আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে সূচকের সঙ্গে লেনদেন কমেছে

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা দ্বিতীয় দিনের মতো দেশের পুঁজিবাজারে সূচকের পতন দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। বেশিরভাগ কোম্পানির দরপতনের দিনে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের সঙ্গে লেনদেনও কমেছে। বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমে যাওয়ার কারণে ডিএসইর লেনদেন আড়াই শ’ কোটি টাকার নিচে নেমে গেল। এদিন ডিএসইতে আগের দিনের চেয়ে প্রায় ১৯ শতাংশ লেনদেন কমেছে। ডিএসইর মোট ৬৩ ভাগ কোম্পানির দর কমার দিনে সার্বিক সূচক কমেছে সামান্যই। অপর দিকে দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে সূচকের বৃদ্ধি দিয়ে লেনদেন শুরুর পর দিনশেষে তা আর অব্যাহত থাকেনি। সারাদিন সূচকের ওঠানামা শেষে ডিএসইর সার্বিক সূচক বা ডিএসইএক্স সূচক ১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৪৯৩ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯০ পয়েন্টে। ডিএস ৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৭০৭ পয়েন্টে। সারাদিনে ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৯টির, কমেছে ১৯১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির শেয়ার দর।

বেশিরভাগ কোম্পানির দর কমলেও তালিকাভুক্ত ওষুধ এবং রসায়ন খাতের কোম্পানিগুলোর দর ও চাহিদা বেড়েছে। সারাদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৬৩ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের প্রায় ২৫ ভাগ। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল জ্বালানি এবং শক্তি খাতের কোম্পানিগুলো। সারাদিনে মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৪ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৩ দশমিক ৩৯ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে ছিল ব্যাংকের খাতের লেনদেনের পরিমাণ। সারাদিনে মোট লেনদেন করেছে ৩৪ কোটি টাকার, যা মোট লেনদেনের ১৩ দশমিক ভাগ।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছেÑ এসিআই লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, এসিআই ফরমুলেশনস, শাহজিবাজার পাওয়ার, গ্রামীণফোন, ব্র্যাক ব্যাংক, এমজেএল বাংলাদেশ, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মা এবং শাশা ডেনিমস।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ফার্মা এইড, শাহজালাল ব্যাংক লিমিটেড, ১ম জনতা মিউচুয়াল ফান্ড, ন্যাশনাল লাইফ ইন্স্যুরেন্স, উত্তরা ব্যাংক, ম্যারিকো, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, এ্যামবে ফার্মা, এসিআই এবং এসিআই ফর্মূলেশন।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : দুলামিয়া কটন, জনতা ইন্স্যুরেন্স, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, শাইনপুকুর সিরামিকস, ইউনিক হোটেল এ্যান্ড রিসোর্ট লিমিটেড, আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক লিমিটেড, আরামিট সিমেন্ট, ফু-ওয়াং ফুড, সায়হাম কটন ও আরএন স্পিনিং।

এদিকে অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রামে বেশিরভাগ কোম্পানির দর কমার কারণে সব ধরনের সূচক কমেছে। তবে সূচক কমলেও সিএসইতে আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে। সকালে উর্ধগতি দিয়ে লেনদেন শুরুর পরে ডিএসইতে মোট ২৩ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৭২৭ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২২১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৪টির, কমেছে ১৪৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২০টির।

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫

২৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: