রৌদ্রজ্জ্বল, তাপমাত্রা ২৩.৯ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

স্বাভাবিক হচ্ছে যান চলাচল ব্যবসা বাণিজ্যে চাঙ্গা ভাব

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫
  • হরতাল অবরোধ আর মানবেন না ব্যবসায়ীরা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ অবরোধ, হরতাল উপেক্ষা করে রাজশাহীতে এখন প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছেন রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা। ফলে চাঙ্গা হয়ে উঠছে ব্যবসা-বাণিজ্য। বৃহস্পতিবার রাজশাহী বিভিন্ন বাজার ঘুরে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে তারা আর হরতাল অবরোধ মানবেন না। যতই ঝুঁকি আসুক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে রাখবেন। গত দুই সপ্তাহ ধরেই রাজশাহীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ীরা জানান, অযৌক্তিক লাগাতার হরতাল-অবরোধে দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে তাদের। বাধ্য হয়ে ঝুঁকি নিয়েই এখন দোকানপাট খুলতে শুরু করেছেন তারা। বাস ও ট্রাকেসহ সব পণ্য পরিবহন শুরু হয়েছে যথারীতি। ব্যবসায়ীরা জানান, এখন পণ্য পরিবহন স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। সব ধরনের যানবাহন চলাচল করছে। রাজশাহীর ব্যবসা-বাণিজ্যে যে স্থবিরতা নেমে এসেছিল তার ৭৫ ভাগই এখন স্বাভাবিক হয়ে এসেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ী ও পরিবহন নেতৃবৃন্দ।

দুই মাসের বেশি সময় ধরে আন্দোলনের নামে সহিংসতা চলছে। এ সমস্যার কোন সমাধান না হওয়ায় হরতাল-অবরোধকে উপেক্ষা করেই ব্যবসা-বাণিজ্যের কাজ শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। একইসঙ্গে পরিবহন ব্যবস্থার উন্নতি হওয়ায় জমে উঠতে শুরু করেছে ব্যবসা-বাণিজ্য। ফলে ব্যবসায়ীদের মাঝে ফিরে এসেছে স্বস্তি। নগরীর সাহেব বাজারের কাঁচামাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন দীপক জানান, রাজশাহী থেকে খাদ্যশস্য ও শাক-সবজি ঢাকার বাজারসহ দেশের বিভিন্ন শহরে পৌঁছে যাচ্ছে। ফলে সব ধরনের পণ্যের যথেষ্ট সরবরাহ রয়েছে। রাজশাহী ট্রাক মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাদরুল ইসলাম জানান, রাজশাহীতে ৯০ ভাগ যানবাহন চলাচল করছে।

সাহেব বাজার বস্ত্র ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি অশোক কুমার সাহা বলেন, হরতাল-অবরোধে ব্যবসায়ীরা প্রায় নিঃস্ব হয়ে গেছেন। দোকানপাট বন্ধের জন্য হুমকি দিয়ে চিঠি দেয়া হচ্ছে। তারপরও তারা দোকানপাট খুলছেন। রেস্তরাঁ মালিক সমিতির সভাপতি রিয়াজ আহম্মদ খান বলেন, এখন অনেকটাই সচল হয়ে উঠেছে ব্যবসা। অটোচালক আব্দুর রাজ্জাক জানান, যানবাহন চলাচল শুরু হওয়ায় প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি জানান, দুই মাসের সহিংসতা রাজশাহীর ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হয়েছে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা। এই ক্ষতির ধকল কাটিয়ে উঠতে সময় লাগবে। তবে সবকিছু পেছনে ফেলে ব্যবাসয়ীরা এখন দোকানপাট খুলছেন। বাজারে মানুষের সমাগমও বেড়েছে। বেচাকেনাও হচ্ছে ভাল। সর্বত্র ফিরেছে প্রাণচাঞ্চল্য।

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



ব্রেকিং নিউজ: