কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

জনবল কাঠামো নিয়ে বিপাকে আইডিআরএ

প্রকাশিত : ২৭ মার্চ ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ জনবল কাঠামো নিয়ে বার বার বিপাকে পড়ছে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)। বিষয়টি নিয়ে তাদের দাবি অনুযায়ী এক মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলেও আরেক মন্ত্রণালয় তা আটকে দিচ্ছে। এজন্য তাদের কাজও থমকে যাচ্ছে।

আইডিআরএ সূত্রে জানা গেছে, প্রতিষ্ঠার ৪ বছর পার হলেও চাহিদা মাফিক জনবলের চূড়ান্ত অনুমোদন পায়নি তারা। বীমা খাতের সাবেক নিয়ন্ত্রক সংস্থা বীমা অধিদফতর বিলুপ্ত করে ২০১১ সালে আইডিআরএ গঠন করে সরকার। ওই বছরই আইডিআরএ চেয়ারম্যান এম শেফাক আহমেদ জনবল নিয়োগ ও সাংগঠনিক কাঠামোর অনুমোদন চেয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন। ১৯৫ জন জনবল চেয়ে এ আবেদন করা হয়।

আইডিআরের আবেদন প্রেক্ষিতে ৯৪ জনের অনুমোদন দেয় মন্ত্রণালয়। কিন্তু আইডিআরের চাহিদার তুলনায় কম হওয়ায় তারা ১৯৫ জনের জন্যই আবেদন করে। পরবর্তীতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ১৯৫ জনই অনুমোদন দেয়। তবে সম্প্রতি এই সংখ্যাকে কমিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ। সর্বশেষ সাংগঠনিক কাঠামো অনুযায়ী, ১৭টি পদে আইডিআরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ১৫৫ জনের অনুমোদন দেয় মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে চতুর্থ শ্রেণীর পদে রয়েছেন অফিস সহকারী পদে ২০ জন, ইলেকট্রিশিয়ান পদে এক জন এবং ক্লিনার অথবা পরিচ্ছন্নতাকর্মীর পদে ২ জন। এই তিন পদের ২৩ জন নিয়োগ পাবেন আউট সোর্সিং নীতিমালা অনুযায়ী।

অন্য ১৪টি পদের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা আইডিআরএ’র নিজস্ব জনবল হিসেবে নিয়োগ পাবেন এবং সরকারী চাকরির নীতিমালা অনুযায়ী যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা পাবেন। এর মধ্যে নির্বাহী পরিচালক ৪ জন, পরিচালক ৭ জন, অতিরিক্ত পরিচালক ১০ জন, উপ-পরিচালক ১০ জন, সহকারী পরিচালক ২০ জন, প্রোগ্রামার একজন, নেটওয়ার্ক এ্যাডমিনিস্ট্রেটর ও চেয়ারম্যানের একান্ত সচিব পদে একজন করে নিয়োগ পাবেন।

এছাড়া কর্মকর্তা পদে ৩০ জন, প্রোগ্রাম অপারেটর ৫ জন, কম্পিউটার অপারেটর ১০ জন, চেয়ারম্যান ও সদস্যদের সহকারী ৫ জন, ডাটা এন্ট্রি অথবা কন্ট্রোল অপারেটর ২০ জন এবং ড্রাইভার পদে ১০ জন নিয়োগ পাবেন। বিষয়টি অফিসিয়ালভাবে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে আইডিআরএকে জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনার প্রেক্ষিতে ফের ১৯৫ জন চেয়ে মন্ত্রণালয়ের কাছে আবেদন করে আইডিআর। সর্বশেষ গত ১৫ মার্চ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠকে এই আবেদন করে সংস্থাটির কর্মকর্তারা। এ সময়ও মৌখিকভাবে সম্মতি জানায় অর্থ মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আইডিআরএ’র প্রশাসন বিভাগে দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্য কুদ্দুস খান বলেন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে অর্গানোগ্রাম বা জনবল কাঠামো অনুমোদন দেয়ার পর অর্থ মন্ত্রণালয় কিছু কমিয়েছে। এরপর আমরা এটি নিয়ে আবার তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছি।

তিনি বলেন, তারা আমাদের চাহিদার আলোকে জনবল দিতে সম্মত হয়েছে। আশা করছি খুব দ্রুতই এ সমস্যার সমাধান হবে।

প্রকাশিত : ২৭ মার্চ ২০১৫

২৭/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: