আংশিক মেঘলা, তাপমাত্রা ২২.২ °C
 
৮ ডিসেম্বর ২০১৬, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
শীর্ষ সংবাদ

মতপার্থক্য দূর হয়নি

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫
  • তেহরানকে ১ বছরের জন্য
  • পরমাণু কর্মসূচী বন্ধ
  • রাখতে হবে ॥ ওবামা
  • ইরান-যুক্তরাষ্ট্র আলোচনা
  • তেহরানকে ১ বছরের জন্য পরমাণু কর্মসূচী বন্ধ রাখতে হবে ॥ ওবামা

প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেন, চূড়ান্তভাবে কোন গুরুত্বপূর্ণ চুক্তিতে পৌঁছাতে গেলে ইরানকে অবশ্যই তার পরমাণু কর্মসূচী অন্তত দশ বছরের জন্য স্থগিত করতে সম্মত হতে হবে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে ওবামা আরও বলেন, এ ধরনের একটি চুক্তিতে উপনীত হতে এখনও মতপার্থক্য রয়ে গেছে। খবর বিবিসি।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু মঙ্গলবার কংগ্রেসে প্রদত্ত এক ভাষণে চুক্তির বিরোধিতা করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেন, নেতানিয়াহু ইরান প্রশ্নে আগেও ভুল করেছেন, যখন তিনি গত বছর একটি অন্তর্বর্তীকালীন চুক্তির বিরোধিতা করেন।

সাক্ষাতকারে ওবামা বলেন, ‘নেতানিয়াহু দাবি করেছেন : এটি একটি সাংঘাতিক চুক্তি হতে যাচ্ছে, এর ফলে ইরান ৫ হাজার কোটি ডলারের সাহায্য পাবে, ইরান চুক্তি মেনে চলবে না ইত্যাদি।’ তিনি বলেন, ‘এর কিছুই সত্যি হয়নি।’ এ সময়কালে আমরা দেখেছি ইরান তার কর্মসূচী নিয়ে অগ্রসর হয়নি। অনেক ক্ষেত্রেই দেশটি কর্মসূচীর উপাদান গুটিয়ে নিয়েছে। তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের মধ্যে এই মতপার্থক্য আমাদের দুই দেশের সম্পর্কে ‘স্থায়ীভাবে ধ্বংসাত্মক হবে না।’ কংগ্রেসের স্পীকার ক্যাপিটল ভবনে ভাষণদানের জন্য নেতানিয়াহুকে আমন্ত্রণ জানান। ডেমোক্র্যাটদের তাঁর এই উদ্যোগ ক্ষুব্ধ করে। প্রতিনিধি সভার রিপাবলিকান দলীয় স্পীকারের নেতানিয়াহুকে উইনস্টন চার্চিলের একটি আবক্ষ মূর্তি উপহার দেয়ার কথা রয়েছে। হোয়াইট হাউসের সঙ্গে আলোচনা না করে তিনি ওয়াশিংটনে তাঁকে বক্তব্য রাখতে আমন্ত্রণ জানানোর বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নেন। ইসরাইলী প্রধানমন্ত্রী নিজেকে চার্চিলের উত্তরাধিকারী হিসেবে গণ্য করেন। তিনি ইরানকে এখন সতর্ক করে দিচ্ছেন চার্চিল যেমন নাৎসিদের সতর্ক করে দেন। তবে তাঁকে (নেতানিয়াহু) রাজনৈতিক হিসাব-নিকাশ করার জন্যও দোষারোপ করা হয়েছেÑ তাঁর রিপাবলিকান বন্ধুদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া এবং আগামী পক্ষকালের মধ্যে অনুষ্ঠেয় ইসরাইলী সাধারণ নির্বাচনে তাঁর প্রচারাভিযানের অংশ হিসেবে ভাষণটিকে কাজে লাগানো। ওবামা প্রশাসন পাল্টা জবাব হিসেবে ইসরাইলের জন্য যা কিছু করছে তার উল্লেখ করেছেÑ প্রেসিডেন্ট ওবামা প্রথমবার নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ২ হাজার কোটি ডলারের সামরিক সাহায্য থেকে শুরু করে ইসরাইলকে কূটনৈতিকভাবে রক্ষার জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে তাঁর ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ। বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, ওবামাকে ‘অসম্মান’ করা তাঁর সফরের উদ্দেশ্য নয়। ইরান সামরিক উদ্দেশ্যে তার পরমাণু কর্মসূচী ব্যবহারের কথা স্বীকার করেছে। যুক্তরাষ্ট্র এবং সেই সঙ্গে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়া ও চীন অবরোধ শিথিলের বিনিময়ে ইরানের পরমাণু কর্মসূচী সীমিতকরণের একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি একটি কাঠামোগত চুক্তিতে পৌঁছানোর ৩১ মার্চের সময়সীমার পূর্বে চলমান আলোচনার অংশ হিসেবে ইরানী পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফের সঙ্গে সুইজারল্যান্ড কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছেন। ৩০ জুনের মধ্যে একটি চূড়ান্ত চুক্তিতে উপনীত হওয়ায় এর লক্ষ্য। ইসরাইলীদের বক্তব্য কোন চুক্তির এক অধীনে ইরান যদি একটি কার্যোপযোগী পরমাণু শিল্প গড়ে তুলতে পারে তবে তা বর্তমান অথবা ভবিষ্যতের জন্য খুবই বিপজ্জনক হবে।

প্রকাশিত : ৪ মার্চ ২০১৫

০৪/০৩/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


ব্রেকিং নিউজ: