মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১০ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

সঞ্চিতির শর্ত শিথিল

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫
  • মিউচুয়াল ফান্ডের লোকসান

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ মিউচুয়াল ফান্ডের বিনিয়োগে লোকসানের বিপরীতে সঞ্চিতি রাখার শর্ত শিথিল করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের গড় মূল্য, ক্রয় মূল্য তার বাজার মূল্য বা নিট সম্পদ মূল্যের যে কোন একটির চেয়ে ৮৫ শতাংশের বেশি কমে গেলে ব্যাংকগুলোকে সঞ্চিতি রাখতে হবে না। কিন্তু ক্রয় মূল্য এর চেয়ে কম কমলে প্রযোজ্য হারে সঞ্চিতি রাখতে হবে। পুঁজিবাজারের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় বাজার ও বিনিয়োগকারী ব্যাংকগুলোর সুবিধার্থে এ নমনীয় অবস্থান গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে দেশের সব তফসিলী ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীর কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

সঞ্চিতির ক্ষেত্রে ঘোষিত ছাড় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত এবং তালিকাবহির্ভূত সব মিউচুয়াল ফান্ডের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে। উল্লেখ, বর্তমানে বে-মেয়াদী মিউচুয়াল ফান্ডগুলো পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত। আর মেয়াদহীন ফান্ডগুলো তালিকাবহির্ভূত। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ইউনিটের ক্রয় মূল্য তার বাজার মূল্য বা চলতি বাজার মূল্যে নির্ণীত নিট সম্পদ মূল্যের (এনএভি) ৮৫ শতাংশের বেশি হলে সঞ্চিতি রাখতে হবে। এ ক্ষেত্রে সঞ্চিতির পরিমাণ নির্ধারণ করতে হবে দুটি পদ্ধতিতে। মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিটের বাজার মূল্য তার এনএভির চেয়ে বেশি হলে লোকসানের সমপরিমাণ অর্থ সঞ্চিতি রাখতে হবে। ইউনিটের গড় ক্রয় মূল্য থেকে তার বাজার মূল্য বাদ দিয়ে লোকসান নির্ণয় করতে হবে। বে-মেয়াদী ফান্ডের ক্ষেত্রে ইউনিটের ক্রয় মূল্য তার এনএভির ৮৫ শতাংশের সমান বা বেশি হলে সঞ্চিতি রাখতে হবে না। কিন্তু তার কম হলে গড় ক্রয় মূল্য ও এনএভির ব্যবধানের সমপরিমাণ অর্থ সঞ্চিতি রাখতে হবে।

প্রকাশিত : ১৩ মার্চ ২০১৫

১৩/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: