মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

যশোরে সাবেক এমপি টিটোর বাড়িতে বোমা হামলা ॥ ছেলেকে ছুরিকাঘাত

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫
  • টেন্ডার নিয়ে দ্বন্দ্ব

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোরে টেন্ডার জমা দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি খালেদুর রহমান টিটোর বাড়িতে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শহরের ষষ্ঠীতলাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এতে টিটোর ছোট ছেলে হাবিব হাসান বাবুসহ (৩৫) সাতজন আহত হয়েছেন।

জানা যায়, যশোর সরকারী এমএম কলেজে পৌনে আট কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি হোস্টেল নির্মাণের জন্য গত ৪ মার্চ দরপত্র আহ্বান করে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর। মঙ্গলবার এ টেন্ডার জমা দেয়ার শেষদিন ছিল। এর আগেই আওয়ামী লীগের বর্তমান এমপি কাজী নাবিল আহম্মদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন ও সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারের সমর্থকের মধ্যে টেন্ডার নিয়ে সমঝোতা হয়। কিন্তু এরই মধ্যে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে যশোর-৩ আসনের সাবেক এমপি খালেদুর রহমান টিটোর তিন ছেলে তাদের বাড়ির নিকটস্থ শিক্ষা প্রকৌশল অফিসে টেন্ডার জমা দেয়ার জন্য যান। এ সময় টিটোর ছেলেদের অস্ত্র ঠেকিয়ে হুমকি দেয়া হয়। এক পর্যায়ে টিটোর ছোট ছেলে বাবুকে ছুরিকাঘাত করে তার কাছ থেকে টেন্ডারের কাগজপত্র নিয়ে ছিঁড়ে ফেলা হয়। পরে সাবেক এমপি টিটোর ছেলে ও তাদের ক্যাডাররা ফায়ার সার্ভিস মোড়ে বাড়ির কাছে গিয়ে সংঘবদ্ধ হওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় উভয়পক্ষ বোমা ফাটিয়ে তাদের অবস্থান জানান দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উভয়পক্ষের মধ্যে বোমা হামলা হলে পিছু হটে টিটোর সমর্থকরা। এক পর্যায়ে টিটোর বাসভবন লক্ষ্য করে ৩/৪টি বোমা হামলা চালানো হয়। সব মিলে উভয়পক্ষের মধ্যে হামলা পাল্টাহামলার সময় অন্তত ১৫ বোমার বিস্ফোরণ ঘটে।

এ বিষয়ে সাবেক এমপি খালেদুর রহমান টিটো বলেন, তার ছেলেরা টেন্ডার জমা দিতে গেলে এমপি নাবিল ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সম্পাদকের লোকজন তাদের অস্ত্র ঠেকায়। ছুরিকাঘাত ও বোমার স্পিøন্টারে তার ছোট ছেলে হাবিব হাসান বাবুসহ সাতজন আহত হয়। এ সময় তার বাড়িতেও বোমা হামলা চালানো হয় বলে দাবি করেন তিনি।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন বলেন, তিনি সকালে অন্য একটি কাজে গিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে কোন বোমা হামলা হয়েছে, এমন কথা শোনেননি। বিষয়টি তার জানা নেই। যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শিকদার আক্কাস আলী জানান, টেন্ডার জমা দেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে কেউ হতাহত হয়নি বলে তিনি জানান।

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫

২৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: