কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহীতে বিনামূল্যের ল্যাপটপে অর্থ নিচ্ছেন শিক্ষা কর্মকর্তা

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫
  • চলছে বদলি বাণিজ্য

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীতে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিনামূল্যের ল্যাপটপ বিতরণে অর্থ নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়ন ও ক্লাসে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরে পাঠদানে সরকারীভাবে ল্যাপটপগুলো সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বিতরণের কথা। তবে সংশ্লিষ্ট থানা শিক্ষা অফিস থেকে বিতরণের সময় প্রতিটি ল্যাপটপের বিপরীতে পাঁচশ’ টাকা করে জোরপূর্বক আদায় করা হয়েছে। মৌখিকভাবে প্রতিবাদ করেও কোন প্রতিকার না পেয়ে সাংবাদিকদের অভিযোগ করেন বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা।

জানা গেছে, প্রাথমিক শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে ক্লাসে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরে পাঠদানের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মাধ্যমে কয়েক বছর থেকে সরকারীভাবে ল্যাপটপগুলো বিনামূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে। চলতি বছরের জন্য রাজশাহীর ১০টি উপজেলার আটটি করে ৮০টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ছাড়াও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের জন্য একটি করে মোট ৮৮টি ল্যাপটপ গত ১০ মার্চ বিতরণ করা হয়। তবে প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে সংশ্লিষ্ট প্রধান শিক্ষকদের পাঁচশ টাকা করে বাধ্যতামূলকভাবে আদায় করা হয়। শিক্ষকরা বাধ্য হয়ে পাঁচশ টাকা করে জমা দিয়ে ল্যাপটপ গ্রহণ করেন। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট প্রধান শিক্ষকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষের সৃষ্টি হয়।

প্রধান শিক্ষকরা বলেন, বিদ্যালয়ের নিজস্ব কোন ফান্ড থাকে না। সেক্ষেত্রে সরকারীভাবে বরাদ্দকৃত ল্যাপটপ বিতরণে পাঁচশ টাকা করে আদায় অযৌক্তিক। তারা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের আচরণ পরিবর্তন ও প্রাথমিক শিক্ষাকে ‘ঘুষমুক্ত’ করার দাবিও জানান। যোগাযোগ করা হলে নগরীর বোয়ালিয়া থানা শিক্ষা কর্মকর্তা রাখি চক্রবর্তী টাকা আদায়ের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এ টাকা নেয়া হয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কাশেম জানান, দুই সপ্তাহের ছুটিতে থাকার কারণে বিষয়টি তার জানা নেই।

মঠবাড়িয়ায় ৮০ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ৮০জন দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষাবৃত্তি সহায়তা হিসেবে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে বৃহস্পতিবার স্থানীয় নূরজাহান এ্যান্ড খলিলুর রহমান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পিরোজপুর জেলা প্রশাসক এ.কে.এম শামিমুল হক ছিদ্দিকী। ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষানুরাগী মোঃ খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র রফিউদ্দিন আহম্মেদ ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আহসান হাবিব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান বাদশা, আ.লীগ নেতা আজিজুল হক সেলিম মাতুব্বর, থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন মল্লিক, শিক্ষক মোস্তফা জামান খান ও সাংবাদিক মিজানুর রহমান মিজু। উপজেলার ৩১ মাধ্যমিক স্কুল, ২০ মাদ্রাসা ও ৫ কলেজের মোট ৮০ দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে নগদ দুই হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। -বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: