কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মেঘনায় ট্রলার দুর্ঘটনায় নিহত ১ নিখোঁজ ১৫

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫, ১২:৫৯ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ বুধবার রাতে গজারিয়া উপজেলায় ভাষানচরের কাছে যাত্রীবাহী ট্রলার ও বাল্কহেটের সঙ্গে সংঘর্ষে অন্তত ১৫ যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে। বালুভর্তি বাল্কহেটে মাথায় স্টিল বডির ট্রলারটি অজ্ঞাত যুবকের (২৫) লাশসহ গেঁথে আছে। দুর্ঘটনাস্থল থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার উত্তরে গজারিয়ার ছোট ভাষানচরে মেঘনাতীরে দুর্ঘটনাকবলিত যান দুটি ভাসতে ভাসতে আসে। পুলিশ এটি জব্দ করে ফায়ার সার্ভিস তলব করেছে।

‘মা-বাবার দোয়া’ নামের বাল্কহেটটি বালুভর্তি করে ঢাকার দিকে যাওয়ার পথে রাত আটটার দিকে বিপরীতমুখী প্রায় ৭৫ যাত্রী ভর্তি ট্রলারটিকে মাঝ বরাবর সজোরে ধাক্কা দলে এটি গেঁথে যায়। কোনভাবে ছুটাতে না পেরে চালক ও স্টাফরা বাল্কহেট ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। তবে বাল্কহেটে আলো জ্বালানো থাকায় পুলিশ রাতে এটি সহজে শনাক্ত করে। ট্রলারটি অর্ধ নিমজ্জিত রয়েছে।

ট্রলারের যাত্রী ঢাকার বাদামতলীর ধনিয়ার মোঃ শামীম বেঁচে গেলেও তার দশ বছরের সন্তান ফয়েজ নিখোঁজ রয়েছে। বেঁচে যাওয়া যাত্রী নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের পিয়াস (২৫) জানান, তাঁরা মেঘনা-গোমতী সেতুর (দাউদকান্দি সেতু) বাউশিয়ার লঞ্চঘাট থেকে ট্রলারে করে চাঁদপুরের বেলতলীর লেংটার মেলায় যাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে ৭টায় ট্রলারটি ছাড়ে। মূল মেঘনা নদীর মোহানায় ঝড়ের কবলে পড়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এতে বেশকিছু যাত্রী আহত অবস্থায় কোনক্রমে তীরে উঠে চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন স্থানে চলে যায়। তবে পিয়াসের তিন বছরের ভাতিজিসহ বাকি যাত্রীর ভাগ্যে কি ঘটেছে তা জানা যায়নি। ঘটনাস্থলে গজারিয়া থানার এসআই মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, গজারিয়ার ভাষানচর, কুমিল্লার মোল্লাকান্দি এবং চাঁদপুরের নবীপুরার মোহনায় এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এতে অন্তত ১৫ যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে।

মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার জানান, দুর্ঘটনা যে জেলায় ঘটুক না কেন। নিখোঁজদের সন্ধান এবং দুর্ঘটনাকবলিত নৌযানের ভেতর থেকে লাশ উদ্ধারে সবরকম চেষ্টা চলছে। জেলা প্রশাসক মোঃ সাইফুল হাসান বাদল জানান, উদ্ধার তৎপরতায় ফায়ার সার্ভিস তলবসহ সবরকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। রাতের বেলায় বিশাল মেঘনায় উদ্ধার কাজ সতর্কতায় চলবে। এছাড়া রাতে বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ সত্ত্বেও কিভাবে বালুর বাল্কহেট চলেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫, ১২:৫৯ এ. এম.

০২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: