আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

রাজশাহী বিসিক সম্প্রসারণ ও শিল্পনগর স্থাপনের উদ্যোগ

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫
  • কর্মসংস্থান হবে ৫ হাজার মানুষের

মামুন-অর-রশিদ, রাজশাহী ॥ রাজশাহীতে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক) সম্প্রসারণ করে নতুন শিল্পনগর স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে শিল্পনগরী গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। গড়ে তোলা শিল্পনগরে ৩০৮টি প্লট থাকবে এবং সেখানে পাঁচ হাজার মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলে জানা গেছে। শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু রবিবার রাজশাহীর বিসিকে একটি কারখানা উদ্বোধন করতে এসে এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ৩০ একর জমির ওপর রাজশাহী বিসিক শিল্পনগর সম্প্রসারণের প্রকল্প প্রস্তাব ইতিমধ্যে (ডিপিপি) অনুমোদন হয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ৩০ একরের বদলে ৫০ একর জমির ওপর ১৩২ কোটি টাকা ব্যয়ে রাজশাহী বিসিক শিল্পনগর সম্প্রসারণের প্রস্তাবটি বর্তমানে পরিকল্পনা কমিশনে বিবেচনাধীন আছে।

মন্ত্রী বলেন, রাজশাহীর উন্নয়নে সরকারের আলাদা দৃষ্টিভঙ্গী রয়েছে। এখানকার শিল্প সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সরকার রাজশাহী শিল্প পার্ক স্থাপনের কাজ হাতে নিয়েছে। তিনি জানান, ইতোপূর্বে ২০০৬-২০০৭ অর্থবছরে দেশের শিল্প নগরীগুলোতে যেখানে ১৫ হাজার ৩৩১ কোটি টাকার পণ্য উৎপাদিত হয়েছিল, সেখানে গত ২০১৩-১৪ অর্থবছরে ৪২ হাজার ৫০৯ কোটি টাকার পণ্য সামগ্রী উৎপাদিত হয়েছে। এর মধ্যে ২৩ হাজার ৭৪৬ হাজার কোটি টাকার পণ্যই রফতানিযোগ্য। এসব শিল্প নগরীর কারখানাগুলোতে পাঁচ লাখ ২৬ হাজারেরও বেশি লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। এ শিল্প ইউনিটগুলো থেকে দুই হাজার ৪৫০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় হয়েছে বলেও জানান তিনি। এসব বিষয় মাথায় রেখে সরকার রাজশাহীর উন্নয়নে বিসিক সম্প্রসারণের মাধ্যমে শিল্প নগর স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। মন্ত্রী জানান, বর্তমান সরকারের শিল্পবান্ধব নীতি ও প্রচেষ্টা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি শিল্প সমৃদ্ধ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করবে। কারণ সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করতে বদ্ধপরিকর।

এদিকে রাজশাহীকে ঘিরে শিল্পমন্ত্রীর উন্নয়ন কর্মকা- ও আশার বাণীতে নতুন করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা। রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সাবেক পরিচালক ও রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান বলেন, সরকারের উদ্যোগ ভাল। তবে রাজশাহী বিসিকের যেসব কলকারখানা বন্ধ রয়েছে সেগুলোও চালুর উদ্যোগ নিতে হবে। ব্যবসায়ীদের জন্য ঋণসুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। বন্ধ কলকারখানা চালু করা হলেও অনেক কর্মস্থান বৃদ্ধি পাবে। তিনি বলেন, বন্ধ কলকারখানা চালুর পাশাপাশি বিসিক সম্প্রসারণ ও শিল্পনগর গড়ে তুললে ব্যবসা বাণিজ্যের ক্রেত্রে জেগে উঠবে রাজশাহী।

রাজশাহী সদর আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, বর্তমান সরকার রাজশাহীর উন্নয়নে অনেক উদ্যোগ নিয়েছে। তারমধ্যে একটি শিল্পনগর প্রতিষ্ঠা। তিনি বলেন, সরকার রাজশাহী বিসিক সম্প্রসারণ করলে রাজশাহীর ব্যবসা-বাণিজ্যের গতি বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যবসায়ীরা নতুন করে উজ্জীবিত হতে পারবে।

প্রকাশিত : ১০ মার্চ ২০১৫

১০/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: