কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

স্বাধীনতা দিবসেই গুগলে যোগ হলো ৪ লাখ বাংলা শব্দ

প্রকাশিত : ২৭ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘স্মরণীয় করতে জন্মদিন; গুগলে যোগ হলো বাংলা। আসবে ভাষার স্বাধীনতা। অনুবাদ করা যাবে ৯০ ভাষায়।’ এমন মতামত দেন গুগল ডেভেলপারস গ্রুপ-বাংলা’র (জিডিজি) সঙ্গে জড়িত বিশিষ্টজনেরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) মিলনায়তনে ‘বাংলার জন্য ৪ লাখ শব্দ’ উদ্যাপন অনুষ্ঠানে তারা এ সব কথা বলেন।

উল্লেখ্য, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে একদিনে ৪ লাখ শব্দ যোগ করে নতুন রেকর্ড করার এ উদ্যোগ নেয় জিডিজি, সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং বিসিসি। এতে অংশ নেয় বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে বসবাসকারী বাংলাভাষাভাষী স্বেচ্ছাসেবীরা।

অনুষ্ঠানে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও বিজ্ঞান প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আজ বাংলাদেশের জন্মদিন। একে স্মরণীয় করে রাখার জন্য জিডিজি বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাই। এ সময় তিনি জানতে চান- উপস্থিতদের মধ্যে কারা ৫২’র ভাষা আন্দোলন অথবা ৭১’র স্বাধীনতা সংগ্রাম দেখেছেন। পরে প্রতিমন্ত্রী নিজেই জবাব দেন তিনিসহ উপস্থিত প্রায় সবার জন্মই ৭১’র পরে। তিনি বলেন, আমরা যারা ৫২, ৭১ অথবা বঙ্গবন্ধুকে দেখিনি তারাই বঙ্গবন্ধুকে ভালবাসি বলে আজ ভাষার স্বাধীনতার জন্য কাজ করতে এসেছি।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, দেশের ৮১ জায়গা এবং বিশ্বের দেড়শ’র বেশি জায়গায় ‘বাংলার জন্য ৪ লাখ-এর কাজ চলছে। ফেসবুকের একটি ইভেন্ট ‘বাংলার জন্য ৪ লাখ’ এ ৩৩ হাজার জন আসবেন বলে নিশ্চিত করেছেন। এসেছে ৩৮ হাজার। এদের সহায়তা করছে ৪ হাজার ভলান্টিয়ার। এতে বুঝা যাচ্ছে আমাদের লক্ষ্য ৪ লাখ হলেও তার চেয়ে বেশি কাজ করবো। আগামী ১ বৈশাখ পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে।

এ সময় তিনি জানান, বেলা ১১টায় ১০ হাজার অনুবাদক লগ ইন করেছিল। অথচ টার্গেট ছিল মাত্র ১ হাজার। শুধু তাই নয় অতিরিক্ত লগ ইনের কারণে বৃহস্পতিবার দিনে গুগল ট্রান্সলেটর সাইটটি ২ বার ক্রাশ করেছে।

বিজ্ঞান প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আমার লেখা প্রথম ব্লগ ছিল ‘গুগল নোস এভরিথিং’। পরে জানলাম গুগল বাংলা জানে না। এরপর সিদ্ধান্ত নিলাম বাংলাকে সমৃদ্ধ করার। তিনি বলেন, সর্বোচ্চ শব্দ অনুবাদকারীকে সিঙ্গাপুরের গুগল কার্যালয় পরিদর্শন করার সুযোগ দেবে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া ১ হাজারের বেশি শব্দ অনুবাদ করলে গুগল ‘ইলেক্ট্রনিক সার্টিফিকেট’ দেবে। একই সঙ্গে আইসিটি মন্ত্রণালয়ও তাদেরকে ‘ইলেক্ট্রনিক সার্টিফিকেট’ দিবে বলে জানান বিজ্ঞান প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী।

জিডিজির উপদেষ্টা মুুনীর হাসান বলেন, আগামীকাল (শুক্রবার) সাড়ে ১১টার পর গুগল আমাদেরকে জানাবে কি পরিমাণ শব্দ অনুবাদ হয়েছে। তিনি বলেন, ইংরেজীতে শব্দযোগ করার মাধ্যমে ৯০ ভাষায় বাংলা অনুবাদ করার সুযোগ পাওয়া যাবে। তবে, এ সুফল পেতে আরও ৫-৬ মাস অপেক্ষা করতে হবে। জিডিজির উপদেষ্টা বলেন, আগামী এপ্রিল মাসে গুগলের কর্মকর্তারা বাংলাদেশ সফরে আসবেন বলে জানান তিনি। এরপর এ সব শব্দ সংশোধনের কাজ শুরু হবে।

অনুষ্ঠানে বিসিসির নির্বাহী পরিচালক এসএম আশরাফুল ইসলাম বলেন, স্বাধীনতার মাসে বাংলা ভাষাভাষীদের ভাষার স্বাধীনতার জন্য এ কাজ করছি।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক জিডিজি ও কমিউনিটি ম্যানেজার জাবেদ সুলতান পিয়াস ঘোষণা দেন যারা আজ কাজ করেছেন তাদের সবাইকে ৬০ টাকার একটি স্মারক নোট দেয়া হবে। অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী ১১ জনের হাতে তা তুলে দেন। এদের মধ্যে সালমান আরিফ ৫০ হাজার ও মিনহাজুল ইসলাম ৪০ হাজার শব্দ যোগ করেন। অনুষ্ঠান শেষে সবাই ফটোসেশনে অংশ নেন প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে।

প্রকাশিত : ২৭ মার্চ ২০১৫

২৭/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: