রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

যুদ্ধাপরাধী বিচার ॥ হাসান রাজাকার লালু ভূইয়াকে গুলি করে হত্যা করে

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৫
  • ২৩তম সাক্ষী মাহফুজার জবানবন্দী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত কিশোরগঞ্জের রাজাকার কমান্ডার হাসান আলীর বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের ২৩তম সাক্ষী মাহফুজা আক্তার তার জবানবন্দীতে বলেছেন, আমার চাচাত ভাই লালু ভুঁইয়ার ছেলে এমদাদ আমাদের জানায়, হাসান আলী দারোগা তার বাবা লালু ভুঁইয়াকে বাড়ির পেছনে পুকুরে গুলি করে মেরে ফেলেছে। এমদাদ ওই ঘটনা নিজ চোখে দেখেছে। জবানবন্দী শেষে আসামি পক্ষের আইনজীবী সাক্ষীকে জেরা করেছেন। পরবর্তী সাক্ষীর জন্য আজ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। আরেক মামলায় বাগেরহাটের কসাই সিরাজুল হক ওরফে সিরাজ মাস্টার, আব্দুল লতিফ, আকরাম হোসেন খাঁনের বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের জব্দ তালিকার ও ৩১তম সাক্ষী রবিউল আনাম খান জবানবন্দী প্রদান করেছেন। আজ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জবানবন্দী প্রদান করবেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের দুই রাজাকার মাহিদুর রহমান, আফসার হোসেন চুটুর বিরুদ্ধে তদন্ত কর্মকর্তা জবানবন্দী প্রদান করেছেন। আজ তাকে আসামি পক্ষের আইনজীবী জেরা করবেন। অন্যদিকে ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে হরতাল ডাকা ও বিরূপ মন্তব্য করায় তাজুল ইসলামসহ তিন জামায়াত নেতা ও দুই ছাত্র শিবির নেতার আদালত অবমাননার বিষয়ে শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী ৫ এপ্রিল ধার্য করা হয়েছে। রবিবার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল -১ ও ২ এ আদেশগুলো প্রদান করেছেন।

কিশোরগঞ্জের রাজাকার কমান্ডার হাসান আলীর বিরুদ্ধে প্রসিকিউশনের ২৩তম সাক্ষী মাহফুজা আক্তার জবানবন্দী প্রদান করেছেন। আজ পরবর্তী সাক্ষীর জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক। সাক্ষীকে জবানবন্দীতে সহায়তা করেন প্রসিকিউটর আবুল কালাম।

সাক্ষী তার জবানবন্দীতে বলেন, আমার নাম মাহফুজা আক্তার। আমার বর্তমান বয়স আনুমানিক ৬০/৬১ বছর। আমার বর্তমান ঠিকানা- গ্রাম- কোনাভাওয়াল , থানা- তাড়াইল, জেলা- কিশোরগঞ্জ। মুক্তিযুদ্ধের সময় আমার বয়স ছিল আনুমানিক ১৫ বছর। সে সময় আমি অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ছিলাম। ১৯৭১ সালের ২৩ আগস্ট সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটা/তিনটার দিকে রাজাকার কমান্ডার হাসান আলী আমাদের বাড়ি আক্রমণ করে। প্রথমে তারা আমার চাচাত ভাই লালু ভুঁইয়ার ঘরে ঢুকে তাকে আটক করে ও মারধর শুরু করে। এরপর রাজাকাররা আমাদের ঘরের দরজা লাথি মেরে ভেঙ্গে ফেলতে চায়। আমার বড় বোন দরাজা খুলে দিলে ১৫/২০ জন রাজাকার আমাদের ঘরে ঢুকে খাটে বিছানো চাদর তুলে সেটি ছিঁড়ে আমিসহ তিন বোন এবং আমার বাবা মাকে চাদরের অংশ দিয়ে বেঁধে ফেলে। পরে আমার বাবা ও মাকে রাজাকাররা ঘর থেকে টেনে হিঁচড়ে বাইরে নিয়ে যায়। রাজাকাররা সকলেই সশস্ত্র ছিল। এর কিছ্ক্ষুণ পর প্রথমে একটি গুলির আওয়াজ ও পরে আরও কয়েকটি গুলির আওয়াজ পাই। আমরা বোনেরা ঘর থেকে অনুমান করতে পারি যে, রাজাকাররা হয়তো বাবা-মাকে গুলি করে মেলে ফেলেছে।

সাক্ষী আরও বলেন, এর পর রাজাকাররা আমাদের ঘরে এসে টাকা পযসা সোনা দানা লুটপাট করে নিয়ে যায় এবং আমার বাবার জমির কাগজপত্র বাড়ির উঠানে নিয়ে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। ভোর আনুমানিক চারটা সাড়ে চারটার দিকে ফজরের আজান হলে লালু ভুইয়ার ছেলে এমদাদ আমাদের ঘরে আসে এবং কান্নাকাটি করে। সে বলে যে, রাজাকার হাসান আলী দারোগা তার বাবা লালু ভুইয়াকে বাড়ির পিছনে পুকুরে গুলি করে মেরে ফেলেছে। সে ঐ ঘটনা নিজ চোখে দেখেছে।

মাহিদুর চুটু ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে অভিযুক্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের দুই রাজাকার মাহিদুর রহমান, মোঃ আফসার হোসেন চুটুর বিরুদ্ধে তদন্ত কর্মকর্তা (আইও ) জেড এম আলতাফুর রহমান জবানবন্দী প্রদান করেছেন। জবাবনন্দী শেষে আইওকে জেরা করার জন্য আজ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান শাহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম।

প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৫

২৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: