আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৭ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

জাতির কাছে ক্ষমা চেয়ে নাশকতার পথ ছাড়ুন

প্রকাশিত : ১৮ মার্চ ২০১৫
  • খালেদা জিয়াকে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতাদের আহ্বান
  • gfmfv

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে জাতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে নাশকতার পথ ছেড়ে গণতান্ত্রিক পথে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা। তাঁরা কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, সুস্থ ও গণতান্ত্রিক ধারার রাজনীতির বদলে নাশকতা-সন্ত্রাসের মাধ্যমে মানুষের প্রাণ কেড়ে নেয়া হলে কাউকেই ক্ষমা করা হবে না। বিএনপি-জামায়াতের টার্গেট সরকার হটানো নয়, আন্দোলনের নামে তাদের নাশকতা-সহিংসতার টার্গেটই হচ্ছে বঙ্গবন্ধু পরিবার ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে উচ্ছেদ করা। কিন্তু জনসমর্থনহীন কিছু সন্ত্রাসী-জঙ্গী-নাশকতাকারীদের নিয়ে খালেদা জিয়ার আন্দোলন কখনই সফল হবে না। অযৌক্তিক আন্দোলন দিয়ে যৌক্তিক পরিণতিতে কখনই পৌঁছানো যাবে না।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীতে আয়োজিত পৃথক আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণীসহ নানা অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তাঁরা এসব কথা বলেন। একইসঙ্গে ‘চাঁদাবাজ-টাউট বাটপাড়’রা যাতে জাতির জনকের ছবি ব্যবহার করে পোস্টার-ব্যানার-ফেস্টুন টানাতে না পারে সেজন্যও দলের নেতাকর্মীদের সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তাঁরা।

খালেদা জিয়ার অবস্থা হবে মুসলিম লীগের মতো-স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহার করে মানুষ হত্যার জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আপনি হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহার না করলে, এইভাবে চলতে থাকলে আপনার দলের অবস্থা হবে মুসলিম লীগের মতো। তাই আপনাকে বলি এখনও সময় আছে আপনার ভুলের জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চান। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আয়োজক সংগঠনের মহাসচিব সংসদ সদস্য মাহমুদ-উস-সামাদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, সংসদ সদস্য সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ দিলীপ রায় প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। আলোচনা সভা শেষে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেন মোহাম্মদ নাসিম।

বঙ্গবন্ধুর ছবি ব্যবহারে কঠোর হুঁশিয়ারি ওবায়দুল কাদেরের ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আন্দোলনের নামে বিএনপি-জামায়াত জোট ‘জঙ্গী কায়দায়’ নাশকতা চালাচ্ছে। তারা ইসলামিক স্টেট বা আইএস স্টাইলে নাশকতা করছে। যারা সংলাপ চায়; তাদের উচিত আগে নাশকতা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করা। তারপর দেখা যাবে সংলাপ হবে কি হবে না।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। জাতির জনকের ছবির পাশে ‘চাঁদাবাজ-টাউট বাটপাড়’ কারোর ছবি থাকলে সেসব ব্যানার বা পোস্টার ছিঁড়ে ফেলতে দলীয় নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে ভূমি দখলকারী ও লুটপাটে জড়িতদের ছবি দেখতে চাই না। আমরা বঙ্গবন্ধুকে আমাদের জীবনে কতটা অনুসরণ করি, সেটা আজ বড় প্রশ্ন। এখানে কয়জন আমরা বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী পড়েছি?

পোস্টার ও ব্যানারের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আমি সবচেয়ে বেশি ব্যথিত হই যখন বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে চিহ্নিত চাঁদাবাজ-ধান্দাবাজ, টাউট-বাটপাড় লোকদের ছবি দেখি। বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে এসব ভূমি দখলকারী ও লুটপাটের সঙ্গে জড়িতদের ছবি দেখতে চাই না। আমি নেতাকর্মীদের বলব-এসব ছবি ছিঁড়ে ফেলুন।

ক্ষোভ প্রকাশ করে সেতু মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে এসব বাটপাড়দের ছবি মুক্ত হতে পারেন তাহলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে। আজকে কোথা থেকে কে এসে চিনি না জানি না চাঁদাবাজ না ছিনতাইকারী হঠাৎ একটা পোস্টার বের করে বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে নিজের ছবি দিচ্ছে। চাঁদাবাজি ও ধান্দাবাজির সঙ্গে যারা জড়িত তাদের ছবি যেন বঙ্গবন্ধুর ছবির পাশে না দেখি। দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি সাংগঠনিক কাজে আরও মনোযোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, গত ১৫ আগস্টের ব্যানার ছিঁড়ে ছিঁড়ে পড়ছে। যারা নগর আওয়ামী লীগ করেন এটা কি আপনাদের কারো চোখে পড়ে না? এটা বঙ্গবন্ধুকে সম্মান করা নয়, কারণ সেখানে তাঁর ছবি আছে।

বিএনপিতে ভাঙ্গন অনিবার্য- হানিফ ॥ বিএনপির ভাঙ্গন অতি সত্বরই হবে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, খালেদা জিয়া যদি এভাবে চলতে থাকেন তবে তিনি বিএনপি থেকেই বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবেন। দলটির নেতাকর্মীরা আর বিএনপিতে থাকবে না। তারা বিকল্প রাস্তা খুঁজবে। খুঁজতে শুরুও করেছে। খালেদা জিয়া তাঁর পতন ধ্বনী শুনতে পাচ্ছেন কি না জানি না। তবে তাঁর দলের ভাঙ্গন অতি সত্বরই হবে। সেটা শোনার জন্য তিনি খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানান।

মঙ্গলবার রাজধানীর লালবাগের একটি কমিউনিটি সেন্টারে লালবাগ থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৫তম জন্মদিন উপলক্ষে এই আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়।

খালেদা জিয়া রক্তের হোলি খেলছেন- খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ॥ খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার মধ্য দিয়ে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের শুরু। এ কাজটি করেছিলেন বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করতে চাওয়া হয়েছিল। ওই ষড়যন্ত্রে ব্যর্থ হলেও এখনও তারা তৎপর রয়েছে। দেশের বর্তমান পরিস্থিতির জন্যও একাত্তর ও পঁচাত্তরের ওই একই অশুভ শক্তি দায়ী।

মঙ্গলবার রাজধানীর বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিশিষ্ট অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন নাট্য ব্যক্তিত্ব ড. ইনামুল হক, অভিনেতা খায়রুল আলম সবুজ, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী অরুনা বিশ্বাস, মনোরঞ্জন ঘোষাল, ডাঃ দীপক কুমার দাস, এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

প্রকাশিত : ১৮ মার্চ ২০১৫

১৮/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: