কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

এক নেত্রীর নির্দেশে নিরীহ মানুষ হত্যা করা হচ্ছে ॥ নাসিম

প্রকাশিত : ১১ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস ॥ ঢাকাসহ সারাদেশে অগ্নিদগ্ধ মানুষ শুয়ে কাতরাচ্ছে। জনগণের সংগ্রাম নেই। মানুষকে জ্বালিয়ে হত্যা করা হচ্ছে। এটা কোন আন্দোলন নয়, এটা মানুষ হত্যার আন্দোলন। ১৯৭১ সালে হানাদার পকিস্তানী সেনাবাহিনী এদেশে নিরীহ বাঙালীকে হত্যা করেছে, এখন এক নেত্রীর নির্দেশে নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম মঙ্গলবার বিকেলে গাবতলী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ১৪ দল আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি এ সময় নরঘাতকদের প্রতি তীব্র নিন্দা জানিয়ে তাদের বিচার দাবি করেন।

গাবতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচ আজম খানের সভাপতিত্বে জনসভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আব্দুল মান্নান এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, বাংলাদেশ সাম্যবাদী দলের সভাপতি দিলীপ বড়ুয়া, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শরিফ নুরুল আম্বিয়া, বাসদের আহ্বায়ক রেজাউল রশিদ খান, গণ-আজাদী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস সিকদার, ন্যাপের (ঐক্য) সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক প্রমুখ। বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আব্দুর রাজ্জাক মিলু।

বগুড়ার গাবতলীর এই এলাকা বিএনপি অধ্যুষিত বলে বিএনপি পরিচয় দেয়। উপজেলার বাগবাড়ি গ্রামে জিয়াউর রহমানের বাড়ি। বিএনপি মনে করে গাবতলীতে অন্য রাজনৈতিক দলের কর্মী-সমর্থক নেই। বিএনপির এমন মনোভাব যে ঠিক নয়, তা দেখিয়ে দিল এলাকার মানুষ। জনসভার নির্ধারিত স্থানে দুপুরের পর থেকেই মানুষের ঢল নামে। প্রধান অতিথি ও ১৪ দলের নেতাদের আসার আগেই মাঠ ভরে যায়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, কোন নামের (জিয়াউর রহমান) পরিচিতির এলাকায় তিনি আসেননি, তিনি এসেছেন যেখানে হাজারও মানুষ বাস করে। তাদের কল্যাণের জন্য আওয়ামী লীগ রাজনীতি করে। বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, গত নির্বাচনের আগে শেখ হাসিনা সংলাপের আহ্বান জানিয়েছিলেন। সংলাপ ও নির্বাচনে অংশ নেননি। তিনি নির্বাচনী ট্রেন ফেল করেছেন, নির্বাচনী ট্রেন আবার আসবে ২০১৯ সালে। এর আগে মধ্যবর্তী নির্বাচন কেন, কোন নির্বাচনই হবে না। মন্ত্রীর বক্তব্যকে সমর্থন দিয়ে প্রায় একই কথা বলেন জোটের নেতৃবৃন্দ।

এর আগে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসক, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানেও মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগ চিকিৎসা সেবাকে উন্নত করতে যা যা করা দরকার, তাই করবে। ইতোমধ্যে এই মেডিক্যাল কলেজে নতুন ১২টি বিভাগ চালু করা হয়েছে। জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে ছয় হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হয়েছে, তারা নিজ এলাকার গ্রামে গিয়ে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার প্রতিটি উপজেলায় চিকিৎসকদের আবাসিক ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা করেছে।

প্রকাশিত : ১১ মার্চ ২০১৫

১১/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: