রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঝুলে গেল লাফার্জ ও হোলসিমের একীভূতকরণ প্রক্রিয়া

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ আবারও ঝুলে গেল সিমেন্ট খাতের দুই বৈশ্বিক জায়ান্ট ফরাসি লাফার্জ ও সুইজারল্যান্ডভিত্তিক হোলসিমের একীভূতকরণ প্রক্রিয়া। দফায় দফায় এই একীভূতকরণের প্রক্রিয়া নিয়ে জটিলতা বাড়ছে। এই কারণে বুধবারে কোম্পানিটির শেয়ারের দর কমেছে ৫০ পয়সা। সারাদিনে কোম্পানিটির মোট প্রায় ১১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

জানা গেছে, আলোচনার শুরুতে লাফার্জের প্রতিটি শেয়ারের বিপরীতে হোলসিমের একটি করে শেয়ার বিনিময়ের কথা ঘোষণা করা হলেও পরবর্তীতে হোলসিম শেয়ারহোল্ডারদের আপত্তির মুখে পর্ষদ পর্যায়ে লাফার্জের ১০টি শেয়ারের বিপরীতে হোলসিমের নয়টি শেয়ার বিনিময়ের সিদ্ধান্ত হয়। নতুন এ হারেও আপত্তি জানিয়েছেন হোলসিমের ১০ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ারধারী ফিলারেট গালচেভ। এর মধ্য দিয়ে আবারও বাধার মুখে পড়ল প্রস্তাবিত একীভূতকরণ। ইউরো সিমেন্ট হোল্ডিং এজির বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, রুশ ব্যবসায়ী ফিলারেট গালচেভ নতুন এই বিনিময় হারের প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন। তিনি মনে করছেন, শেয়ার বিনিময়ের শর্তাবলি পরিবর্তন করে হোলসিম শেয়ারহোল্ডারদের আরও সুবিধা দেয়ার সুযোগ আছে। যার কারণে সব আলোচনা শেষে আবারও কিছুটা দীর্ঘসূত্রতা দেখা দেয়। তবে হোলসিমের এজিএমেই বেশিরভাগ শেয়ারধারীর সমর্থন পেলে খুব বেশি সমস্যা না হতে পারে।

বাংলাদেশের শেয়ারবাজারে ২০০৩ সালে একমাত্র গ্রিনফিল্ড কোম্পানি হিসেবে তালিকাভুক্ত হয় লাফার্জ গ্রুপের প্রতিষ্ঠান লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড। পরবর্তীতে মেঘালয় থেকে চুনাপাথর উত্তোলন নিয়ে ভারতে আইনি জটিলতায় পড়ে কোম্পানিটি। কাঁচামালের অভাবে উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়। এতে বড় অঙ্কের পুঞ্জীভূত লোকসানে পড়ে কোম্পানি। একসময় আদালতের রায়ে পাথর উত্তোলনের অনুমোদন পেয়ে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করে তারা। ২০১২ সালে মুনাফায় ফিরে আসে কোম্পানি। তবে বড় অঙ্কের পুঞ্জীভূত লোকসান থাকায় ২০১৩ সাল পর্যন্ত কোনো লভ্যাংশ পাননি শেয়ারহোল্ডাররা।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির পর প্রথমবারের মতো লভ্যাংশ দিচ্ছে লাফার্জ সুরমা। সম্প্রতি কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য ৫ শতাংশ চূড়ান্ত নগদ লভ্যাংশ সুপারিশ করেছে। এর আগে একই হিসাব বছরে ৫ শতাংশ অন্তর্বর্তী লভ্যাংশ দেয় কোম্পানিটি। ২০১৪ সালের জন্য সব মিলিয়ে ১০ শতাংশ পেতে যাচ্ছেন লাফার্জ সুরমা শেয়ারহোল্ডাররা। সুপারিশকৃত এ লভ্যাংশ বিতরণ শেষে ডিএসইতে প্রথমবারের মতো ‘এ’ ক্যাটাগরিতে উন্নীত হতে যাচ্ছে কোম্পানিটি।

প্রকাশিত : ২ এপ্রিল ২০১৫

০২/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: