মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
১১ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

অফিসিয়াল ফেসবুকে সিএসই

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) চেয়ারম্যান ড. আব্দুল মজিদ আশা করছেন, পুঁজিবাজার সম্পর্কে বিনিয়োগকারীদের আরও সচেতন করতে অনলাইনে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। সিএসইর এই পেইজে কারসাজি চক্র বা অন্য কেউ মূল্য সংবেদনশীল তথ্য ট্যাগ করতে পারবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে তিনজন এই পেইজের তথ্যাদি সম্পাদনার কাজে জড়িত থাকবেন, তাই কেউ ইচ্ছা করলেই কোন মূল্য সংবেদনশীল তথ্য সংযোজন করে বিনিয়োগকারীদের বিভ্রান্ত করতে পারবেন না।

সোমবার দুপুরে সিএসই কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানটির একটি ফেসবুক পেইজ উদ্বোধনকালে তিনি এই আশা প্রকাশ করেন। পেইজটি হবে সিএসই অফিসিয়্যাল পেইজ (িি.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/ নধহমষধফবংযপংব). তিনি আরও বলেন, আমরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের আরও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে চাই। অনেক তথ্যই তারা এখান থেকে পেতে পারবেন। এর মাধ্যমে বাজারে বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের জ্ঞান আরও বাড়াবে। বিনিয়োগে আরও আগ্রহী হবেন তারা।

সিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়ালি-উল মারুফ মতিন বলেন, পুঁজিবাজার সম্পর্কে আরও সচেতনতা বৃদ্ধি করতে আমরা বিনিয়োগকারীদের এটা উপহার দিতে চাই। এই ফেসবুক পেইজ থেকে বিনিয়োগকারীরা সঠিক সময়ে সঠিক তথ্য পাবেন। এজন্য আমরা সব সময়ই সচেষ্ট থাকব। তিনি আরও বলেন, এই পেইজে যেন বাজার সম্পর্কে কোন ভুল মন্তব্য না থাকে সে জন্য থাকবে আমাদের কমেন্ট ফিল্টারিং প্যানেল। এছাড়া সিএসইর নামে ভুয়া পেইজ বন্ধের জন্য ইতোমধ্যে বিটিআরসির সঙ্গে কথা বলেছি। এই ভুয়া পেইজ বন্ধ করতে হবে। কারণ এখনও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সিকিউরিটি নিশ্চত নয়।

তিনি আরও বলেন, আমরা এই পেইজটিতে বিভিন্ন তথ্য দেব। তবে বাজারকে প্রভাবিত করে কিংবা কোন বিনিয়োগকারীকে বলা হবে না যে আপনি এই শেয়ারটি কেনেন/ বিক্রি করেন। কেনা/ বেচার তথ্য দেয়ার অধিকার আমাদের নেই। এই সময়ে অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বতন্ত্র পরিচালক মুহাম্মদ আইয়ুব ইসলাম, শাখাওয়াত হোসাইন, মঈনুল ইসলাম মাহমুদ, সফিউল ইসলাম, শেয়ারহোল্ডার পরিচালক, মুহামদ খায়রুল আনাম চৌধুরী, মোহাম্মদ মহিউদ্দিন প্রমুখ।

অকারণে দর বাড়ছে ইফাদ অটোসের

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রকৌশল খাতের নতুন কোম্পানি ইফাদ অটোসের শেয়ার দর বাড়ার কোনো কারণ নেই। শেয়ারটির অস্বাভাবিক দর বাড়ার পেছনে কারণ জানতে চাইলে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ এমনটাই জানায় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জকে (ডিএসই)। ঢাকা স্টক একচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। জানা গেছে, শেয়ারটির অস্বাভাবিক দর বাড়ার পেছনে কারণ জানতে চেয়ে রবিবার ডিএসই নোটিস পাঠায়। এর জবাবে কোম্পানিটি জানায়, কোনো রকম মূল্য সংবেদনশীল তথ্য ছাড়াই শেয়ারটির দর বাড়ছে। বিশ্লেষণে দেখা যায়, গত চার কার্যদিবস ধরে ধারাবাহিকভাবে শেয়ারটির দর বাড়ছে। এ সময়ে শেয়ারটির দর ৫২ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকা পর্যন্ত হয়। অর্থাৎ শেয়ারটির দর বেড়েছে প্রায় ৮ টাকা বা ১৫ শতাংশ। আর শেয়ারটির এই দর বাড়াকে অস্বাভাবিক বলে মনে করছেন ডিএসই কর্তৃপক্ষ। গত ৫২ সপ্তাহে শেয়ারটির দর বেড়েছে ৪০ টাকা থেকে ৭৫ টাকা ৯০ পয়সা পর্যন্ত। উল্লেখ্য, ‘এন’ ক্যাটাগরির কোম্পানিটি ২০১৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়।

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫

১০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: