আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

কেরি এ মাসেই আসছেন

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি চলতি মাসেই বাংলাদেশ সফরে আসছেন। জন কেরির বাংলাদেশ সফর নিয়ে ঢাকা-ওয়াশিংটনে এখন তোড়জোড় শুরু হয়েছে। চলতি মাসের শেষের দিকে তিনি বাংলাদেশে আসছেন। ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, জন কেরির বাংলাদেশ সফর নিয়ে ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে তাঁর সফরের প্রাথমিক সময়সূচী নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে জন কেরি শুধু বাংলাদেশ সফরের উদ্দেশেই এশিয়া অঞ্চলে আসছেন না। এই মাসের শেষের দিকে তিনি জাপান সফরে যাচ্ছেন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে জাপান সফরের আগে অথবা পরে তিনি বাংলাদেশে আসবেন। তার এই সফরসূচী নিয়ে ঢাকা ও ওয়াশিংটনের মধ্যে আলোচনা চলছে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির ঢাকা সফরকালে বাংলাদেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এছাড়া মানবাধিকার পরিস্থিতি, সুশাসন, রোহিঙ্গা সমস্যা, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ নিরসন ইত্যাদি নিয়ে আলোচনা হবে। লেখক ব্লগার অভিজিত রায়ের হত্যাকা- নিয়েও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এখন আগ্রহ রয়েছে। তাই এসব বিষয়ও আলোচনায় স্থান পাবে।

এর আগে ১৬ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফর করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। সে সময় ওয়াশিংটনে জন কেরির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হন তিনি। ওই বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জন কেরিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। ঢাকায় ফিরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির আসার বিষয়ে দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি। তবে তিনি আসছেন। তিনি (কেরি) আমায় বলেছেন, আমি অবশ্যই যাব।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আহ্বানে হোয়াইট হাউসে জঙ্গী ও সন্ত্রাসবিরোধী আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিতে ওয়াশিংটনে যান মাহমুদ আলী। যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় তিনি জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সঙ্গে পৃথক বৈঠকে মিলিত হন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠকে জন কেরি বাংলাদেশে চলমান নাশকতার তীব্র নিন্দা জানান। এছাড়াও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশ সরকারের পাশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রয়েছে বলেও জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

দেশে সরকারবিরোধী আন্দোলনে থাকা বিএনপি জোটের হরতাল-অবরোধে নাশকতার মধ্যে সহিংস জঙ্গীদের মোকাবেলা বিষয়ক এক সম্মেলনে অংশ নিতে ওয়াশিংটন যান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। সে সময় বাংলাদেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে জন কেরি বলেন, সাধারণ মানুষকে সহিংসতার লক্ষ্যবস্তু করার সমালোচনা করে তা কোনভাবে সহ্য করার নয় বলে মন্তব্য করেছেন কেরি। সরকারকে তা থামানোর আহ্বান জানানোর পাশাপাশি সব রাজনৈতিক দলের মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিতের আহ্বান জানান তিনি। বাংলাদেশে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখার প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনের কথাও জানান কেরি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে জন কেরি বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র রয়েছে। তারা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অব্যাহত দেখতে চায়। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক উন্নয়নেরও প্রশংসা করেন।

উল্লেখ্য, জন কেরির আগে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বে থাকা হিলারি ক্লিনটন ২০১২ সালে বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন। হিলারির পর জন কেরির এবারের বাংলাদেশ সফরকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করছে দুই দেশ।

প্রকাশিত : ৯ মার্চ ২০১৫

০৯/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



ব্রেকিং নিউজ: