মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

চসিক নির্বাচনে নিজেকে মেয়র প্রার্থী ঘোষণা মহিউদ্দিন চৌধুরীর

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ নিজ দলের হাইকমান্ডের চূড়ান্ত অনুমোদনে আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নাগরিক কমিটির ব্যানারে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি, সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। ওমরা পালন শেষে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরে শনিবার সন্ধ্যায় নিজ বাসভবনে সমবেত কর্মী-সমর্থকদের বিশাল উপস্থিতিতে তিনি তাঁর এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন।

গত ৯ মার্চ ওমরা পালনের জন্য তিনি সৌদি আরব যান। সেখানে পবিত্র মক্কা মদিনা মনোয়ারায় জিয়ারত শেষে এ সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশে ফিরে সমবেত কর্মী-সমর্থক মহলের মাধ্যমে চট্টগ্রামবাসীকে তাঁর এ ইচ্ছার কথা জানান দিলেন।

এর আগে সম্প্রতি চট্টগ্রাম ১৪ দলের পক্ষ থেকে সভা করে তাঁকে মেয়র পদে প্রার্থী হিসেবে সমর্থন দেয়া হয়। এ ঘোষণার পর দলে এবং ইচ্ছুক কয়েক মেয়র প্রার্থীর মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। বিভিন্নভাবে এর আলোচনা সমালোচনার জন্ম দেয়। তবে এ নিয়ে তিনি আর কোন কথা বলেননি। সৌদি আরব যাত্রার প্রাক্কালে দলের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। বর্ধিত সভায় তিনি দলের অনুমোদনে প্রার্থী চূড়ান্ত করে তাঁর পক্ষে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানান।

ওমরা থেকে ফিরে মহিউদ্দিন চৌধুরী আরও বলেন, তিনি বিলবোর্ড ও পোস্টারে বিশ্বাস করেন না। তিনি চট্টগ্রামবাসীর হৃদয়ে আছেন। সেই হৃদয়ের ভালবাসা দিয়ে তিনি দলের সমর্থন নিয়ে প্রার্থী হয়ে বিজয় ছিনিয়ে আনবেন। এর আগে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে এসে পৌঁছলে হাজার হাজার দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থক তাঁকে অভ্যর্থনা জানান এবং স্লোগানে স্লোগানে বিমানবন্দর এলাকা মুখর করে তোলেন। পরে তিনি বিশাল র‌্যালি নিয়ে তাঁর চশমা হিলস্থ বাসভবনে পৌঁছেন।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না হলেও সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীদের গণসংযোগসহ নানা তৎপরতার পাশাপাশি নির্বাচনী আমেজ বইতে শুরু করেছে কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে। বিএনপি নীরব থাকলেও নেতাদের নিয়ে সরব আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের কর্মী সমর্থকরা। সম্ভাব্য প্রার্থীদের সমর্থনে শুরু হয়ে গেছে মেরুকরণ। আওয়ামী লীগের নেতারা এখন তাদের সমর্থক পরিবেষ্টিত। চলছে স্ব স্ব নেতার পক্ষে শোডাউন। ওমরা শেষে শনিবার বিকেলে সৌদি আরব থেকে চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেমে নিজ সমর্থকদের দ্বারা সংবর্ধিত হন নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। বিমানবন্দর ছাড়াও নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে তাঁকে অভ্যর্থনা জানানো হয়।

এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী শনিবার বিকেলে চট্টগ্রাম বিমানবন্দরে এলে বরণ করে নিতে ছুটে যান নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডের তাঁর সমর্থক নেতাকর্মীরা। হরতালবিরোধী সমাবেশে অবস্থানকারী ২৩টি পয়েন্ট থেকে সমর্থকরা বাসযোগে বিমানবন্দরে যান। সেখানে সাবেক মেয়রকে তারা ফুল দিয়ে বরণ করেন।

সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর হজ পালন এবারই প্রথম নয়। মেয়র হজ কাফেলা নিয়ে প্রতিবছরই তিনি সৌদি আরবে যান। এছাড়া মাঝে মধ্যে ওমরা পালন করেন। তবে ওমরা করে এবারে ফিরে আসার গুরুত্ব তার সমর্থকদের কাছে আলাদা। কেননা, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অতি সন্নিকটে। নির্বাচন কমিশন এখনও তফসিল ঘোষণা না করলেও আগামী জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে চসিক নির্বাচন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে বলে এক বক্তব্যে উল্লেখ করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রাকিব উদ্দিন আহমেদ। এরপর থেকেই শুরু হয়ে গেছে চট্টগ্রামের সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থীদের তৎপরতা। গণসংযোগের পাশাপাশি চলছে কেন্দ্রের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টাও। বলা যায়, নেতাদের ঘিরে প্রায় প্রতিদিনই থাকছে কর্মী-সমর্থকদের বেষ্টনী।

চট্টগ্রামের মেয়র পদে প্রার্থী হতে আওয়ামী লীগের অন্তত চার নেতা আলোচনায় থাকলেও এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচিত নামটি নগর সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। তিনি এর আগে একটানা সতেরো বছরের মেয়র। বর্তমান মেয়াদে অবশ্য মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন বিএনপি সমর্থিত এম মনজুর আলম। মহিউদ্দিন চৌধুরীর সমর্থকরা আবারও তাদের নেতার মাথায় পরাতে চান সেই বিজয় মুকুটটি। এ লক্ষ্যে তারা প্রিয় নেতার পক্ষে আগেভাগেই মাঠে নেমে পড়েছেন। দলের হাইকমান্ড মহিউদ্দিন চৌধুরীকেই মেয়র প্রার্থী মনোনীত করবে বলে তাদের আশাবাদ।

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

১৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: