আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান গাপটিলের

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫
বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান গাপটিলের
  • মাহমুদুল্লাহ নয় নম্বরে

জাহিদুল আলম জয় ॥ ‘বিশ্বকাপ না জিতলে সবই বৃথা।’ ফাইনালে হারের পর হয়ত এমনই বলেছেন নিউজিল্যান্ডের ওপেনার মার্টিন গাপটিল। রবিবার বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে নাকানিচুবানি খেয়েছে কিউইরা। ফলে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন ধূলিসাত হয়েছে নিউজিল্যান্ডের। এর মাঝেও সান্ত¡না দলটির তারকা ব্যাটসম্যান গাপটিল এবারের বিশ্বকাপে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের গৌরবে ভেসেছেন। তবে ফাইনালে হারের কারণে অর্জনটা উপভোগ করতে পারেননি ৩০ বছর বয়সী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

গোটা দলের মতো গাপটিল নিজেও ফাইনালে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হন। তবে ১৫ রান করে আউট হলেও শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারাকে পেছনে ফেলে একাদশতম বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানের মালিক হয়েছেন কিউই ওপেনার। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ১৫ রান করার পথে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের বলে বোল্ড হন বিশ্বকাপের ইতিহাসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের মালিক গাপটিল। গত ২১ মার্চ ওয়েলিংটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে ২৩৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। নয় ম্যাচে ৬৮.৩৭ গড়ে সর্বোচ্চ ৫৪৭ রান করেন গাপটিল। এই রান করতে তিনি খেলেন দুটি শতক ও একটি অর্ধশতকের ইনিংস।

রান সংগ্রাহকদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছেন শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারা। দল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নিলেও সাঙ্গাকারা ছিলেন ব্যাট হাতে অপ্রতিরোধ্য। ৭ ম্যাচে ১০৮.২০ গড়ে ৫৪১ রান করেন তিনি। এই রান করার পথে ওয়ানডে ও বিশ্বকাপের ইতিহাসে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে টানা চার ম্যাচে শতক করার কীর্তি গড়েন সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক। ছয় রান বেশি করে গাপটিল সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হলেও তিনি খেলেছেন দুই ম্যাচ বেশি।

তৃতীয় স্থানে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স করেছেন ৮ ম্যাচে ৪৮২ রান। ৪৩৩ রান করে জিম্বাবুইয়ের ব্রেন্ডন টেইলর চতুর্থ ও ৪১২ রান করে ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ানের অবস্থান পাঁচ নম্বরে। বিশ্বকাপের মধ্য দিয়ে তারকা বনে যাওয়া বাংলাদেশের মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অবস্থান সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় নয় নম্বরে। টাইগার ব্যাটসম্যান টানা দুই ম্যাচে শতক হাঁকিয়ে ছয় ইনিংসে করেন ৩৬৫ রান। এর মধ্যে একটি অর্ধশতকের ইনিংসও আছে। ৭৩ গড়ে রান করেন মাহমুদুল্লাহ।

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হওয়া এবারের বিশ্বকাপে হয়েছে রেকর্ড ভাঙ্গা-গড়ার খেলা। বিশেষ করে ব্যাটসম্যানরা ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। চার-ছক্কার ফুলঝুরি ছুটিয়ে আজ একজন গড়ছেন অনন্য কীর্তি, তো কালই তাকে ছাড়িয়ে যাচ্ছেন অন্য কেউ। গাপটিলের অবিশ্বাস্য ব্যাটিং কা-ের মধ্য দিয়ে সেটা আরেকবার প্রমাণ হয়। গ্রুপ পর্বে জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে ২১৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। সেটি ছিল বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি ও ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস। এরপর ওয়েলিংটনে গেইলকে ছাড়িয়ে যান গাপটিল। গড়েন বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রানের নতুন রেকর্ড। ১৬৩ বলে ২৪ চার ও ১১ ছক্কায় ২৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন কিউই ওপেনার। বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ও ওয়ানডে ইতিহাসের মাত্র ষষ্ঠ ডাবল সেঞ্চুরি এটি।

মূলত বিস্ফোরক এই ইনিংসটির কল্যাণেই বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানের মালিক বনে যান গাপটিল। তবে বিশ্বকাপ জিততে না পারায় হতাশ ব্ল্যাক ক্যাপস তারকা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, শুরু থেকেই আমরা সংঘবদ্ধ ছিলাম। দল অসাধারণ খেলেছে। এ কারণে ফাইনালে জয়ের বিষয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। কিন্তু সেটা হয়নি, এ কারণে আমার অর্জনটাও খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ নয়। অবশ্য অস্ট্রেলিয়া যোগ্যতর দল হিসেবেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫

৩০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: