আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২৭.২ °C
 
২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১১ ফাল্গুন ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সেবকের হাত

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৫

সেবার হাত খুব পবিত্র। সেবকের মন আরও পবিত্র। তাই মানসিকতার ভেতর সেবার চেতনাই কাজ করে সেবকের। মানুষের পাশে থেকে মানুষকে সেবা শুশ্রƒষায় জাগরিত করে তোলার মধ্যেই সেবক সফলতা এবং মানুষের আশীর্বাদ প্রাপ্তি। সত্তর দশকের এক কবি লিখেছিলেন, “সেবকের হাত তুলে এই তো আমি দাঁড়িয়েছি ফের / আমাকে সমস্ত পৃথিবীর মানবিক সঙ্গীত এনে দাও /আমি মানুষের কাছে মানুষের কথা বলবো/ জীবনের কাছে জীবনের কথা বলবো।” আর এই মানুষ ও মানবিকতার সেবাই একসঙ্গে ব্রত হয়ে দাঁড়ায় সেবকের। অসুস্থ মানুষকে সুস্থ করা, সুস্থ জীবনে ফেরার পথ তৈরি করে দেয়ার মধ্যে মনুষ্যত্বের জাগরণ ঘটে। আসে তৃপ্তি, আনন্দ এবং কর্মের সার্থকতা। সুস্থজনের মধ্যেও জাগে পরম তৃপ্তি, বাঁচার সাধ। সেবামূলক পেশার অন্যতম শীর্ষে চিকিৎসাসেবা। চিকিৎসকের ওপরই নির্ভর করে রোগীর জীবন-মরণ। সঠিকভাবে রোগ নির্ণয় করে রোগীকে সুস্থ করে তোলার মধ্যেই চিকিৎসকের পেশার সম্মাননা প্রদর্শন করা হয়।

চিকিৎসকের কাছে ধনী-দরিদ্রের ভেদাভেদ থাকার কথা নয়। রোগী রোগীই। তবে দরিদ্র, অসহায় রোগীর প্রতি অবহেলা উপেক্ষা অমানবিক। মানুষের মৌলিক অধিকার, সুচিকিৎসাপ্রাপ্তি রাষ্ট্রের কর্তব্য ও দায়িত্ব। আর তা পালনে সেবক হিসেবে চিকিৎসকই পারেন রোগমুক্তির পথ তৈরি করে দিতে। দেশে ও বিদেশে অনেক খ্যাতনামা চিকিৎসক রয়েছেন, যাঁদের সুনাম বিশ্বজুড়েই। অধিকাংশ ক্ষেত্রে চিকিৎসককে দেখামাত্রই রোগী মানসিকভাবে সুস্থ হয়ে ওঠেন। তারা রোগীর প্রতি সামান্য অবহেলা করেন না, অর্থলোলুপতায় অনাবশ্যক রোগীকে হয়রানি, নানান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করান না, অনাবশ্যক অপারেশনও করান না। বরং মানসিক সুস্থতা এনে দেয় এমন আচরণ রোগীর জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এই উপমহাদেশে বর্তমানে চিকিৎসা খাতে এমন চিকিৎসক আছেন যাদের চিকিৎসায় রোগীরা মোহিত শুধু নয়, পরম নির্ভরতায় প্রায় সুস্থ হয়ে উঠেন। অপারেশন করতে হবে বলে চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে তাদের কাছে যাওয়া রোগীকে পরীক্ষা করে দেখান যে তার কোন প্রয়োজন নেই এমন উদাহরণও রয়েছে। অযথা ওষুধ খাবার পরামর্শও দেন না তাঁরা। মানুষের প্রতি সেবার হাত বাড়াতে সব চিকিৎসক অনুরূপভাবে এগিয়ে এলে রোগীরা বিদেশে চিকিৎসার জন্য যাবে না। দুর্ভোগমুক্ত হবে। দেশের অর্থ দেশেই থাকবে। জনগণকে চিকিৎসাসেবা প্রদানে চিকিৎসকরা উদারতা, সহমর্মিতায় এগিয়ে আসবেন এটাই প্রত্যাশা।

প্রকাশিত : ২২ মার্চ ২০১৫

২২/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: