আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শিল্পকলার চিত্রশালায় চীনা শিল্পীদের চিত্রকর্ম প্রদর্শনী

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫
শিল্পকলার চিত্রশালায় চীনা শিল্পীদের চিত্রকর্ম প্রদর্শনী
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালায় বৃহস্পতিবার শুরু হলো ১৫ চীনা শিল্পীর চিত্রকলা প্রদর্শনী। ২৭টি চিত্রকর্মে সজ্জিত দুই দিনের এ প্রদর্শনীর শিরোনাম চাইনিজ কালচার ট্যুর টু সাউথ এশিয়া ২০১৫। প্রদর্শনীর অধিকাংশ চিত্রকর্মে ধর্মীয় আধাত্ম্যবাদের পাশাপাশি উঠে এসেছে চীনের পরিবেশ-প্রকৃতি ও যাপিত জীবন। প্রদর্শনী প্রাঙ্গণে সাদা কাগজে আপন মনে ছবি আঁকছিলেন এক চীনা নারী শিল্পী। অদ্ভুত সুন্দর করে আঙুল চালাচ্ছিলেন ক্যানভাসে। আর কিছুক্ষণের মধ্যে চিত্রপটে দৃশ্যমান হলো সে দেশের সংস্কৃতি। দৃশ্যটি উপস্থিত দর্শনার্থীদের দারুণভাবে মুগ্ধ করে। প্রদর্শনীর যৌথ আয়োজক বাংলাদেশ-চায়না পিপলস্ ফ্রেন্ডশিপ এ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। বৃহস্পতিবার বিকেলে একাডেমির চিত্রশালার মিলনায়তনে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন পররাষ্টমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী। সম্মানিত অতিথি ছিলেন ঢাকায় চীনা দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মি. মামিং চ্যাং। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ-চায়না পিপলস্ ফ্রেন্ডশিপ এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সি এম শফি সামী। আজ শুক্রবার শেষ হবে প্রদর্শনী। চলবে বেলা ৩টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত।

আগামী ফেব্রুয়ারিতে ঢাকা আর্ট সামিট ॥ দক্ষিণ এশীয় শিল্পসম্ভার নিয়ে অনন্য এক আয়োজন ঢাকা আর্ট সামিট। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে তৃতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে শিল্পকর্মের আন্তর্জাতিক এই আসর। ৫ ফেব্রুয়ারি থেকে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালায় অনুষ্ঠিতব্য চার দিনের এই শিল্প সম্মেলনের যৌথ আয়োজক সামদানি আর্ট ফাউন্ডেশন ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। এবারের আয়োজনে দক্ষিণ এশিয়ার ৮ দেশের শিল্পীদের সঙ্গে যোগ দেবেন ১৭ দেশের খ্যাতিমান স্থপতিরা। বিশ্বের উল্লেখযোগ্য জাদুঘরের মধ্যে অংশ নেবে লন্ডনের টেট মডার্ন, প্যারিসের সেন্টার পমপিডু ও নিউ ইয়র্কের গুগেনহাইম। সামিটের কিউরেটরিয়াল টিমের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন শিল্পী নিখিল চোপড়াসহ অনেকে। ২০১৬ সালের সামদানি আর্ট এ্যাওয়ার্ডের বিচারকম-লীতে থাকবেন ডেলফিনা ফাউন্ডেশন, দ্য নিউ মিউজিয়াম, কুন্সঠাল জুরিখ ও সেন্টার পমপিডুর মতো খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ।

ঢাকা আর্ট সামিট উপলক্ষে বৃহস্পতিবার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে সামদানি ফাউন্ডেশন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা আর্ট সামিটের পরিচালক নাদিয়া সামদানি, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, সামিটের সাংগঠনিক কমিটির সদস্য গাউসুল আলম শাওন ও সামিটের বাংলাদেশের শিল্পীদের প্রদর্শনীর কিউরেটর চিত্রশিল্পী মুনিরুজ্জামান।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, এ আয়োজনের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে দেশের শিল্পকলাকে আন্তর্জাতিক শিল্প আঙিনায় উপস্থাপন। আমাদের শিল্পী ও শিল্পকর্মকে বহির্বিশ্বে পরিচিত করতে ভূমিকা রাখবে এই আর্ট সামিট। এর মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিল্পীদের কাজ আমাদের কাছে এবং আমাদের শিল্পীদের শিল্পকর্ম বিশ্বব্যাপী তুলে ধরা হবে।

লিখিত বক্তব্যে নাদিয়া সামদানি বলেন, ঢাকা আর্ট সামিটের তৃতীয় সংস্করণে কিছু নতুন মাত্রা যোগ হতে যাচ্ছে। ‘রিওয়াইল্ড’ শীর্ষক একটি অবাণিজ্যিক বিভাগ থাকবে যেখানে ১৯৮০ সালের দক্ষিণ এশীয় শিল্পীদের চিত্রকর্ম প্রদর্শন করা হবে। নতুন আরেকটি বিভাগে ক্রিটিক্যাল রাইটিং শুরু হতে যাচ্ছে। এতে ২০ জন আন্তর্জাতিক শিল্পবিষয়ক লেখক দক্ষিণ এশীয় শিল্পবিষয়ক পরীক্ষামূলক লেখা নিয়ে গবেষণা করবেন। এছাড়াও সামিটের আরেকটি আকর্ষণ হলো স্পীকার প্যানেল যেখানে বাংলাদেশের পাশাপাশি পৃথিবীর ১৫টি দেশের মোট ৩৫জন স্পীকার তাদের অভিজ্ঞতা আগত দর্শকের কাছে ব্যক্ত করবেন।

সামিটে বাংলাদেশের কোন শিল্পীর শিল্পকর্ম স্থান পাবেÑসাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে মনিরুজ্জামান জানান, সমকালীন ও নিরক্ষাধর্মী শিল্পচর্চা করেন এমন শিল্পীসহ দেশের খ্যাতিমান ৫০শিল্পীর শিল্পকর্ম উপস্থাপন করা হবে। এছাড়াও দেশের পথিকৃৎ শিল্পীদের শিল্পকর্ম নিয়ে একটি পৃথক কর্নার করার পরিকল্পনা রয়েছে।

বক্তারা আরও জানান, অনুষ্ঠানে বরাবরের মতো এবারও ডেলফিনা ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যৌথভাবে সামদানি আর্ট এ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করতে যাচ্ছে যার পুরস্কারস্বরূপ একজন উদীয়মান বাংলাদেশী শিল্পী লন্ডনের ডেলফিনা ফাউন্ডেশনে তিন মাসের রেসিডেন্সি প্রোগ্রামে অংশ নেবেন। ১০ জন সেরা ফাইনালিস্টকে নিয়ে সুইজারল্যান্ডের কুন্সষ্ঠাল জুরিখের পরিচালক ডেনিয়েল ভাওমেন তৃতীয় ঢাকা আর্ট সামিটে একটি প্রদর্শনী কিউরেট করবেন।

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫

০৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: