কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চাঁদাবাজির জের ॥ বাঘায় আওয়ামী লীগ-যুবলীগ সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদা দাবির জের ধরে রাজশাহীর বাঘায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া এবং গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে দু’জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলা চত্বরের সামনে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস ও উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি তসিকুল ইসলামের সমর্থকদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে বাঘা উপজেলা চত্বরের সামনে মানববন্ধন করেছে ব্যবসায়ীরা। মানববন্ধনে যুবলীগ নেতা তসিকুল ইসলামকে চাঁদাবাজ আখ্যা দিয়ে দ্রুত তাকে গ্রেফতারের দাবি জানান বাঘার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সিএনজি চালিত অটোরিক্সাযোগে বাড়ি ফিরছিলেন স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বাঘা পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুসের সমর্থক আমির হোসেন। উপজেলা চত্বরের সামনে যুবলীগ নেতা তসিকুল ইসলাম ও তার লোকজন আমির হোসেনের অটোরিক্সার গতিরোধ করে তার কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। পৌরসভা আওয়ামী লীগের সদস্য আমির হোসেন চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে তসিকুল ইসলামের লোকজন তাকে ধরে মারপিট করে। এ সময় আব্দুল কুদ্দুসের আরেক সমর্থক ও পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহসভাপতি লাল চান আমির হোসনকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে তাকেও মারপিট করা হয়।

খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে আব্দুল কুদ্দুসের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া হয়। এ সময় কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ শোনা যায়। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও গোলাগুলিতে উভয়পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে শামীম ও রতন গুলিতে এবং সাইফুল, শাহীন, নান্নু ও ফরহাদ ইটের আঘাতে আহত হয়েছেন। রাতেই তাদের বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কয়েক রাউন্ড রাবাব বুলেট ছুড়ে উভয়পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। এ ঘটনায় শনিবার দুপুর পর্যন্ত থাকায় কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি। তবে অভিযোগ পাওয়া গেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি।

প্রকাশিত : ২৯ মার্চ ২০১৫

২৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: