মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২১.১ °C
 
৯ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ

পুঁজিবাজারে বড় মূলধনী কোম্পানির দরপতন

প্রকাশিত : ৫ মার্চ ২০১৫
  • সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে সামান্য

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে সূচকের নেতিবাচক প্রবণতা অব্যাহত রয়েছে। প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বুধবার মূল্য সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে। ৫১ ভাগ কোম্পানির দর বাড়লেও মূলত বড় মূলধনী কোম্পানি দর কমার কারণে সূচকের পতন ঘটেছে। তবে সূচক কমলেও সেখানে লেনদেন বেড়েছে সামান্য। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন শেষ হয়েছে।

বাজার সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা- বিনিয়োগকারীদের দ্রুত মুনাফা তোলার প্রবণতার সঙ্গে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা সম্পর্কিত বিষয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় বাজারে কিছুটা বিভ্রান্তি রয়েছে।

বিএনপি চেয়ারপার্সন গ্রেফতার হলে রাজনৈতিক অস্থিরতা আরও বাড়বে- এমন শঙ্কায় বাজারে বড় ধরনের ক্রয়াদেশ আসছে না। যে কারণে সামান্য সূচকের উত্থান-পতন থাকলেও লেনদেন বাড়ছে না। সবাই অপেক্ষা করছে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ফিরে আসায়। প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে ব্যক্তিপর্যায়ের বড় বিনিয়োগকারীরাও যেন বাজার থেকে কিছুটা মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছেন।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, ডিএসইতে ২২১ কোটি ৮৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিনের তুলনায় ৮২ লাখ টাকা বেশি। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ২২১ কোটি ২ লাখ টাকার শেয়ার। এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নেয় ৩০৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৫৬টির, কমেছে ১০৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টি শেয়ারের।

সকালে সূচকের উত্থান দিয়ে লেনদেন শুরুর পর ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪ হাজার ৬৮১ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ্ সূচক ৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় এক হাজার ১১১ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে এক হাজার ৭৩৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছে- শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, গ্রামীণফোন, সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট লিমিটেড, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ, এমজেএল বিডি, স্কয়ার ফার্মা এবং এসিআই।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানি হলো- লিব্রা ইনফিউশন, শাহজিবাজার পাওয়ার, সায়হাম কটন, সিনো বাংলা, ফার কেমিক্যাল, সপ্তম আইসিবি, ইস্টার্ন লুব্রিক্যান্টস, বিডি থাই, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম লিমিটেড ও বঙ্গজ।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো- ট্রাস্ট ব্যাংক, তৃতীয় আইসিবি, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, ইমাম বাটন, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক, শ্যামপুর সুগার মিল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ন্যাশনাল টি এবং ব্র্যাক ব্যাংক।

ঢাকার বাজারের মতো বুধবারে চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জেও কিছুটা সূচকের পতন ঘটেছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২২ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার। সিএসইতে সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়ায় ১৪ হাজার ৩১৬ পয়েন্টে। মোট লেনদেন হয়েছে ২২৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০৭টির, কমেছে ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানি হলো- জিপিএইচ ইস্পাত, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, বেক্সিমকো লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, সিঙ্গার বিডি, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, সালভো কেমিক্যাল, সামিট এলায়েন্স পোর্ট লিমিটেড ও মবিল যমুনা বিডি।

প্রকাশিত : ৫ মার্চ ২০১৫

০৫/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: