কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৩ ডিসেম্বর ২০১৬, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

লাগাতার অবরোধ-হরতালে নাটোরে পর্যটন কেন্দ্রগুলো দর্শনার্থী শূন্য

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

সংবাদদাতা, নাটোর, ১২ মার্চ ॥ বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের ডাকা দেশব্যাপী লাগাতার অবরোধ-হরতালে নাটোর পর্যটন স্পট প্রায় দর্শনার্থী শূন্য হয়ে পড়েছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে নাটোরে পর্যাপ্ত গাড়ি চলাচল না করায় দর্শনার্থীর সংখ্যা দিনের পর দিন কমে যাচ্ছে ফলে আয় কম হচ্ছে। অথচ প্রতিদিনের খরচ আগের পর্যায়ে থাকায় দিন দিন ব্যয় নির্বাহ নিয়ে চাপের মধ্যে আছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

নাটোরের দিঘাপতিয়া এলাকায় অবস্থিত উত্তরা গণভবন এবং নাটোর রানী ভবানী কেন্দ্রীয় উদ্যান যুবপার্ক তথা নাটোর রাজবাড়ী দর্শনার্থীদের জন্য কিছুদিন আগে টিকেটের মাধ্যমে উন্মুক্ত করা হয়। উত্তরা গণভবন পরিদর্শনে ১০ টাকার টিকেট, অপরদিকে নাটোর রাজবাড়ী ৫ টাকা টিকেট কেটে দর্শনার্থীরা দেখতে পারেন। বিশেষত বছরের নবেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে দেশের বিভিন্ন জেলা এমনকি বিদেশ থেকেও প্রচুর দর্শনার্থী ভিড় জমান জেলা শহরের ঐতিহাসিক এই দুটি স্পট দেখতে। স্পট দুটি দর্শনার্থীদের জন্য দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষণীয় করতে বাড়ানো হয়েছে বিভিন্ন ভেন্যু আর সুযোগ-সুবিধা। আবার দর্শনার্থী এবং স্পট দুটির নিরাপত্তায় বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তাকর্মী এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। নিয়োগ করা হয়েছে টিকেট বিক্রেতা, চেকপোস্ট, সিসি ক্যামেরা ইত্যাদি। এতে প্রতি মাসেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে পরিশোধ করতে হয় মোটা অঙ্কের টাকা যা দর্শনার্থীদের প্রদেয় অর্থ থেকে প্রদান করা হয়। আর জমাকৃত অতিরিক্ত আয় থেকে পরিকল্পনা করা হয় স্পটের সৌন্দর্য বর্ধনে। কিন্তু গত ৫ জানুয়ারি থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত দেশব্যাপী লাগাতার হরতাল-অবরোধে দর্শনার্থীর সংখ্যা নেমে এসেছে শূন্যের কোঠায়। অথচ সরকারকে সংশ্লিষ্ট স্পটে আগের মতোই চালিয়ে যেতে হচ্ছে খরচ। কেননা দর্শনার্থী বেশি হোক বা কম হোক সংশ্লিষ্ট স্টাফ রাখতেই হয়।

চরফ্যাশনে মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি

নিজস্ব সংবাদদাতা, চরফ্যাশন, ভোলা, ১২ মার্চ ॥ জেলায় চরফ্যাশনের আদালতে হাজিরা দিতে এলে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টায় মিনারা বেগম নামের এক মামলার বাদীনিকে আসামিরা হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হুমকি দাতারা হলেন, উপজেলার চরফারুকী গ্রামের ইব্রাহিম, দক্ষিণ আইচা গ্রামের হাবিবুল্লাহ, নুর ইসলাম, ফারুক ও দক্ষিণ চরমানিকা গ্রামের আলতাফ।

চরফারুকী গ্রামের জাহাঙ্গীরের স্ত্রী মিনারা বেগম অভিযোগ করেন, জমি দখলের জন্য একই গ্রামের ইব্রাহিমসহ কয়েক জন লাঠিয়াল গত ৪ জুলাই হামলা করে আমাকে গুরুতর আহত করে এবং আমার শিশুকে খালে ফেলে দিয়ে বসত ঘরের মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে চরফ্যাশন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সি আর ২৫৫/১৪ মামলা দায়ের করি। ওই মামলায় বৃহস্পতিবার হাজিরা দিতে এলে আদালতের সামনে মামলার আসামি ইব্রাহিম, হাবিবুল্লাহ, নুর ইসলাম, ফারুক ও আলতাফ মামলা প্রত্যাহার করতে আমাকে হত্যার হুমকি দেয়।

চট্টগ্রামে পেট্রোল বোমায় নিহতের পরিবারকে অনুদান

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামে পেট্রোলবোমার আগুনে মৃত্যুবরণকারী সুভাষ সোমের পরিবারকে একলাখ টাকার আর্থিক অনুদান প্রদান করেছে জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক মোঃ মেজবাহ উদ্দিন এ অনুদানের চেক তুলে দেন মৃতের স্ত্রী নেলী সোমের হাতে।

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: