কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

সার্টিফিকেট বাণিজ্যের অভিযোগ

প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৫
  • ময়মনসিংহে মেডিক্যাল

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের কতিপয় ইমার্জেন্সি মেডিক্যাল অফিসারের(ইএমও) বিরুদ্ধে ইনজুরি সার্টিফিকেট বাণিজ্যের অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর জখমকে সাধারণ আবার সাধারণ জখমকে গুরুতর দেখিয়ে অসাধু ইএমও চক্র মামলার বাদী ও বিবাদীর কাছ থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নয় ছয় করছে ইনজুরি সার্টিফিকেট। গত বুধবার হাসপাতাল পরিচালকের কাছে ইএমও ডা. নুরুনবীর বিরুদ্ধে এরকম অনিয়মের অভিযোগ এনে মেডিক্যাল বোর্ড করে জখমের পুনরায় সার্টিফিকেট দেয়ার আবেদন করেছেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার মুকুরিয়া গ্রামের মৃত হাসেন আলী তালুকদারের পুত্র মনিরুজ্জামান জুয়েল।

অভিযোগে বলা হয়, চলতি সালের গত ৯ জানুয়ারি বোরো জমিতে সেচের ড্রেন নিয়ে গৌরীপুর উপজেলার মুকুরিয়া গ্রামের মৃত হাছেন আলীর পুত্র মনিরুজ্জামান জুয়েলের সঙ্গে একই গ্রামের আব্দুল বারেকের পুত্র এমদাদুল হকের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে গুরুতর আহত দুলাল মিয়া, তারা মিয়া, সুরুজ মিয়া, আবুল কালাম, সিরাজ, নয়ন মিয়া ও সোহেলকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে এই ঘটনায় দায়ের করা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার চাহিদামতো হাসপাতাল থেকে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি আহতদের নামে আলাদা ইনজুরি সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। আহতদের হাসপাতালে ভর্তির সময় জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ছিলেন ডা. দিলীপ কুমার সরকার। অথচ ইনজুরি সার্টিফিকেটে স্বাক্ষর করেন জরুরী বিভাগের ইএমও ডা. নুরুনবী।

প্রকাশিত : ১৪ মার্চ ২০১৫

১৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: