মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

নিউজিল্যান্ডের বর্ষসেরা ম্যাককুলাম

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পুরস্কারের জন্য শক্ত প্রার্থী হিসেবে ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের নামটা জানা গিয়েছিল আগেই। ২০১৩-২০১৪ মৌসুমে ব্যাট হাতে অবিশ্বাস্য পারফর্ম করেন কিউই সেনাপতি। ‘লিডিং ফ্রম দ্য ফ্রন্ট’- সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথমবারের মতো নিউজিল্যান্ডকে বিশ্বকাপের ফাইনালে তুলে মারকাটারি ব্যাটসম্যান বসেছেন নায়কের আসনে। অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফেরার একদিন পর বুধবার ফুরল অপেক্ষার পালা। ‘ব্ল্যাক ক্যাপস’ ক্রিকেটের বর্ষসেরা নির্বাচিত হলেন ৩৩ বছর বয়সী ম্যাককুলাম। স্থানীয়ভাবে যেটি ‘স্যার রিচার্ড হ্যাডলি মেডেল’ নামে পরিচিত।

অল্পের জন্য শিরোপা ছোঁয়া হয়নি। তবে প্রথমবারে মতো দল বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নেয়ায় নিউজিল্যান্ড জুড়ে এখন চলছে ক্রিকেটার বরণ উৎসব। তার মাঝে আরও এক পুরস্কারে ভূষিত হলেন ম্যাককুলাম-কেন উইলিয়ামসনরা। বর্ষসেরার মঞ্চ আলো করার জন্য এরচেয়ে ভাল সময় আর হতে পারত না। অবধারিতভাবেই সর্বোপরি বর্ষসেরার মেডেল উঠছে ম্যাককুলামের গলায়। ওয়ানডের বর্ষসেরা নির্বাচিত হয়েছেন তুখোড় প্রতিভা উইলিয়ামসন। পাশাপাশি টেস্ট এবং টি২০তেও ‘প্লেয়ার অব দ্য ইয়ার’ হয়েছেন ২৪ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যান! তিন-তিনটি বিভাগের পুরস্কার বগলদাবা করে চমক দেখিয়েছেন উইলিয়ামসন। ব্যাট হাতে ও নেতৃত্বে গত মৌসুমে অবিশ্বাস্য ক্রিকেট খেলেন ম্যাককুলাম। তার অধিনায়কত্বে ২০১৪ সালে এক বছরে রেকর্ড পাঁচটি টেস্ট সিরিজ জেতে কিউইরা। এ সময় হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ, পাকিস্তান, এমন কি পরাক্রমশালী ভারতকেও। জানুয়ারিতে ভারতের বিপক্ষে এবং নবেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকান ম্যাককুলাম। এ সময় প্রথম নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান হিসেবে বছরে ১ হাজারের ওপর রান পূর্ণ করেন তিনি। ডুনেডিন হিরো তাই বিশ্বকাপের আগেই নিউজিল্যান্ডের বর্ষসেরা ক্রীড়াবিদ হিসেবেও মনোনয়ন পান। ১৯৯১ সালে মার্টিন ক্রোর পর কোন ক্রিকেটারের দেশটির সেরা ক্রীড়বিদের মুকুটের মাত্র দ্বিতীয় ঘটনা এটি! ২০১৪ সালে ৯ টেস্টের ৫টিতেই জয় পায় কিউইরা- হারায় ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার মতো পরাশক্তিদের। বেসিন রিজার্ভে ভারতের বিপক্ষে প্রথম নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যান হিসেবে ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকানোর বিরল কৃতিত্ব অর্জন করেন ম্যাককুলাম। গত বছর টেস্টে ৭২ গড়ে সংগ্রহ তার মোট ১১৬৪ রান।

কেন উইলিয়ামসনও অসাধারণ সময় পার করছেন নিউজিল্যান্ডের হয়ে। ২০১৪-১৫ মৌসুমে টেস্টে ৩ সেঞ্চুরি করেছেন উইলিয়ামসন। এই সময় ক্যারিয়ার-সেরা ২৪১ রানের ইনিংসও খেলেন তিনি। ওয়ানডেতেও এই সময় তিন সেঞ্চুরি করেন উইলিয়ামসন। টি-টোয়েন্টিতেও সমান ধারাবাহিক ছিলেন উইলিয়ামসন। পাশাপশি ২০১৪-১৫ মৌসুমে বোলিংয়ে দুর্দান্ত সময় পার করা ট্রেন্ট বোল্ট ‘বোলিং বিভাগের’ বর্ষসেরা নির্বাচিত হন, যেটি ‘উনসর কাপ’ নামে পরিচিত। বিশ্বকাপে যৌথভাবে সর্বাধিক ২২ উইকেট নিয়ে দলকে ফাইনালে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান তার। দেশটির ইতিহাসে এক বিশ্বকাপে (১৯৯৯) আগের সর্বোচ্চ ২০ উইকেট নেয়া জিওফ এ্যালটকে ছাড়িয়ে গড়েন নতুন রেকর্ড। বছরের শুরুতে গৌরবময় শততম টেস্ট খেলেন বোল্ট।

নিউজিল্যান্ডের বর্ষসেরা প্রমীলা ক্রিকেটারের পুরস্কার পেয়েছেন সুইজ বেটিস। ডমেস্টিক প্রমীলা ক্রিকেটার এ্যান্ড্রু এলিস ও এ্যামি স্যাটারওয়াইট।

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫

০২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: