মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সম্পাদক সমীপে

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫
  • বৃক্ষপ্রেম

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে কত কিছুই না দেখি। এই যেমন এই ছবিটা। বৃক্ষের প্রতি মানুষের অদ্ভুদ ভালবাসা নতুন করে প্রমাণ করে। প্রথম দেখায় মনে হয়েছিল ছবিটি বুঝি তথ্য প্রযুক্তির কোান কারসাজি! না, খুব ভাল করে ছবিটি আবার দেখলাম। বিস্ময়কর ব্যাপার। একটা গাছকে বাঁচাতে গিয়ে বাড়ির মালিক কত নিঃস্বার্থ ভালবাসার প্রমাণ দিয়েছেন। গাছটিকে অক্ষত রেখে, এর সৌন্দর্য অটুট রেখে বাড়িটি নির্মাণ করেছেন। গাছের স্বাভাবিক বৃদ্ধি অক্ষণœ রেখে বাড়ির মালিক জায়গা ছেড়ে দিয়েছেন। এই নগরে গাছের প্রতি এরকম ভালবাসা সত্যি সত্যি মানুষকে বিস্মিত করে।

গাছ আমাদের বন্ধু। বেঁচে থাকার জন্য গাছ নানাভাবে আমাদের সহযোগিতা করে। ফুল, ফল, আসবাবপত্র এবং জ্বালানি দিয়ে আমাদের প্রতিদিনের জীবনের চাহিদা পূরণ করে গাছ। কোন কোন গাছের রয়েছে ভেষজ গুণ। গাছ নানাভাবে আমাদের জীবনকে পরিপূর্ণ করে তোলে। বিনিময়ে আমরা গাছকে কি দেই? নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন করে এর প্রতিকার আমরা দিচ্ছি।

ছবির বাড়িটির মধ্যে যে গাছটিকে দেখছি তা থেকে আমরা কি গাছের প্রতি আরও দয়ার্দ্র হয়ে উঠতে পারি না?

নাজনীন বেগম

আসাদ এ্যাভিনিউ, ঢাকা।

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫

০১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: