কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

বিক্ষোভে উত্তাল যবিপ্রবি

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫
  • ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ, ভিসি প্রত্যাহার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ উপাচার্যের প্রত্যাহারসহ বিভিন্ন দাবিতে চলমান বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) ক্যাম্পাস। গত দুই দিনে ছাত্রলীগের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসে দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। এতে ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। দুপুরে প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে উপচার্য প্রফেসর ড. আবদুস সাত্তারের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তাঁকে প্রত্যাহার দাবি করা হয়েছে। দাবি না আদায় হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়া হয়। এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় রবিবার সন্ধ্যায় জেলা পুলিশ সুপার ও জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সভায় মিলিত হতে যাচ্ছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যবিপ্রবি জনসংযোগ দফতরের সহকারী পরিচালক হায়াতুজ্জামান মুকুল।

সূত্রমতে, যবিপ্রবি ক্যাম্পাসে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ হলেও গত বছর ১৬ মে সুব্রত বিশ্বাসকে সভাপতি ও এসএম শামীম হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি গঠন হয়। এ নিয়ে অন্তর্কোন্দলে জড়িয়ে পড়ে ছাত্রলীগ। এর জের ধরে গত বছর ১৪ জুলাই খুন হন ছাত্র নাইমুল ইসলাম রিয়াদ। এ ঘটনায় ১৩ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে স্থায়ী বহিষ্কার করে যবিপ্রবি প্রশাসন। এছাড়া পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের প্রথমবর্ষের ছাত্র ফয়সাল তানভীর দুই বছর ও শারীরিক শিক্ষা বিভাগের ছাত্র আজিজুল ইসলামকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়। এর মধ্যে চলতি বছরের ২৪ মার্চ যবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জামিনে মুক্তি পান। এর তিন দিন পর ২৮ মার্চ তাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার দাবি করে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ করে ছাত্রলীগ। আর বিক্ষোভ মিছিল করায় এ দিন তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ ছাত্রকে বহিষ্কার করা হয়। গণমাধ্যমে এ খবর প্রকাশ হলে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন শিক্ষার্থীরা। ছাত্রলীগের ব্যানারে তাঁরা রবিবার সকাল থেকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পরে তাঁরা প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করেন। এতে লিখিত বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি ও জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থবর্ষের ছাত্র শেখ শাকিল আহমেদ লিখিত বক্তব্যে উপাচার্যের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ করে তাঁকে প্রত্যাহারের দাবি জানান। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যাবেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেনÑ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সাব্বির আহমেদ, শফিকুল ইসলাম, ফয়সাল আহমেদ, হেলাল উদ্দিন, শিমুল আল হেলাল প্রমুখ।

প্রকাশিত : ৩০ মার্চ ২০১৫

৩০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: