কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৫ ডিসেম্বর ২০১৬, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

বাংলাদেশে ইকেবানা

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫

ফুলের প্রতি মানুষের ভালবাসা, কদর ও চর্চা বৃদ্ধি, উৎসাহ এবং বিশেষ করে মহিলাদের অর্থনৈতিকভাবে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশে সুবর্ণরেখা আর্ট এ্যান্ড ক্রাফট সেন্টার এশিয়া বুংকা কাইকান দোসোকাই, ফ্লাওয়ার ক্লাব, ইউনেস্কো ক্লাব, ইন্টারন্যাশনাল পেনপলস্্ ক্লাব, ইকেবানা স্কুলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন হতে বাংলাদেশে ইকেবানা প্রদর্শনী ও প্রতিযোগিতার আয়োজন করার মাধ্যমে ইকেবানাকে জনপ্রিয় করে তুলতে সক্ষম হয়েছে।

পরিবেশকে শোভাময় ও সুন্দর করার জন্য ইকেবানা প্রদর্শনী বা প্রতিযোগিতার মাধ্যমে এর জনপ্রিয়তা যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। সৌন্দর্য এবং শুদ্ধতার প্রতীক হিসেবে প্রতিটি মানুষই ফুলকে ভালবাসে। জাপানী ভাষায় ‘ইকো’ অর্থ বাঁচিয়ে রাখা, আর ‘বানা’ অর্থ ফুল। সাজসজ্জার উপযোগী করে বিশেষ পদ্ধতিতে ফুলকে বাঁচিয়ে রাখার নামই হচ্ছে ইকেবানা। বাংলাদেশ জাপানী পদ্ধতিতে ফুল সাজানো, ইকেবানা চর্চা ও এর প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কদর বৃদ্ধির ব্যাপারে ইকেবানা বিশেষজ্ঞ মিসেস মালেকা খানের নাম চলে আসে। তিনি এই বৃদ্ধ বয়সেও খুব চমৎকারভাবে ফ্লাওয়ার এরেঞ্জমেন্টের মাধ্যমে ইকেবানাকে দেশবাসীর সামনে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন। ইকেবানা জাপানী শব্দ হলেও প্রাকৃতিক ফুল ও গাছের সমন্বয়ে ঘরে বা বিভিন্ন অফিসে বা অনুষ্ঠানে ফুল সাজানো পদ্ধতিই হলো ইকেবানা। জাপানে এটা বিখ্যাত হলেও আমাদের দেশে এর যথেষ্ট সুনাম ও কদর বেড়েছে। মিসেস মালেকা খানের মতে ইকেবানা হচ্ছে তাজা ফুলের শিল্পকর্ম। এ শিল্পকর্মে লুকিয়ে থাকে বিশেষ কোন বার্তা শান্তি অথবা কল্যাণের সুর। তার মতে মানুষ স্বর্গ থেকেই আসে পৃথিবীতে এমনটিও ইকেবানার প্রতীকী অর্থ। ইকেবানা পদ্ধতিতে এই ফুল সাজানো সঠিক পদ্ধতি জানা থাকলে তা যেমন বেশিদিন সংরক্ষণ করা যায় তেমনি নান্দনিকতারও পরিচয় মেলে।

ফুলকে শুধু বাগানে ফুটে থাকলে চলবে না। তাই তো পরম মমতায় গৃহের ছোট্ট পরিসরে ফুলদানি বা পিন হোল্ডারের মাধ্যমে ফুল সাজিয়ে রেখে মানুষ ফুলের বন্দনা করছে। এই ফুল বন্দনার কত যে অভিনব কলাকৌশল আছে তার অনেক কিছুই আমাদের অজানা। কিভাবে ফুলকে সুন্দর করে আরও মোহনীয় করে সাজানো যায় তা নিয়ে মানুষের চিন্তার অন্ত নেই। ফুল ডালের আকৃতি কেমন হলে আরও সুন্দর হবে, কি পাত্রে রাখা হলে আরও মোহনীয় দেখাবে এদের, কেমন করে রাখা হবে, তার ধরন-ধারণাই বা কি হবে, কত ফুল নেয়া হলে মানানসই হবে, অন্যদিকে ফুলের অপচয় না করে কিভাবে সাজানো যায়, এমনি হাজারও প্রশ্ন রয়েছে মানুষ ও ফুলপ্রেমীকদের মনে। এর উত্তর খুঁজতেই অনন্য শিল্প ইকেবানার সৃষ্টি। বিশ্বে জাপান আজ ইকেবানাকে তাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে।

চীন দেশে ইকেবানার যাত্রা শুরু হলেও শত শত বছর ধরে ধারাবাহিক বিকাশ, লালন আর রূপান্তর হয়েছে জাপানে। জাপান দেশে ইকেবানা ঐতিহ্যবাহী-সংস্কৃতি। তাই ইকে অর্থ জীবন্ত বা বাঁচা আর বানা অর্থ ফুল। আক্ষরিক অর্থ দিয়ে ইকেবানা সম্পূর্ণভাবে বোঝানো যাবে না। এর নিজস্ব একটা দর্শন আছে। তবে সাদামাটাভাবে এটা বলা যায় না যে, ইকেবানার অর্থ হলো, ফুলকে বাঁচিয়ে রাখা, ফুলকে জীবন্ত রাখা। এটা একটা সুকুমার শিল্পকলা। ইকেবানাকে সংক্ষেপে বোঝানো খুবই কঠিন। তবে এর বন্দনা করতে করতে ধীরে ধীরে এর সঙ্গে মিশে যাওয়া খুবই সহজ পন্থা। ইকেবানাকে জানতে হলে প্রকৃতিকে জানতে হয় আর প্রকৃতি যে মানুষের সবচাইতে প্রিয় বস্তু। ইকেবানা সেকথা কখনও ভুলতে দেয় না। ইকেবানা মানুষকে ভালবাসতে শেখায়। ইকেবানা মানুষের মনে ভালবাসার ব্যাপ্তি ঘটায়। মন প্রফুল্ল রাখার মহৌষধ হচ্ছে ইকেবানা।

নান্দনিক সৌন্দর্যের প্রতীক ফুলকে গৃহের সৌন্দর্য বর্ধনে বিশেষভাবে সাজানো এবং সংরক্ষণ করার ওপর এ দেশের মহিলারা এখন অনেক পারদর্শী। ফুলের প্রতি ভালবাসা বৃদ্ধি, ঘর সাজাবার জন্য একে শিল্পকলার আঙ্গিকে উপস্থাপন এবং বিশেষ করে মহিলাদের গৃহস্থালি কাজের পাশাপাশ বিকল্প আয়ের উৎস হিসেবে দেশে আজ ইকেবানার চাহিদা বহুগুণ বেড়েছে। সৌন্দর্য ও শুদ্ধতার প্রতীক হিসেবে প্রতিটি মানুষই ফুলকে ভালবাসে। এই ফুল সাজাবার বিশেষ কৌশল জানা থাকলে এতে যেমন নান্দনিকতার পরিচয় মেলে তেমনি বেশিদিন ইকেবানার মাধ্যমে ফুলকে সংরক্ষণ করা সহজ। ইকেবানা বিশেষজ্ঞ মালেকা খানের মতে ইকেবানা, এটা মূলত এক ধরনের চিত্রকলা। চিত্রকলার মাধ্যমে যেমন কোন বিষয়বস্তু ফুটিয়ে তোলা হয়, ঠিক তেমনি প্রতিটি ইকেবানার মাধ্যমে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য বেরিয়ে আসে। সাধারণ মানুষের বোঝার সুবিধার জন্য বিভিন্ন ফুলের কম্বিনেশন দিয়ে পাত্রে সাজানো ফুলগুলোর ভিন্ন ভিন্ন নাম দিয়ে এর প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া হয়। একথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে, বাংলাদেশে দিন দিন ইকেবানার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশেষ করে তরুণীদের মাঝে ইকেবানার প্রতি ভীষণ আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে। আসুন, শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য ইকেবানার মাধ্যমে ফুলকে বাঁচিয়ে রাখতে চেষ্টা করি।

মাহবুবউদ্দিন চৌধুরী

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫

০৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: