কুয়াশাচ্ছন্ন, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৪ ডিসেম্বর ২০১৬, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

অনন্য উচ্চতায় সাঙ্গাকারা

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫
  • প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে বিশ্বকাপে টানা তিন সেঞ্চুরি, ওয়ানডেতে ১৪ হাজার রানের মাইলফলক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এখন পর্যন্ত চলতি বিশ্বকাপে কোন অর্ধশতক নেই শ্রীলঙ্কার অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান কুমার সাঙ্গাকারার। কিন্তু যা করেছেন সেটা এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের ইতিহাসে কোন ব্যাটসম্যান করে দেখাতে পারেননি। টানা তিন সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে নতুন ইতিহাস গড়েছেন তিনি। বিশ্বকাপে এর আগে কোন ব্যাটসম্যানই টানা তিন শতক হাঁকাতে পারেননি। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ১০৫ ও ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১১৭ রানের দুটি অপরাজিত ইনিংস খেলার পর এবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে করলেন ১০৪। অবশ্য এবার তিনি আউট হয়ে গেছেন। শনিবার সিডনিতে অবশ্য তিনি আউট হয়ে গেছেন। তবে ক্যারিয়ারের ২৪তম শতক হাঁকিয়ে তিনি পেরিয়ে গেছেন ওয়ানডেতে ১৪ হাজার রানের মাইলফলক। এই ক্লাবের একমাত্র সদস্য তিনি। ওয়ানডে ইতিহাসে সর্বাধিক রান করার দিক থেকে অনেক আগেই দুইয়ে উঠেছিলেন। বর্তমানে তাঁর রান ১৪ হাজার ৬৫। বিশ্বকাপে তাঁর মোট শতরান চারটি। ছুঁয়ে ফেলেছেন স্বদেশী মাহেলা জয়াবর্ধনে, দক্ষিণ আফ্রিকার এবি ডি ভিলিয়ার্স, ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলী, অস্ট্রেলিয়ার মার্ক ওয়াহকে। আর পেছনে ফেলেছেন তিন শতক হাঁকানো স্বদেশী সনাথ জয়সুরিয়া ও তিলকারতেœ দিলশানকে ছাড়াও রমিজ রাজা, সাঈদ আনোয়ার, ভিভ রিচার্ডস ও ম্যাথু হেইডেনকে। এখন তাঁর সামনে ৫ শতক হাঁকানো রিকি পন্টিং ও ৬ শতক হাঁকানো শচীন টেন্ডুলকার। চলতি বিশ্বকাপে ৩৭২ রান করে এখন সাঙ্গাকারা সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ব্যাটিং গড়েও সবার ওপর তিনি। ৫ ম্যাচে এ রান করেছেন তিনি অবিশ্বাস্য ১২৪.০০ গড়ে!

বয়স ৩৭ পেরিয়ে গেছে। ক্যারিয়ারের শেষ সময় উপস্থিত। ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন, আগামী আগস্টে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় দেয়ার। আর বিশ্বকাপের আগেই জানিয়ে রেখেছেন আসর শেষ হলেই ওয়ানডে থেকে সরে দাঁড়াবেন। ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ খেলছেন তিনি। আর সে কারণেই হয়ত আরও জ্বলে উঠেছেন সাঙ্গাকারা। সেঞ্চুরির নেশায় পেয়ে বসেছে তাঁকে। ২০০৩, ২০০৭ ও ২০১১ বিশ্বকাপ খেলে মাত্র একটি শতক আর সাতটি অর্ধশতক হাঁকিয়ে ছিলেন তিনি। এবার বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে ৩৯ ও ৭ রান করেছিলেন। কিন্তু নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান হিসেবে সাঙ্গাকারার কাছে যেন আরও বেশি প্রত্যাশা দলের। সেই আস্থার প্রতিদান দিলেন তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ ও আগের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে বড় গুরুত্বপূর্ণ সময়ে। দুই ম্যাচেই অপরাজিত শতক হাঁকিয়ে দলকে বিজয়ী করে মাঠ ছাড়লেন তিনি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আরও বড় পরীক্ষা লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের। কারণ প্রথম ব্যাট করে অসিরা ৯ উইকেটে ৩৭৬ রানের পাহাড় গড়ল। বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। এবারও দায়িত্বটা চাপল সাঙ্গাকারার কাঁধে। দ্বিতীয় উইকেটে তিনি দিলশানের সঙ্গে জুটি বেঁধে যোগ করলেন ১৩০ রান। তৃতীয় উইকেটে জয়াবর্ধনের সঙ্গে আরও ৫৩ রান। ওই দু’জন ফিরে গেলেও উইকেটে ঠিকই থাকলেন সাঙ্গাকারা। পেয়ে গেলেন ক্যারিয়ারের ২৪তম শতক। স্বদেশী জয়সুরিয়ার আরও নিকটবর্তী হলেন তিনি। জয়সুরিয়ার মোট ওয়ানডে শতক ২৮টি। ওয়ানডের ইতিহাসে রান করার দিক থেকে এখন শুধু সাঙ্গাকারাই একমাত্র ব্যাটসম্যান যার রান ১৪ হাজার। এতদিন ১৩ হাজারী ক্লাবে তিনি স্বদেশী জয়সুরিয়া (১৩,৪৩০) ও অস্ট্রেলিয়ার পন্টিংয়ের (১৩,৭০৪) সঙ্গে ছিলেন। এখন সাঙ্গাকারার রান ১৪ হাজার ৬৫। ৪০২ ওয়ানডেতে ব্যাটিং গড় ৪১.৭৩। অবশ্য অনেক এগিয়ে আছেন শচীন, যাকে ছোঁয়া আর সম্ভব নয় সাঙ্গাকারার। ৪৬৩ ওয়ানডে খেলা শচীনের রান ১৮ হাজার ৪২৬। শচীনকে না ছুঁতে পারলেও বিশ্বের সব ব্যাটসম্যানকেই ছাড়িয়ে গেছেন সাঙ্গাকারা। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শতক হাঁকিয়ে তিনি গড়েছেন নতুন এক রেকর্ড। এর আগে বিশ্বকাপে কোন ব্যাটসম্যানই টানা তিন ম্যাচে শতক হাঁকাতে পারেননি। সেটার অনন্য কৃতিত্ব দেখালেন সাঙ্গাকারা। তবে ওয়ানডেতে এর আগে টানা তিন শতক আছে ৬ ব্যাটসম্যানের। পাকিস্তানের জহির আব্বাস ও সাঈদ আনোয়ার, দক্ষিণ আফ্রিকার হার্শেল গিবস, এবি ডি ভিলিয়ার্স ও কুইন্টন ডি কক এবং নিউজিল্যান্ডের রস টেলর এ কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। চলতি বিশ্বকাপে তিন শতক হাঁকানো সাঙ্গাকারা এখন রানের দিক থেকে শীর্ষে। ৫ ম্যাচে ১২৪.০০ গড়ে তিনি ৩৭২ রান করেছেন। দ্বিতীয় স্থানে আছেন ভিলিয়ার্স ৫ ম্যাচে ৭৯.৫০ গড়ে ৩১৮ রান তুলে।

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫

০৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



ব্রেকিং নিউজ: