কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কুড়িগ্রামে পরিবহন শ্রমিকদের সংঘর্ষ ॥ আহত ১৫

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ কুড়িগ্রাম জেলার ভুরুঙ্গামারীতে বাসে মাল ওঠানামাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার রাতে শ্রমিকদের দুটি গ্রুপে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ৪ জনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শর্টগান ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। শনিবার দুপুরে এ সংঘর্ষের প্রতিবাদে মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন ভুরুঙ্গামারীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে।

জানা গেছে, স্থানীয় আন্ধারীর ঝাড়বাজারে ঢাকাগামী নাইট কোচে ট্রাক কুলি শ্রমিকদের একটি দল মাল ওঠানো শুরু করলে উত্তর ধরলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল ও সাধারণ সম্পাদক মিজান এসে বাধা দেয়। তারপরও শ্রমিকরা মাল ওঠানোর কাজ শেষ করে। ওইদিন সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে বাস শ্রমিকরা আকস্মিক কলেজ রোডস্থ ট্রাক কুলি সংগঠনের কার্যালয়ের ঝাঁপ নামিয়ে দিয়ে চলে যায়। এরই প্রতিবাদে ট্রাক কুলি শ্রমিক সংগঠন ভুরুঙ্গামারী-কুড়িগ্রাম সড়ক অবরোধ করে। এরপর তারা তাদের বন্ধ কার্যালয়ের ঝাঁপ খুলতে গেলে উত্তর ধরলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে ৩টি ট্রাক ও কার্যালয় ভাংচুর করে টেলিভিশন, মোবাইলসহ বেশ কিছু মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ভুরুঙ্গামারী উপজেলার ৩টি কুলি-শ্রমিক সংগঠনের লোকজন একত্রিত হয়ে তাদের বাধা প্রদান করলে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে প্রায় উভয়পক্ষের ১৫ জন শ্রমিক আহত হয়। এ বিষয়ে ভুরুঙ্গামারী উপজেলার উত্তর ধরলা বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি রবিউল আলম গবা বলেন, বাস শ্রমিক ইউনিয়নের লোকজন দূরপাল্লা বাস ও মিনিবাসের মাল ওঠানামা করবে। আমাদের কাজে বাধা দিচ্ছে কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা। তাদের দাবি আমরা মেনে নিব না। ভুরুঙ্গামারী উপজেলার কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আয়নাল সরদার জানান, বাস শ্রমিকদের দাবি অযৌক্তিক। আমরা রুটি রুজির জন্য জীবন দিব।

নওগাঁয় জমি নিয়ে সংঘর্ষে নিহত এক

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ থেকে জানান, শনিবার বিকেল ৩ টার দিকে নওগাঁর আত্রাই উপজেলার পুইশাওতা গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের মারপিটে রেজাউন নবী (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় সালেকুল (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত রেজাউন নবী পুইশাওতা গ্রামের মৃত হবিবর রহমানের ছেলে। আটক সালেকুল নিহতের চাচাত ভাই বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘ দিন ধরে বসত বাড়ির এক খ- জমি নিয়ে রেজাউন নবীর সাথে চাচাত ভাই সালেকুলের বিরোধ চলে আসছিল। বিকেলে রেজাউন নবী ওই জমিতে খড়ের পালা দিতে গেলে সালেকুল তাদে বাধা দেয়। এ সময় তাদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে সালেকুলের লোকজনের মারপিটে ঘটনাস্থলেই মারা যান রেজাউন নবী। অপরদিকে নওগাঁর মান্দায় শুক্রবার জমি জবর দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করলে বাধা দেয়ায় দখলকারীদের মারপিটে ৫জন আহত হয়েছেন।

প্রকাশিত : ১৫ মার্চ ২০১৫

১৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: