কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

দেশীয় প্রতিষ্ঠানে তৈরি হচ্ছে বিশ্বমানের গেমস

প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৫

আইটি ডট কম প্রতিবেদক ॥ আইটিতে যে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি তার প্রমাণ এরই মধ্যে দিতে শুরু করেছে এদেশের আইটি প্রতিষ্ঠানগুলো। যেখানে কাজ করছে একঝাঁক প্রতিভাবান তরুণ। তেমনি একটি প্রতিষ্ঠান রাইজ আপ। যারা যাত্রা শুরু করেছিল ২০০৯ সালে। কোন কিছু না ভেবেই একেবারে মনের আবেগে পাগলামির বসে তৈরি করেছিল এই প্রতিষ্ঠানটি। স্বপ্ন ছিল বিশ্বমানের গেমস বানাবে, যেটার ব্যবহার হবে মোবাইল ফোনে। যাত্রা শুরুর প্রথমেই একটি বড় ধরনের চমক পেয়ে যায় প্রতিষ্ঠানটি, তাদের বানানো গেম ‘ট্যাপ ট্যাপ এ্যান্টস’ থেকে। এ গেমটিই ছিল এ্যাপেল এ্যাপ স্টোর জগতের প্রথম ট্যাপিং গেম, যেটিকে এখনও পর্যন্ত বিশ্বসেরা ট্যাপিং গেম বলেই ধরা হয়ে থাকে। গেমটির ডাউনলোড সংখ্যা ১৫ মিলিয়ন এবং এ প্রতিষ্ঠানটি একমাত্র দেশীয় মোবাইল গেম ডেভেলপার যারা বহির্বিশ্বের কাছে সুপরিচিত। তাদের সাফল্যের ধারাবাহিক প্রবাহে রুফটপ ফ্রেঞ্জি, হাইওয়ে চেইজ, আই-ওয়ার হাউস, বাবল এ্যাটাক এবং শুট-দ্য-মানকিসহ রয়েছে আরও কিছু গেম। নীরবে কাজ করে গেছে এই প্রতিষ্ঠানটি। জনকণ্ঠ বরাবরই তারুণ্যের পক্ষে। তাই এবারের আয়োজনে সেই সৃষ্টি পাগল প্রোগ্রামাদের নিয়ে।

প্রতিষ্ঠানটি তাদের সব গেম সারাবিশ্বের সব মোবাইল গেমারদের জন্য বিনামূল্যে তৈরি করে থাকে। এ কাজটি সঠিক ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের জন্যে প্রতিটি পদে আছে প্রযুক্তিগতভাবে অভিজ্ঞতাসম্পন্ন দক্ষ ও সুপ্রশিক্ষিত কর্মী, যারা প্রত্যেকেই বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জিং এবং মজার মজার মোবাইল গেম তৈরিতে উৎসাহী। তাদের আলোচিত গেমস।

রুফটপ ফ্রেঞ্জি ॥ এ্যাকশনধর্মী গেম রুফটপ ফ্রেঞ্জিতে গেমারের মূল চরিত্রে থাকবেন একজন কুংফু মাস্টার, যার মাঝে আছে বাস্তব জীবনের একজন কুংফু মাস্টারের ক্ষমতা! এ গেমে, কুংফু মাস্টার সব সময় বিভিন্ন ছাদের ওপর দিয়ে দৌড়িয়ে যেতে থাকবে। এ সময় স্ক্রিনের অপর পাশ থেকে আসতে থাকা শত্রু নিনজাদের বিভিন্ন স্টাইলের কম্বো মেরে সামনে এগিয়ে যেতে হবে, পাশাপাশি এড়িয়ে যেতে হবে প্রতিবন্ধক সৃষ্টিকারী বিভিন্ন বস্তুকে। সম্পূর্ণ ফ্রি এ গেমটি গুগোল প্লে, এ্যামাজন স্টোর ও এ্যাপেল স্টোরে পাওয়া যাবে।

রুফটপ ফ্রেঞ্জি ডাউনলোড যঃঃঢ়://ৎরংবঁঢ়ষধনং.সব/ৎড়ড়ভ

হাইওয়ে চেইজ ॥ এ্যাকশন শূটিংধর্মী গেম হাইওয়ে চেইজে গেমারকে একজন স্নাইপারের চরিত্রে খেলতে হবে। এ গেমে গেমারের কাজ হবে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে হেলিকপ্টার থেকে গুলি করে চোরের গাড়ি ধংস করা এবং এর পাশাপাশি পথচারী ও সাধারণ গাড়িতে যেন আঘাত না লাগেÑ সেটি খেয়াল করা। এ গেমটি ও গুগোল প্লে, এ্যামাজন স্টোর ও এ্যাপেল স্টোরে পাওয়া যাবে। হাইওয়ে চেইজ ডাউনলোড লিঙ্ক : যঃঃঢ়://ৎরংবঁঢ়ষধনং.সব/যরময

ট্যাপ ট্যাপ এ্যান্ট ॥ ট্যাপ ট্যাপ এ্যান্টস গেমটি একটি মজার ও ব্যতিক্রমধর্মী কাহিনী নিয়ে বানানো। গেমটিতে স্ক্রিনের নিচের অংশে কিছু পরিমাণ খাবার দেখা যাবে আর সেই খাবার খেতে স্ক্রিনের চারপাশ থেকে আসতে থাকবে ক্ষুধার্ত পিঁপড়া। গেমারকে ক্ষুধার্ত পিঁপড়ার হাত থেকে খাবার রক্ষা করতে হবে। এজন্য তাকে স্ক্রিন টাচ করে প্রতিটি পিঁপড়াকে পিষে মারতে হবে। সময় অতিক্রমের সঙ্গে সঙ্গে পিঁপড়ার সংখ্যাও বাড়তে থাকবে। গেমটি বর্তমানে শুধু এ্যাপেল স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে, তবে কিছু দিনের মধ্যেই এ গেমটি এ্যান্ড্রয়েডে (গুগোল প্লে ও এ্যামাজন স্টোর) রিলিজ করা হবে বলে জানায় রাইজ আপ ল্যাবস প্রতিষ্ঠানটি। ট্যাপ ট্যাপ এ্যান্টস ডাউনলোড লিঙ্ক : যঃঃঢ়://ৎরংবঁঢ়ষধনং.সব/ধহঃং

রাইজ আপ ল্যাবসের সাফল্যগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো, ‘ট্যাপ ট্যাপ এ্যান্টস’ গেম থেকে তাদের প্রাপ্তি। গেমটি শুধু এ্যাপেল প্ল্যাটফর্মেই প্রায় ৯৮টি দেশে শীর্ষস্থান দখল করে, ১৫ মিলিয়নের বেশি ডাউনলোড হয় এবং এখন পর্যন্ত অনেক দেশে শীর্ষস্থানে আছে। সম্প্রতি, বেসিস আয়োজিত ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৫’- এ মোবাইল ইনোভেশন অংশ থেকে প্রতিষ্ঠানটি প্রথম স্থান অর্জন করে, এটি বুঝিয়ে দেয় তারাই গেমিং ও এ্যাপের জগতে দেশের অন্যতম উদ্ভাবনের জনক।

প্রতিষ্ঠানটি বিগত বছরের ডিসেম্বরে এক্সপো মেকার কর্তৃক আয়োজিত ‘গ্রামীণফোন স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো’তে অংশগ্রহণ করে এবং দেশের সর্বপ্রথম মোবাইল গেমিং টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। এ প্রতিযোগিতাতে তারা দেশীয় মোবাইল গেমারদের কাছ থেকে যে সারা পায় তা ছিল সম্পূর্ণই অপ্রত্যাশিত! প্রায় ৭ হাজার প্রতিযোগী এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুকের (ভধপবনড়ড়শ.পড়স/ৎরংবঁঢ়ষধনং) মাধ্যমে রাইজ আপ ল্যাবস আয়োজন করে মাসব্যাপী অনলাইন গেমিং প্রতিযোগিতা। সেখানেও তারা বেশ ভাল সারা পেয়েছে এবং ভবিষ্যতে এরূপ আরও অনলাইন প্রতিযোগিতার আয়োজন করবে বলে তারা জানিয়েছে। রাইজ আপ ল্যাবস প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কিত প্রশ্নের উত্তরে প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা এরশাদুল হক বলেন, তাদের বানানো গেমগুলো এখনও পর্যন্ত শুধু এ্যাপেল এবং এ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে পাওয়া যাচ্ছে, তবে বর্তমান প্রেক্ষাপট অনুযায়ী উইন্ডোজ ডিভাইস ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে; তাই রাইজ আপ ল্যাবসের প্রধান ও অন্যতম পরিকল্পনাÑ খুব তাড়াতাড়ি তাদের পরবর্তী গেমগুলো এ্যাপেল এবং এ্যান্ড্রয়েডের পাশাপাশি উইন্ডোজ ডিভাইসের জন্যও বানানো। এতে দেশের সব স্তরের স্মার্টফোন ব্যবহারকারী দেশীয় গেম খেলতে পারবেন, যা প্রতিষ্ঠানটির জন্য অন্যতম প্রধান একটি অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। প্রতিষ্ঠানটির দ্বিতীয় পরবর্তী পদক্ষেপ হলো, তাদের বানানো পরবর্তী সব গেমে বাংলা ভাষা যুক্ত করা। এতে আমাদের বাংলা ভাষার মান আরও বৃদ্ধি হবে এবং সবাই গেমটি খুব সহজে বুঝতে পারবে। এছাড়াও দেশীয় মোবাইল গেমারদের পাশে থাকার আন্তরিক আহ্বান জানিয়ে এরশাদুল হক বলেন, রাইজ আপ ল্যাবস তাদের ভবিষ্যতের গেমগুলো আরও উন্নত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ এবং এ উদ্দেশ্যগুলো শুধু দেশীয় মোবাইল গেমাররা তাদের পাশে থাকলেই সার্থক হবে বলে তিনি মনে করেন।

প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৫

১৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: