কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

তিকরিতে শিয়া মিলিশিয়াদের আইএসবিরোধী যুদ্ধ বয়কট

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫
  • মার্কিন বিমান হামলার প্রতিবাদ

ইরাকের তিকরিত শহরে লুকিয়ে থাকা ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গীদের ওপর মার্কিন বিমান হামলা তিকরিত অভিযানের জন্য একাধিক সঙ্কট ডেকে এনেছে : হাজার হাজার শিয়া মিলিশিয়া মার্কিন হামলার প্রতিবাদে আইএসবিরোধী লড়াই বয়কট করেছে; অন্যরা যে কোন আমেরিকানকেই দেখা মাত্রই হত্যার হুমকি দিয়েছে এবং ইরাকি কর্মকর্তারা জানান, বিমান হামলা দুর্ঘটনাবশত তাদের নয়? যোদ্ধা নিহত হয়েছে।

মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনীর যুদ্ধ বিমানগুলো বৃহস্পতিবার তিকরিত রণাঙ্গনের আশপাশে আইএসের অবস্থানগুলোর ওপর আঘাত আনা অব্যাহত রাখে। বুধবার এ হামলা শুরু হয় খবর সিএনএন ও নিউইয়র্ক টাইমস অনলাইনের।

ওয়াশিংটনে আমেরিকার সামরিক নেতারা জোর দিয়ে বলেছেন, পরিকল্পনা মাফিক সবকিছু চলছে। তারা জানান, ইরানী ও মিলিশিয়া নেতৃত্বাধীন বাহিনীর তিকরিত অভিযান তিন সপ্তাহ পর অচল হয়ে পড়ার পরই কেবল তারা তিকরিত লড়াই জোরদার করেছেন। তারা আরও বলেন, তারা কেবল ইরাকী সরকারী বাহিনীর সঙ্গেই ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে চান। ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান জেনারেল লয়েড অস্টিন তিকরিতে আর কোন শিয়া মিলিশিয়া নেই বলে বৃহস্পতিবার সিনেটের এক শুনানিতে জানান। ইরানী নেতৃত্বাধীন শিয়া মিলিশিয়াদের প্রত্যাহার তিকরিতে আইএসবিরোধী লড়াইয়ে আমেরিকানদের যোগ দেয়ার অন্যতম শর্ত ছিল। কিন্তু তিনটি বড় দলের আকস্মিক রণাঙ্গন ত্যাগের ফলে, বিশেষত অন্য শিয়া মিলিশিয়ারও যুদ্ধক্ষেত্র ত্যাগ করলে ইরাকী স্থল সৈন্যরা সংখ্যায় কম হয়ে পড়বে বলে ঝুঁকি রয়েছে। তিনটি মিলিশিয়া দল আসাই তাহল আল-হক, দর অর্গেনাইজেশন ও নুড়াবা ব্রিগেড আমেরিকান বিমান হামলার প্রতিবাদে তিকরিতের লড়াই থেকে সরে দাঁড়ায়। তারা জোর দিয়ে বলেছে, তিকরিতের চরমপন্থীদের পরাজিত করতে আমেরিকানদের সহায়তার প্রয়োজন নেই। এ দলগুলোর কোন কোনটিতে ইরান উপদেষ্টারা ছিলেন।

মিলিশিয়াদের খুবই বেশি সংখ্যায় বা আকস্মিক প্রত্যাহারে আইএসের বিরুদ্ধে ইরাকের পাল্টা অভিযান দুরূহ হয়ে পড়তে পারে।

বিশ্লেষকরা একথা বলেন। আর কর্মকর্তারা বলেন, এমন কি সঙ্গে থাকা মিলিশিয়াদের নিয়েও বর্তমান সরকারপক্ষী বাহিনী আইএসের কাছ থেকে শেষ পর্যন্ত মসুল পুনর্দখলে সহায়তা করার ক্ষেত্রে যথেষ্ট বড় বলে প্রতিপন্ন হবে না। পেন্টাগণের কর্মকর্তারা দৃশ্যত মনে করেন, ইরানী সহায়তা ছাড়া এমন তিকরিত পুনর্দখল করাও সহজ হবে না।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫

২৮/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: