে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগায় এককভাবে শীর্ষে কাতালানরা। সমান ম্যাচে ৬৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে রিয়াল মাদ্রিদ। মেসির অপ্রত্যাশিত ইনজুরির জন্য দায়ী করা হচ্ছে স্বদেশী ডিফেন্ডার মার্টিন ডেমিচেলিসকে। ক্রীড়াবিষয়ক জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল ‘ইএসপিএন’র উদ্ধৃতি দিয়ে বিষয়টি জানিয়েছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলো। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের নকআউট পর্বে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটির মুখোমুখি হয়েছিল বার্সিলোনা। গত ১৯ মার্চ ন্যুক্যাম্পে শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ম্যানসিটির আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার ডেমিচেলিসের ট্যাকলের শিকার হন মেসি। সঙ্গে সঙ্গেই গ্যালারিতে থাকা সমর্থকদের দুয়োধ্বনি শোনেন ডেমিচেলিস।

দুই লেগ মিলিয়ে ৩-১ ব্যবধানে জিতে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ওই ম্যাচে ডানপায়ে আঘাত পাওয়ার পর কিছুক্ষণ মাঠে বসে থাকেন মেসি। এরপর দু’হাত দিয়ে পা ধরে উঠে দাঁড়ান। যা বার্সা শিবিরে দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ডান পায়ের ব্যথা নিয়েই গত ২৩ মার্র্চ গুরুত্বপূর্ণ এল ক্ল্যাসিকো ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছিলেন চারবারের বিশ্বসেরা ফুটবলার।

বলা হচ্ছে, রিয়ালের বিরুদ্ধে ম্যাচে ইনজুরির শিকার হয়েছেন মেসি। কিন্তু এর আসল কারণ সিটির বিরুদ্ধে ওই ম্যাচটিই।

ইনজুরির কারণে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে গ্যারেথ বেলেরও। নিজেদের মাঠ সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে লা লিগার ম্যাচে রবিবার গ্রানাডার বিরুদ্ধে খেলবে ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নরা। আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ইসরাইলের বিরুদ্ধে ম্যাচে পেশীর ইনজুরিতে পড়েন বেল। রিয়ালের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জানানো হয়, বেলকে সার্বক্ষণিকভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। মাঠে অনুশীলন না করলেও বর্তমানে তিনি জিমে সময় দিচ্ছেন। পরের ম্যাচে তিনি খেলতে পারবেন কিনা তা এখনও নিশ্চিত নয়। বেলের খেলার বিষয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও ডিফেন্ডার পেপের না থাকাটা একপ্রকার নিশ্চিত। শুধু গ্রানাডার বিরুদ্ধেই নয় চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগেও পর্তুগীজ ডিফেন্ডারের মাঠে নামা নিয়ে শঙ্কা আছে।

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫

০৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: