কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ার বোলিং বিশ্বসেরা ॥ ম্যাকডারমট

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫
অস্ট্রেলিয়ার বোলিং বিশ্বসেরা ॥ ম্যাকডারমট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এবার ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে দুর্দান্ত বোলিং দেখিয়েছে আয়োজকরা। বিশেষ করে পেস বিভাগে শক্তির গভীরতা বিশ্বকে জানিয়ে দিয়েছে। গ্লেন ম্যাকগ্রা, জেমস গিলেস্পি ও ব্রেট লিদের বিদায়ের পর এখন নতুন দিনের কা-ারি হিসেবে অসি শিবিরে গতি তারকা হিসেবে আছেন মিচেল স্টার্ক, মিচেল জনসনরা। এ দু’জনের পাশাপাশি জশ হ্যাজলউড, প্যাট কামিন্সরাও আছেন। পেসবান্ধব উইকেটে প্রতিপক্ষদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছিলেন তারা। দলের বোলিং বিভাগকে আবার পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে এবং ভয়ঙ্কর হিসেবে উপস্থাপন করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন দেশটির সাবেক পেসার ক্রেইগ ম্যাকডারমট। বিশ্বকাপে উত্তরসূরিদের বোলিং নৈপুণ্যে সন্তুষ্ট হয়ে তিনি ঘোষণা দিয়েছেন ওয়ানডে ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার বোলিং বিভাগই বিশ্বসেরা। ব্যাটিং-বোলিং ও ফিল্ডিংয়ে দারুণ গোছানো দল হিসেবে কখনই অসিরা বিশ্বকাপ জিততে পারবে না বলে মনে হয়নি ম্যাকডারমটের। অনেক আগেই তিনি নিশ্চিত ছিলেন চার বছর আগে যে কারণে ভারতীয় দল ঘরের মাটিতে বিশ্বকাপ জিতেছে তারচেয়েও অনেক বেশি কারণ আছে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ জয়ের। অস্ট্রেলিয়া দলের বোলিং কোচ ম্যাকডারমট এক সাক্ষাতকারে বলেছেন-

প্রশ্ন ॥ সার্বিকভাবে দলের বোলিংটাকে আপনি কিভাবে বর্ণনা করবেন?

ম্যাকডারমট ॥ আমরা পুরো গ্রীষ্মে যেমন বোলিং করেছি সেটাকে বিশ্বসেরা হিসেবেই বিবেচনা করছি। বোলারদের জন্য তেমন সুবিধার না হলেও সিডনিতে দুর্দান্ত বোলিং করে নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন আমাদের বোলিং বিভাগ। প্রধান চার পেসার তাদের দায়িত্বটা সামনে থেকেই পালন করেছেন। আবার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে যখন প্রয়োজনে ব্যবহার করা হয়েছে তিনি কার্যকর ভূমিকা রেখেছেন। ওয়ানডে ক্রিকেটে আমাদের বোলিং বিভাগই বিশ্বসেরা।

প্রশ্ন ॥ গত কয়েক বছরে মিচেল স্টার্ক সবচেয়ে বেশি উন্নতি করেছেন বলে মনে করেন?

ম্যাকডারমট ॥ স্টার্ক এবং হ্যাজলউড উভয় বোলারই খুব দ্রুত উন্নতি করেছে। আমার মনে হয় দু’জনই বেশ মানিয়ে নিয়েছেন ক্রিকেটের সব ফরমেটের সঙ্গে। টেস্ট ক্রিকেটেও তারা প্রায় সমানভাবে কার্যকর। তারা শুধু বলকে সুইং করাতে সক্ষম বিষয়টি এমন নয়, এর পাশাপাশি খুব ভাল লাইন ও লেন্থ ধরে রাখতে পারেন।

প্রশ্ন ॥ কামিন্স যথেষ্ট ভাল করছেন, কিন্তু তাকে দলে নিয়মিত করা যাচ্ছে না। এ বিষয়টা কিভাবে দেখছেন?

ম্যাকডারমট ॥ কামিন্স খুবই মেধাবী এক তরুণ বোলার। জেমস ফকনারও অনেক ভাল বোলিং করছেন। আর এসব কারণে এখন আমাদের শেন ওয়াটসনকে বেশি ব্যবহার করতে হচ্ছে না। আমরা দল নির্বাচন নিয়ে যে মাথাব্যথায় ভুগি সেটা বেশ আনন্দেরই বিষয়। কিন্তু সবসময়ই আমরা সেরা একাদশ গঠন করেই নামতে চাই।

প্রশ্ন ॥ দলে তিনজন নির্ভরযোগ্য বাঁহাতি পেসার। কখনও কী এটা একটু সমস্যা করতে পারে?

ম্যাকডারমট ॥ একটা বিষয় জনসন, স্টার্ক ও ফকনারের মধ্যে সাদৃশ্যপূর্ণ যে তারা তিনজনই বাঁহাতি। কিন্তু আমি বলতে চাই তারা সবাই পরস্পরের চেয়ে ব্যতিক্রমধর্মী বোলার। জনসন প্রথম বদলি হিসেবে খুবই কার্যকর। তিনি দারুণ গতিতে শর্ট বলগুলো কার্যকর করে তুলতে পারেন। স্টার্ক নতুন বলে দারুণ সুইং করাতে সক্ষম এবং দুর্দান্ত গতির কারণে প্রতিপক্ষের দুশ্চিন্তা হয়ে ওঠেন। আর ফকনারের বোলিংয়ে আছে প্রচুর বৈচিত্র্য। সে কারণে ডেথওভারে তিনি খুবই কার্যকর।

প্রশ্ন ॥ এখন কী অস্ট্রেলিয়া সার্বিকভাবেই সামঞ্জস্যপূর্ণ একটি দলে পরিণত হতে পেরেছে?

ম্যাকডারমট ॥ আমাদের বোলিং নিয়ে তো যা বলার বলেছি। সেটা যে বিশ্বসেরা এবার বিশ্বকাপে সবাই বুঝতে পেরেছেন। সত্যিই সেটা শীর্ষ পর্যায়ে রয়েছে। আমাদের দলের ব্যাটিং লাইনআপ বেশ গভীর। দলের ফিল্ডিংও যথেষ্ট ভাল। এ কারণে আমি চার বছর আগে ভারত যা করেছে এবার অস্ট্রেলিয়া কেন পারবে না সে কারণ খুঁজে পাইনি। শেষ পর্যন্ত তাই হলো। ঘরের মাটিতে আমরা বিশ্বকাপ জিতলাম।

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫

৩১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: