মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

পুঁজিবাজারে লেনদেন বেড়েছে ১৭ শতাংশ

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দুই দিনের সূচকের উর্ধগতির পর দেশের পুুঁজিবাজারে মূল্য সংশোধনের ঘটনা ঘটেছে। এক শ্রেণীর বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার প্রবণতার মাঝেও সার্বিক লেনদেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে আগের দিনের চেয়ে প্রায় ১৭ শতাংশ বেড়েছে। তবে ভাল-মন্দ সব ধরনের কোম্পানির দর কমার কারণে সব ধরনের সূচকই কিছুটা কমেছে। সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে ঘিরে গত দুই দিনে কিছুটা উন্মাদনা দেখা দিলেও সোমবার লেনদেন শুরুর মাত্র আধা ঘণ্টার মধ্যে শেয়ার বিক্রির আদেশ বাড়তে দেখা গেছে। তবে একইভাবে ক্রেতার সংখ্যাও বাড়তে থাকে। ফলে প্রধান বাজারে দিনশেষে তিনশ’ কোটি টাকার ওপর লেনদেন হলো। ঢাকার মতো দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জেও সব ধরনের সূচকই কমেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে সূচকের বৃদ্ধি দিয়ে লেনদেন শুরুর আধা ঘণ্টা পর লেনদেনের গতি বাড়তে থাকলেও শেয়ারের দর কমতে থাকে। তবে থেমে থেমে লেনদেনের গতি বাড়লেও দিনশেষে সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩১৪ কোটি ৩৮ লাখ টাকার; যা আগের দিনের চেয়ে প্রায় ৪৬ কোটি ১৮ লাখ টাকা বেশি। রবিবারে সেখানে লেনদেন হয়েছিল ২৬৮ কোটি ১৯ লাখ টাকার শেয়ার।

এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯০টির, কমেছে ১৮১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির শেয়ার দর।

সারাদিন উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন চললেও দিনশেষে ডিএসইএক্স সূচক ২৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৫০৬ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরিয়াহ সূচক ৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯৬ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৭১১ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছে শাহজিবাজার পাওয়ার, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড, এসিআই লিমিটেড, ইফাদ অটোস, গ্রামীণফোন, এসিআই ফরমুলেশনস, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, এমজেএল বাংলাদেশ, শাশা ডেনিমস, বেক্সিমকো এবং বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো মুন্নু সিরামিক, ব্র্যাক ব্যাংক, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড, এসআইবিএল, গোল্ডেন সন, বিডি ল্যাম্পস, সিনো বাংলা, আরামিট, ফার কেমিক্যাল ও যমুনা ওয়েল।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো সাভার রিফ্যাক্টরীজ, ইউনিক হোটেল এ্যান্ড রিসোর্চ লিমিটেড, ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স, জুট স্পিনার্স, পাইনিওয়ার ইন্স্যুরেন্স, হা-ওয়েল টেক্সটাইল, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক ও ১ম জনতা ইন্স্যুরেন্স।

ঢাকার মতো দেশের অপর বাজারেও সব ধরনের সূচকই কমেছে। সেখানেও শুরুতে লেনদেনের গতি আগের দিনের চেয়ে বেশ ভাল ছিল। কিন্তু গত কয়েকদিনে দর বাড়তে থাকা কোম্পানিগুলোর দর কমতে থাকে। দিনশেষে সেখানে প্রায় ২২ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৬৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৭৮৬ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২২৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৭টির, কমেছে ১২১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো জিপিএইচ ইস্পাত, শাহজিবাজার পাওয়ার, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেড, শাশা ডেনিমস, বেক্সিমকো, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, এসিআই ইফাদ অটোস, এসিআই ফর্মূলেশন ও ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড।

প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০১৫

২৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: