মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

রাজধানীর ৪৯ থানা এলাকায় ব্লকরেইড অভিযান

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫

শংকর কুমার দে ॥ রাজধানী ঢাকার ৪৯ থানা এলাকায় মঙ্গলবার রাত থেকে ‘ব্লকরেইড অভিযান’ শুরু হওয়ার কথা। কঠোর গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অভিযান পরিচালনার নেতৃত্বে থাকছেন প্রতিটি জোনের ডিসি ও এডিসি। নাশকতা, সন্ত্রাসী কার্যকলাপ বন্ধ ও সন্ত্রাসে অর্থ যোগানদাতাদের চিহ্নিত করে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারাভিযান, সন্ত্রাসী, বোমাবাজা, মাদকাসক্ত ও অপরাধী গ্রেফতার করাই হচ্ছে এই অভিযান পরিচালনার উদ্দেশ্য। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া স্বাক্ষরিত ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনার নির্দেশাবলী রাজধানীর ডিসি, এডিসি, ওসিসহ সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে। ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনার কপি পাঠানো হয়েছে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ কন্ট্রোল রুমে। ডিএমপি ও সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ খবর জানা গেছে।

সূত্র জানান, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের স্বাক্ষরিত চিঠিতে রাজধানীর কোন বিভাগের কোন থানা এলাকায় কবে কখন ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনা করা হবে তার দিনক্ষণ নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। বিএনপি-জামায়াতের ডাকা অবরোধ-হরতালের নামে পেট্রোলবোমার আগুনে পুড়িয়ে মারার নাশকতা ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে রাজধানী ঢাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও উন্নত করার লক্ষ্যে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ, বোমা, বিস্ফোরক উদ্ধার, জঙ্গী, সন্ত্রাসী, অপরাধী ও দুর্বৃত্ত গ্রেফতার ও মাদকের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সূত্র জানান, ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনার জন্য রাজধানীর ৪৯ থানা ভিত্তিক ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি থানার তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী, অপরাধী, দুর্বৃত্ত, জঙ্গীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করা হবে। যেসব অপরাধীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে তাদেরও গ্রেফতার করার বিষয়টিকে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। জঙ্গীদের ক্ষেত্রে যেসব জঙ্গীর বিরুদ্ধে মামলা আছে, জামিনে মুক্ত হয়ে আত্মগোপনে চলে গেছে তাদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে।

জানতে চাইলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ডিসি মিডিয়া মোঃ মাসুদুর রহমান বলেন, ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনার বিষয়ে আলাপ-আলোচনা হয়েছে। অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, সন্ত্রাস দমন, অপরাধী গ্রেফতার, মাদকবিরোধী অভিযান, জঙ্গী তৎপরতা বন্ধসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের আলোচনার বিষয়টি রুটিন ওয়ার্ক। মঙ্গলবার থেকে অভিযান পরিচালনার কথা থাকলেও তা এই মুহূর্তে বলা যাবে না। তা ছাড়া ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনার বিষয়টি গোপনীয়। কঠোর গোপনীয় বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমের কাছে কিছুই বলা যাবে না।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিএনপি-জামায়াতের ডাকা অবরোধ-হরতালের নামে পেট্রোলবোমার আগুনে পুড়িয়ে মারার নাশকতা এবং ঢাকার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ, উন্নয়ন ও স্বাভাবিক জীবনযাত্রার নিশ্চয়তা বিধানের লক্ষ্যে ব্লকরেইড অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। তবে অপরাধীরা যাতে সজাগ ও সতর্ক না হতে পারে সেজন্য তা ঘোষণা দিয়ে ঢাকঢোল পিটিয়ে অভিযান পরিচালনার বিষয় নয়।

প্রকাশিত : ২৫ মার্চ ২০১৫

২৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: