হালকা কুয়াশা, তাপমাত্রা ১৮.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

আজ কামারুজ্জামানের মৃত্যুদ-ের রিভিউ শুনানি

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫
  • আসামিপক্ষের চার সপ্তাহ মুলতবীর আবেদন

আরাফাত মুন্না ॥ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াত নেতা মোহাম্মদ কামারুজ্জামানকে ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদ- বহাল রেখে সুপ্রীমকোর্টের দেয়া রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন শুনানির জন্য সুপ্রীমকোর্টের আপীল বিভাগের কার্যতালিকায় এসেছে। সুপ্রীমকোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত আপীল বিভাগের ১ নম্বর বেঞ্চের বুধবারের কার্যতালিকার ৪ নম্বরে শুনানির জন্য রয়েছে এ আবেদনটি। রাষ্ট্রপক্ষ আশা করছে, খুব দ্রুতই এ আবেদনের নিষ্পত্তি হবে। তবে রাষ্ট্রপক্ষ দ্রুত নিষ্পত্তির আশা প্রকাশ করলেও আসামিপক্ষ আরও চার সপ্তাহ শুনানি মুলতবি রাখার আর্জি জানিয়ে একটি আবেদন দাখিল করেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে, বসন্তকালীন অবকাশ শেষে আজ বুধবার খুলছে সুপ্রীমকোর্ট। গত ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত টানা ১৫ দিন সুপ্রীমকোর্টের হাইকোর্ট ও আপীল বিভাগে এ অবকাশ চলে। তবে উভয় বিভাগেই জরুরী বিষয়াদি শুনানির জন্য ছিল অবকাশকালীন বেঞ্চ। আজ সুপ্রীমকোর্ট খোলার পর কামারুজ্জামানের রিভিউ আবেদন ও নিখোঁজ বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদকে খুঁজে বের করা সংক্রান্ত রুল শুনানিসহ মুলতবি থাকা অনেক গুরুত্বপূর্ণ মামলার শুনানি আবারও শুরু হবে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বাধীন আপীল বিভাগের চার বিচারপতির আপীল বেঞ্চে শুনানি হবে কামারুজ্জামানের রিভিউ আবেদনটি। এ বেঞ্চের অন্য তিন বিচারপতি হলেনÑ বিচারপতি মোঃ আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক। এর আগে গত ৯ মার্চ কামারুজ্জামানের আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেনের ব্যক্তিগত সমস্যার কারণে রিভিউ আবেদন শুনানি মুলতবি করা হয়েছিল। ওইদিন শুনানির জন্য ১ এপ্রিল দিন ধার্য করেছিলেন আদালত। আপীল বিভাগের এ বেঞ্চেই কামারুজ্জামানকে ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদ- বহাল রেখে রায় দিয়েছিলেন।

এর আগে কাদের মোল্লার রিভিউ সংক্রান্ত রায়ে এ সব আবেদন অগ্রধিকার ভিত্তিতে শুনানি কথা বলা হয়েছে। তবে কামারুজ্জামানের রিভিউ আবেদনের শুনানির ক্ষেত্রে তার আইনজীবীর ব্যক্তিগত সমস্যাই অগ্রধিকার পেয়েছে বলেই মনে করছেন অনেকে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক আইনজীবী বলেন, ওইদিন কামারুজ্জামানের আইনজীবীর সমস্যার কারণে শুনানি শুরু হয়নি। তারা আবারও সময় আবেদন করেছে। এখন শুনানির শুরু হওয়া বা মুলতবি হওয়া দুটোই নির্ভর করছে আদালতের ওপর।

এ বিষয়ে এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম জনকণ্ঠকে বলেন, আমরা আশা করছি খুব দ্রুত কামারুজ্জামানের এ রিভিউ আবেদনটি নিষ্পত্তি হবে। আসামিপক্ষের আবারও সময় আবেদনের বিষয়ে তিনি বলেন, তারা নানা ধরনের তালবাহানা করে যাচ্ছে বিচার প্রক্রিয়া বিঘœ ঘটানোর চেষ্টা চালাচ্ছে, আমরা এ সময় আবেদনের বিষয়ে আদালতে কঠোর আপত্তি জানাব।

এ বিষয়ে কামারুজ্জামানের আইনজীবী এ্যাডভোকেট শিশির মোঃ মুনির বলেন, আমরা এখনও শুনানির জন্য প্রস্তুত না। তাই শুনানি চার সপ্তাহ মুলতবি রাখার আর্জি জানিয়ে আমরা আপীল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় একটি আবেদন দায়ের করেছি।

গত বছরের ৩ নবেম্বর আপীল বিভাগের এ বেঞ্চই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া ফাঁসির রায় বহাল রাখেন। ২০১৩ সালের ৯ মে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল কামারুজ্জামানকে সর্বোচ্চ সাজার আদেশ দেন। একাত্তরে ময়মনসিংহের আল বদর নেতা কামারুজ্জামানের ফাঁসির রায় এসেছে শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলার সোহাগপুরে ১২০ জন পুরুষকে ধরে নিয়ে হত্যার দায়ে। জামায়াতে ইসলামীর আজকের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মোহাম্মদ কামারুজ্জামান হলেন দ্বিতীয় ব্যক্তি, যার সর্বোচ্চ সাজার রায় কার্যকরের আগে রিভিউয়ের পর্যায়ে এসেছে।

সালাহউদ্দিনকে উদ্ধারের বিষয়ে রুল শুনানি ৮ এপ্রিল ॥ বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন আহমেদের খোঁজে হাইকোর্টের জারি করা রুল শুনানির জন্য আগামী ৮ এপ্রিল দিন ধার্য্য রয়েছে। সুপ্রীমকোর্টের বসন্তকালীন অবকাশ শুরুর আগের দিন গত ১৬ মার্চ বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুলের ওপর চলমান শুনানি মুলতবি করে ৮ এপ্রিল দিন ধার্য করেন।

সালাহউদ্দিনের পরিবারের অভিযোগ, গত ১০ মার্চ রাতে উত্তরার একটি বাসা থেকে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহউদ্দিনকে তুলে নিয়ে গেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। তবে সরকার বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিষয়টি স্বীকার করেনি।

প্রকাশিত : ১ এপ্রিল ২০১৫

০১/০৪/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: