আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৬ ডিসেম্বর ২০১৬, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

শিল্পকলায় সপ্তাহব্যাপী দুই বাংলার নাট্যমেলা শুরু

প্রকাশিত : ৭ মার্চ ২০১৫
শিল্পকলায় সপ্তাহব্যাপী দুই বাংলার নাট্যমেলা শুরু
  • সংস্কৃতি সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নাটক নিয়ে চমৎকার এক আয়োজন। এক উৎসবে যুক্ত বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিবঙ্গের নাট্যশিল্পীরা। সেই উৎসবে আবার ঠাঁই পেয়েছে বাঙালীর মননের বাতিঘর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কয়েকটি নাটক। সব মিলিয়ে দুই বাংলার ১৩টি দর্শকনন্দিত নাটক দিয়ে সাজানো হয়েছে নাট্যদল প্রাঙ্গণেমোর আয়োজিত উৎসব। শিরোনাম ‘দুই বাংলার নাট্যমেলা রবীন্দ্রনাট্য ও অন্যান্য’। নাট্যমেলাটি উৎসর্গ করা হয়েছে প্রয়াত নাট্য অভিনেতা ও নির্দেশক খালেদ খানকে।

শুক্রবার ছুটির দিনের বসন্ত বিকেলে বর্ণিল আয়োজনে সপ্তাহব্যাপী এই নাট্যমেলার উদ্বোধন করা হয়। মেলার সূচনা দিনে উৎসব প্রাঙ্গণ শিল্পকলা একাডেমির নাট্যশালা আঙিনায় ছিল আনন্দমুখর পরিবেশ। নাট্যশালার ভেতরের করিডর ও বাইরের লবিতে ছিল নাট্যকর্মীসহ নানা শিল্পের নানা ভুবনের মানুষদের সরব উপস্থিতি। আর উৎসব উপলক্ষে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরসহ যেসব নাট্যকারের নাটক মঞ্চস্থ হবে তাঁদের প্রতিকৃতিসহ বিভিন্ন বর্ণিল অনুষঙ্গ দিয়ে সাজানো হয় পুরো আঙিনা।

নাট্যশালার বাইরের খোলায় আঙিনায় জাতীয় সঙ্গীতের সুরের আবাহনে উৎসবের সূচনা হয়। এরপর গানের সুরে সুরে উপস্থাপিত হয় আয়োজক সংগঠনের শিল্পীদের নৃত্য পরিবেশনা। নিজেদের প্রতিকৃতিতে স্বাক্ষর করে উৎসব উদ্বোধক করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী ও নাট্যজন আসাদুজ্জামান নূর, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক, অভিনেতা ও নাট্য নির্দেশক নাট্যজন আতাউর রহমান, সংস্কৃতি সচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পরিচালক সিদ্ধার্থ চট্টোপাধ্যায়, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক ও বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সভাপতি লিয়াকত আলী লাকী। এ সময় মঞ্চে ডেকে নেয়া হয় খালেদ খানের স্ত্রী মিতা হক এবং মেলা জয়িতা খান ও ভাই শাহীন খানকে। এ সময় মিতা হক প্রতিবছর মঞ্চের সেরা মঞ্চনাটক ও শ্রেষ্ঠ অভিনয়শিল্পীকে আগামীতে খালেদা খান পুরস্কার প্রদানের ঘোষণা দেন।

আসাদুজ্জামান নূর বলেন, এই নাট্যমেলায় যোগ দিয়ে মনে হচ্ছে জীবনের অর্থ হচ্ছে আনন্দময়তা। যদিও আজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের পোড়া মানুষদের দেখে মনে হয়েছিল এখানে আসা কী উচিত হবে? পরবর্তীতে মনে হলো মৃত্যুর ভেতর দিয়েই এগিয়ে যাবে জীবন। দেশের নাট্যচর্চা প্রসঙ্গে বলেন, বর্তমানে অসংখ্য তরুণ-তরুণীর নাট্যচর্চায় সম্পৃক্ত হওয়ার বিষয়টি আশাব্যঞ্জক।

উদ্বোধনী আনুষ্ঠানিকতা শেষে নাট্যশালার মূল মঞ্চে মঞ্চস্থ হয় ভারতের পূর্ব-পশ্চিম নাট্যদলের প্রযোজনা রক্তকরবী। আর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে ঢাকার নাট্যদল সময় উপস্থাপন করে ভাগের মানুষ। নাট্যমেলায় প্রতিদিন সন্ধ্যা সাতটায় নাট্যশালার মূল মঞ্চ ও এক্সপেরিমেন্টাল মঞ্চস্থ হবে দুই বাংলার নাটক। আজ শনিবার উৎসবের দ্বিতীয় দিনে মূল মঞ্চে মঞ্চস্থ হবে প্রাঙ্গণেমোর প্রযোজনা শেষের কবিতা। আর এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে মঞ্চস্থ হবে সুবচন নাট্য সংসদের প্রযোজনা মহাজনের নাও।

যশোর হত্যাকা- দিবসের প্রতিবাদী অনুষ্ঠান ॥ শুধু প্রতিবাদ নয়, প্রতিরোধের ডাক দিয়ে যশোর হত্যাকা-ের ১৬তম বার্ষিকী পালন করল বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। এ উপলক্ষে ওই নৃশংস হামলায় নিহত শহীদদের স্মরণ এবং হত্যাকা-ের পুনঃতদন্ত দ্রুত সম্পন্ন করে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি নিয়ে শুক্রবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির স্বোপার্জিত স্বাধীনতা চত্বরে প্রতিবাদী সাংস্কৃতিক সমাবেশ করে উদীচী। সমাবেশের শুরুতেই যশোর হত্যাকা-ের শিকার শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত অস্থায়ী বেদিতে শ্রদ্ধা জানান উদীচীর কেন্দ্রীয় সংসদ, ঢাকা মহানগর সংসদ ও এর অন্তুর্ভুক্ত বিভিন্ন শাখা সংসদ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, সঙ্গীত সংগঠন সমন্বয় পরিষদ, গণসঙ্গীত সমন্বয় পরিষদ, প্রগতি লেখক সংঘসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এরপর উদীচী ঢাকা মহানগর সংসদের শিল্পীরা পরিবেশন করেন গণসঙ্গীত ‘ওরা বোমাবাজ, ওরা যুদ্ধবাজ, ওরা জঙ্গী, ওদেরকে রুখো’ গানটি। গান শেষে যশোর বোমা হামলাসহ পরবর্তীতে দেশের শিক্ষা-সংস্কৃতির ওপর চালানো সকল বর্বরোচিত হামলায় নিহতদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

চারুকণ্ঠের আবৃত্তিসন্ধ্যা ‘বিনম্র রোদের ছায়া’ ॥ চারুকণ্ঠ আবৃত্তি সংসদ নবীন আবৃত্তিশিল্পীদের বাচিক, উপস্থাপনা ও আবৃত্তিশিল্পী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে কয়েক বছর ধরে নিয়মিতভাবে ‘বিনম্র রোদের ছায়া’ শিরোনামে আবৃত্তি অনুষ্ঠান করে আসছে। সেই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সন্ধ্যায় সুফিয়া কামাল জাতীয় গণগ্রন্থাগারের সেমিনার কক্ষে অনুষ্ঠানের ষোড়শ পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এ পর্বে চারুকণ্ঠ ও আমন্ত্রিত শিল্পীবৃন্দ কবি কাজী রোজীর কবিতা আবৃত্তি করেন।

প্রকাশিত : ৭ মার্চ ২০১৫

০৭/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



ব্রেকিং নিউজ: