মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

উখিয়ায় উন্নয়ন কার্যক্রম ॥ মুখ থুবড়ে পড়েছে

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫
  • উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানদের ক্ষমতার দ্বন্দ্ব

নিজস্ব সংবাদদাতা, উখিয়া, ২৩ মার্চ ॥ কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় যাবতীয় উন্নয়ন কার্যক্রম চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। অর্থবছরের প্রায় ৯ মাস অতিবাহিত হলেও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী বা এডিপির কোন প্রকল্প গৃহীত ও অনুমোদন হয়নি। এতে উখিয়া উপজেলার জন্য বরাদ্দকৃত সরকারী অর্থ ফেরত যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। প্রায় ১ বছর পূর্বে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরওয়ার জাহান চৌধুরী আইনানুগ জটিলতায় বহিষ্কার হওয়ায় মহিলা ও পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যানের ক্ষমতার দ্বন্দ্বের কারণে এসব উন্নয়ন কাজের বিঘ্ন ঘটছে বলে সংশ্লিষ্টদের অভিযোগ।

সূত্র জানায়, চলতি ২০১৪-১৫ অর্থবছরে সরকারের গৃহীত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী বা এডিপির স্থানীয় সরকার প্রকৌশল শাখায় প্রায় ৬০ লাখ টাকা, ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা শাখায় ১৩২ টন কাবিখা ও ১৩০ টন টিআর স্থানীয় রাজস্ব তহবিলের প্রায় ৩ কোটি টাকার বেশি অর্থের কোন ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা সম্ভব হচ্ছে না।

উখিয়া সদর রাজাপালং ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, হলদিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন মিন্টুসহ স্থানীয় অন্যান্য চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য এবং ঠিকাদারগণসহ উন্নয়ন সংশ্লিষ্টরা অর্থবছরের প্রায় ৯ মাস অতিবাহিত হতে চললেও কোন উন্নয়ন প্রকল্প গৃহীত ও অনুমোদন না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। খবর নিয়ে জানা গেছে, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় এলজিএসপি, এক শতাংশের বরাদ্দসহ বিভিন্ন নিজস্ব তহবিলের প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন সম্পন্ন হলেও এসব প্রকল্পের ব্যয় বরাদ্দের অর্থ ছাড় করা সম্ভব না হওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদগুলো বিপাকে পড়েছে। ইউপি চেয়ারম্যানগণ অর্থবছর প্রায় সম্পন্নের পথে হওয়ায় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানদের ক্ষমতার দ্বন্দ্বের অবসান ঘটিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও জেলা প্রশাসকের সমন্বয়ে মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে উখিয়ার উন্নয়ন কর্মকা- বাস্তবায়নের দাবি জানান। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বাকি বিল্লাহ বলেন, এডিপির আওতায় কাবিখা ও টিআরের বরাদ্দ অলস পড়ে থাকলেও সিদ্ধান্তের অভাবে বাস্তবায়ন সম্ভব হচ্ছে না।

উপজেলা প্রকৌশলী মোস্তফা মিনহাজ বলেন, এডিপি, এলজিএসপি, রাজস্ব তহবিলসহ বিভিন্ন তহবিলের সরকারী অর্থ বরাদ্দ থাকলেও চেয়ারম্যান বা উপজেলা পরিষদের সিদ্ধান্তের অভাবে এসব অর্থের যথাযথ ব্যয় সাপেক্ষে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা যাচ্ছে না। উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা হাফিজুর রহমান বলেন, শিক্ষা প্রতিবন্ধীসহ অন্যান্য সুবিধাভোগীদের সরকারী ভাতাসমূহ প্রদান করা যাচ্ছে না। উল্লেখ্য, একাধিক ফৌজধারি মামলায় অভিযুক্ত হওয়ায় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা সরওয়ার জাহান চৌধুরী মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সাময়িক বহিষ্কারে রয়েছেন।

তার অনুপস্থিতিতে ভাইস চেয়ারম্যান অপর বিএনপি নেতা সোলতান মাহমুদ চৌধুরী ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করলেও অপর বিএনপি নেত্রী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছেনুয়ারা বেগম উচ্চ আদালতে মামলা করেছেন। এ সংক্রান্ত উভয় ভাইস চেয়ারম্যানের দায়ের করা একাধিক মামলা উচ্চ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। তাই উন্নয়ন কর্মকা- ব্যাহত হচ্ছে। উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিল্লোল বিশ্বাস বলেন, একাধিক মামলা উচ্চ আদালতে বিচারাধীন থাকায় মন্ত্রণালয় থেকে কাউকে আর্থিক লেনদেনের ক্ষমতা অর্পণ না করায় উখিয়ায় বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীসহ প্রায় উন্নয়নমূলক কর্মকা- অচল হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, সংসদ সদস্যের অনুকূলে বরাদ্দকৃত উন্নয়ন প্রকল্প ছাড়া অন্য কোন উন্নয়ন কাজ আইনানুগ জটিলতায় করা সম্ভব হচ্ছে না।

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫

২৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: