কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

ঘর নক্সায়...

প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৫
ঘর নক্সায়...
  • জাকির হোসেন

বর্তমান সময়ে সবাই চায় নিজের বাসস্থান ও অফিসটি যেন হয় দৃষ্টি নন্দন। সৌন্দর্যের এই ভাবনা পরিপূর্ণ করতে চাই, একটি ইনটেরিয়র ডিজাইন প্রতিষ্ঠানের পরিপূর্ণ সহযোগীতা। কারণ এই জাতীয় প্রতিষ্ঠানের কাজই সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তোলা। প্রতিষ্ঠান বা বাসস্থান সুন্দর করার জন্য কিছু ধারণা দিচ্ছেন এফ কর্মাস ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ঢাকা ইন্টেরিয়র এ্যন্ড বিল্ডিং ডিজাইনের কর্মকর্তা ইউকে শর্মা আপন।

প্রতিষ্ঠান : প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন ধরনের লোকজনের সমাগম হয় এবং বিভিন্ন বৈশিষ্টের কর্মচারীরা কাজ করে। অফিস কর্তার উচিত অফিসটি এমনভাবে সাজানো যেন অফিসটিতে থাকে অভিজাত্যের ছোঁয়া। তাহলেই কর্মীদের কাছে অফিসটি হবে আর্কষণীয়। বিভিন্ন প্রকার ডিজাইনের মাধ্যমে এ কাজটি করেন একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। চাইলে অফিসে একটি প্রাকৃতিক পরিবেশও তৈরি করা যায়, যাতে থাকবে গ্রামীন ছোয়া। এক্ষেত্রে ইকো ডিজাইন খুবই কার্যকরী। তা ছাড়া পশ্চিমা ধাঁচ তো রয়েছেই। কাঠ, বালু ও স্টিল দিয়েও অনেক নকশা করা যায়। ডিজিটাল এই সময়ে আপনি চাইলে থ্রিডি প্রযুক্তির মাধ্যমে জেনে নিতে পারেন ডিজাইন করার পর অফিস দেখতে কেমন হবে।

বাসস্থান : আজকাল সবাই বাড়ি তৈরি করার চেয়ে ফ্লাট কিনতে পছন্দ করেন। কারণ পছন্দ মতো জায়গায় থাকার ইচ্ছা এবং অনেক ঝামেলা থেকে রেহাই পাওয়া। নিজের পছন্দ মতো প্রিয় বাসস্থানটি সাজানোর ক্ষেত্রে ক্রেতার উচিত ডেভেলপার কোম্পানির কাছ থেকে আন্ডার কন্সট্রাকশন ফ্লাট কেনা। তাহলে নিজের মতো করে বাসস্থানটি সাজানো যায়। এছাড়াও এক্ষেত্রে খরচও কম হয়। বিদেশীরা এমনই করে। এক্ষেত্রে নিজের পছন্দ অনুযায়ী জিনিস পত্র ব্যবহার করা যায়।

কেন ডিজাইনার প্রয়োজন : ডিজাইনারের মাধ্যমে ডিজাইন করালে সীমিত জায়গায় সবোর্চ্চ ব্যবহার সম্ভব। এছাড়াও খরচও পড়ে তুলনামূলক কম। তো আর দেরি নয় নিজের বাসস্থান ও অফিস করে তোলেন আকর্ষনীয়। এক্ষেত্রে সাহায্য নিন ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের।

প্রকাশিত : ১৬ মার্চ ২০১৫

১৬/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: