মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

ধ্বংস নয় শান্তি

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫

ধ্বংস ও জঙ্গীবাদী কর্মকাণ্ড নয়, বাংলাদেশ শান্তি ও উন্নয়নের রোল মডেল হয়ে উঠবে। সে লক্ষ্যেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে- এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে স্ব-স্ব ক্ষেত্রে গৌরবোজ্জ¦ল ও অনন্য অবদানের জন্য সাতজন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে স্বাধীনতা পদক ২০১৫ প্রদানকালে তিনি এই আশা ব্যক্ত করেন। এ বছর যাঁরা এই পদক পেয়েছেন তাঁরা হলেন মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনায় বিশেষ ভূমিকার জন্য কমান্ড্যান্ট মানিক চৌধুরী (মরণোত্তর), ১৯৭১ সালে রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি শহীদ মামুন মাহমুদ (মরণোত্তর), ১৯৭১ সালে ওয়াশিংটনে পাকিস্তান দূতাবাসে কর্মকালে বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ ও মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে জনমত গঠনকারী সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া, (মরণোত্তর), সাহিত্যে বিশিষ্ট সাহিত্যিক অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, শিল্প সংস্কৃতি ক্ষেত্রে অভিনেতা আবদুর রাজ্জাক, গবেষণা ও প্রশিক্ষণে কৃষি বিশেষজ্ঞ ড. মোহাম্মদ হোসেইন ম-ল এবং সাংবাদিকতায় প্রখ্যাত সাংবাদিক সন্তোষগুপ্ত (মরণোত্তর)। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে এশিয়ার একটি শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, আমরা চাই বাংলাদেশ বিশ্বমঞ্চে মর্যাদাশীল আসনে আসীন হবে।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটের অংশ না নেয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কেউ রাজনৈতিকভাবে ভুল করলে তার খেসারত জনগণ দেবে না। কিন্তু বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট বছরের শুরু থেকে দেশে লাগাতার হরতাল-অবরোধ ডেকে পেট্রোলবোমা, ককটেল, অগ্নিসংযোগ, সড়ক কেটে, রেলের ফিশপ্লেট উৎপাটন করে দেশের মানুষকে জিম্মি করে দেশকে এক গভীর সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে। মানুষের গণতান্ত্রিক স্বাধীনতাকে বিনষ্ট করে বিএনপি আসলে দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।

মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও সর্বোচ্চ শান্তি নিশ্চিত করা সরকারের দায়িত্ব। একাত্তরে দেশ এই লক্ষ্যেই ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছিল। স্বাধীনতা অর্জনের চার দশকের বেশি সময় পরও যারা দেশের মানুষের শান্তি ও নিরাপত্তা বিঘœ ঘটাচ্ছে তাদের কঠোর হস্তে দমন করা সরকারের দায়িত্ব। সরকার কঠোরভাবে সে দায়িত্ব পালন করবে, মানুষ সেটাই আশা করে।

প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০১৫

২৮/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: