মূলত মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.৮ °C
 
২১ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ৯ ফাল্গুন ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

লড়াই ছড়িয়ে পড়েছে এডেনে

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫
  • ইয়েমেনের রাজধানী সানায় অবিরাম বিমান হামলা

হুতি বিদ্রোহীদের অবস্থানের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের পঞ্চম রাতের মতো বিমান হামলা সত্ত্বেও হুতিদের দক্ষিণমুখী অগ্রাভিযানের প্রেক্ষাপটে ইয়েমেনের উপকূলীয় নগরী এডেনে প্রচ- লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। হুতিরা নগরীর উত্তরদিকের প্রবেশদ্বারের দিকে অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করলে রবিবার এডেনের দার সাআদ অঞ্চলে প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর হাদির প্রতি অনুগত যোদ্ধাদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এদিকে যুদ্ধবিমানগুলো রবিবার রাতভর ও সোমবার সকালে ইয়েমেনের রাজধানী সানায় আঘাত হেনেছে। খবর আল জাজিরা, এএফপি ও ইয়াহু নিউজের।

হাদি অনুগত সৈন্যরা আল জাজিরাকে জানায়, তারা এডেনের বিমানবন্দর পুনর্দখল করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে বিমানবন্দরটি কয়েকবার হাতবদল হয়েছে। এডেনের মধ্য অঞ্চলে প্রচ- বন্দুকযুদ্ধ সংঘটিত হয়। সাম্প্রতিক দিনগুলোতে এডেনে সহিংসতায় প্রায় এক শ’ জনের মৃত্যু হয়েছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন বাহিনী রাজধানী সানায় রবিবার পঞ্চম দিনের মতো বিমান হামলা চালিয়েছে। নগরীর এক বাসিন্দা বলেন, প্রধানত রাজধানীর কূটনীতিকপাড়ার আশপাশের এলাকা লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়। এছাড়া প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও স্বপক্ষ ত্যাগী সৈন্যদের একটি ঘাঁটিতেও বোমা হামলার খবর পাওয়া গেছে। এক ইয়েমেনী কূটনীতিক জানান, এটা ছিল এক নারকীয় রাত। নগরীর অদূরে পাহাড়ে খননকৃত সুড়ঙ্গের মধ্যে রাখা অস্ত্রশস্ত্রের ভা-ার লক্ষ্য করেও বিমান হামলা চালানো হয়।

আরব নেতারা অঙ্গীকার করেছেন, ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা আত্মসমর্পণ না করা পর্যন্ত তাদের ওপর অব্যাহতভাবে আঘাত হানা হবে। জাতিসংঘের কর্মচারীদের অপসারণের কয়েক ঘণ্টা পর দেশের প্রধান বিমানবন্দরের ওপর হামলা চালানো হলো। ভারত এবং পাকিস্তানও চরম বিশৃঙ্খল দেশটি থেকে বিমানযোগে তাদের নাগরিকদের সরিয়ে নেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। হুতি শিয়া বিদ্রোহীরা পরাস্ত না হওয়া পর্যন্ত বোমা হামলা চালিয়ে যাওয়ার জন্য তার আরব মিত্রদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট হাদি। হাদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ ইয়াসিন বলেন, যতক্ষণ না বৈধ সরকার সকল ইয়েমেনী ভূখ-ের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করছে ততদিন বিদ্রোহীদের সঙ্গে কোন আলোচনা এবং সংলাপ হতে পারে না। আরব লীগ প্রধান নাবিল আল আরাবি মিসরে এক আঞ্চলিক শীর্ষ সম্মেলনে বলেন, বিদ্রোহীদের অস্ত্র ‘সমর্পণ’ এবং তাদের দখল করা ভূখ- থেকে সরে না যাওয়া পর্যন্ত হামলা অব্যাহত থাকবে।

ইয়েমেনের শাবওয়া প্রদেশেও প্রচ- লড়াইয়ের খবর পাওয়া গেছে। বাইহানের স্থানীয় উপজাতীয় সদস্যরা বলেছে, সেখানে লড়াইয়ে অন্তত ৪০ হুতি যোদ্ধা নিহত হয়েছে। এদিকে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল-জুবায়ের বলেছেন, দেশটি ইয়েমেন স্থলবাহিনী পাঠাবে কিনা সে ব্যাপারে বিভিন্ন পথ খোলা রাখা হয়েছে। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের সর্বশেষ বিমান হামলায় উত্তরের সাআদায় হুতিদের প্রধান শক্তঘাঁটিকে লক্ষ্যবস্তু করা হয়। এছাড়া গোলাবারুদের ডিপো ও বিভিন্ন বিমানবন্দর লক্ষ্য করেও হামলা চালানো হয়। রবিবার হুতি লক্ষ্যবস্তুর ওপর বোমা হামলাকারী আরব জোটের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমদ আসিরি বলেন, জোটভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র, গোলন্দাজ বাহিনী, বিমানবিধ্বংসী ব্যাটারিসহ হুতিদের আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার ওপর হামলা চালাচ্ছে।

প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০১৫

৩১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: