মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

চট্টগ্রামে ব্যাটারি রিক্সা চালুর দাবিতে প্রতীকী অনশন

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ নগরীতে ব্যাটারি রিক্সা চালুর দাবিতে বৃহস্পতিবার প্রতীকী অনশন কর্মসূচী পালন করেছেন চালক ও মালিকরা। কর্মসূচী থেকে তারা মানবিক দিক বিবেচনা করে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচলের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয়ার দাবি জানান। সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মার্কেট চত্বরে এ কর্মসূচী পালন করে চালক ও মালিকদের সংগঠন ব্যাটারিচালিত রিক্সা মালিক-চালক শ্রমিক লীগ।

কর্মসূচী চলাকালে বক্তারা বলেন, হঠাৎ করে ব্যাটারিচালিত রিক্সা বন্ধ করে দেয়ায় হাজার হাজার চালক, মালিক, মিস্ত্রী ও তাদের লক্ষাধিক পরিবার পরিজন মানবেতর জীবনযাপন করছে। আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকেই আজ অনাহারে অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছে। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন স্বপন বিশ্বাস। বক্তব্য রাখেনÑ সোহাগ, বিপ্লব ধর, আলাউদ্দিন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম নগরীতে অন্তত ৫০ হাজার ব্যাটারিচালিত রিক্সার চলাচল ছিল। আদালতের রায়ে নিষিদ্ধ হওয়ার পর গত ৩১ আগস্ট থেকে চট্টগ্রামে ব্যাটারিচালিত রিক্সার বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়। পরে আরেক আদেশে ছয় মাসের সময় দেয়া হয়। সে সময় অতিবাহিত হয়ে যাওয়ায় পুলিশ গত ২৩ মার্চ থেকে পুনরায় ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচল বন্ধ করে দেয়।

কারিগরি বোর্ডে পাঠদান নতুন সিলেবাসে পরীক্ষা পুরনোয়

স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর ॥ বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন একাদশ শ্রেণীর পাঠদান হয়েছে নতুন সিলেবাসে। আর বোর্ড ফাইনাল পরীক্ষা হচ্ছে পুরাতন সিলেবাসে। এতে প্রশ্ন কমন না পড়ায় বিপাকে পড়েছে পরীক্ষার্থীরা। পুরাতন সিলেবাসের এই প্রশ্ন হাতে শিক্ষার্থীদের অনেকেই কান্নাকাটি করেছে। প্রশ্ন বিরম্বনার এমন ঘটনা ঘটেছে শুধু রংপুর নয়, এ বোর্ডের আওতাধীন গোটা দেশজুড়ে কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই। জানা গেছে, কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন একাদশ বোর্ড ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হয়েছে গতকাল বৃহস্পতিবার। সকালে রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার প্রশ্ন পেয়েই চমকে উঠে। তারা দেখতে পায় সারা বছর তারা যে সিলেবাসে পড়াশোনা করানো হয়েছে সেই সিলেবাসের সঙ্গে এই প্রশ্নের কোন মিল নেই। এ অবস্থায় বিপাকে পড়ে তারা। শুরু হয় হৈ চৈ। বিষয়টি তারা কর্তৃপক্ষকে জানালে অধ্যক্ষ বিষয়টি নিয়ে বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেন। তবে সেখান থেকে জানানো হয়, যা হওয়ার তা হয়ে গেছে, এখন আর কিছু করার নেই। কাজেই এই প্রশ্ন দিয়েই পরীক্ষা নিতে হবে।

রংপুর টেকনিক্যাল স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন এর সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুরোপুরি পুরাতন সিলেবাসে নয়, কিছুটা মিশ্রণ হয়েছে। তবে তিনি বিষয়টি নিয়ে পত্রিকায় না লেখার অনুরোধ জানান। তিনি আরও জানান, বিষয়টি তিনি বোর্ডকে জানিয়েছেন। বোর্ডের নির্দেশনাতেই পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।

প্রকাশিত : ৩ এপ্রিল ২০১৫

০৩/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: