রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পাবনার ঢালারচর আবারও অশান্ত হচ্ছে

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫
  • চরমপন্থীরা দখলে নিয়েছে

নিজস্ব সংবাদাতা, পাবনা, ২৭ মার্চ ॥ দেশের বহুল আলোচিত একদা চরমপস্থী অধ্যুষিত ঢালারচর আবার অশান্ত হচ্ছে। ৩ পুলিশ হত্যার পর পূর্ব বাংলা সর্বহারা পার্টি প্রশাসনিক অভিযানের মুখে এলাকা ছাড়লেও প্রতিপক্ষ চরমপন্থী সংগঠন পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টি এমএল লাল পতাকা ঢালারচরের দখল নিয়েছে। ইতোমধ্যে খোদ পুলিশ ফাঁড়িসহ মিরপুর, মালদা, চমরপুরহাট ও পাড়ায় পাড়ায় লাল পতাকার ব্যাপক পোস্টারিং করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাধারণ মানুষ ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে।

এলাকাবাসী জানিয়েছে, ৪ দলীয় জোট আমলে পূর্ব বাংলা সর্বহারা পার্টি ওরফে বলশেভিক পুনর্গঠন কমিটি ঢালারচরে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে। সে সময় এদের প্রভাবে মিরপুর গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে লাল পতাকা নেতা জুলহাস এলাকা ছেড়ে রাজবাড়িতে আশ্রয় নেয়। ২০১০ সালের ফেব্রুয়ারিতে পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টি ১ এসআইসহ ৩ পুলিশ সদস্যকে গুলি করে হত্যা করে। এরপর পুলিশ প্রশাসনের অভিযানের মুখে সর্বহারারা এলাকা ছেড়ে চলে যায়। সাধারণ মানুষ ৩ বছর শান্তিতে থাকলেও দীর্ঘ ১০ বছর পর লালপতাকা নেতা জুলহাস এলাকায় ফিরে লাল পতাকা সংগঠিত করে। সাম্প্রতিককালে লালপতাকা খোদ পুলিশ ফাঁড়িসহ পাড়ায় পাড়ায় লালপতাকার পক্ষে ব্যাপক পোস্টারিং করেছে। পোস্টারে আওয়ামী লীগের দালালদের উৎখাতের হুঁশিয়ারী জানানো হয়েছে। শুধু পোস্টারিং নয়, প্রায় রাতেই সশস্ত্র মহড়া দেয়া হচ্ছে। ওই লালপতাকা নেতা ঢালারচরের নিকটবর্তী রাজবাড়ি জেলার রামচন্দ্রপুরের ৩শ’ ৪৫ বিঘা জমির রেকর্ড বিপক্ষীয় পার্টিকে দখল দিতে সিকি ভাগ চুক্তিতে অগ্রসর হচ্ছে বলে এলাকার একাধিক সূত্র জানিয়েছেন। লালপতাকা নেতা জুলহাস অস্ত্র মামলায় ১৪ বছরের সাজা হওয়ায় তিনি ৩ বছর জেল খেটে উচ্চ আদালত থেকে জামিন পান। এলাকার এক প্রভাবশালী নেতার আশ্রয়ে তিনি ঢালারচরে অবস্থান করে লালপতাকার নামে বিভিন্ন কর্মকা- পরিচালনা করছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এ বিষয়ে এএসপি বেড়া সার্কেলের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি লালপাতকার পোস্টারিং সম্পর্কে কিছু জানেন না বলে জানান। এ বিষয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছি বলেও তিনি জানান। ঢালারচর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আব্দুল হামিদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমি এক সপ্তাহ হলো যোগদান করেছি, চরমপন্থীদের সংগঠিত হওয়ার খবর জানা নেই। এ বিষয়ে পুলিশী অভিযানের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫

২৮/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: